Home /News /west-midnapore /
Paschim Medinipur: চন্দ্রকোনা গ্রামীন হাসপাতালে বিদ্যুৎ পোষ্টে খোলা বোর্ড, ঘটতে পারে বিপদ

Paschim Medinipur: চন্দ্রকোনা গ্রামীন হাসপাতালে বিদ্যুৎ পোষ্টে খোলা বোর্ড, ঘটতে পারে বিপদ

এবার খোদ চন্দ্রকোনা গ্রামীণ হাসপাতাল চত্বরেই পাতা রয়েছে বিদ্যুতের মরণ ফাঁদ। যেকোনও মুহূর্তে ঘটতে পারে বড় সড় দুর্ঘটনা।

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর : এবার খোদ চন্দ্রকোনা গ্রামীণ হাসপাতাল চত্বরেই পাতা রয়েছে বিদ্যুতের মরণ ফাঁদ। যেকোনও মুহূর্তে ঘটতে পারে বড় সড় দুর্ঘটনা। কেনই বা উদাসীন প্রশাসন বারেবারে? জবাই চাইছে সাধারণ মানুষ। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনা গ্রামীণ হাসপাতালে এবার মরণ ফাঁদ, রাজ্যে বিদ্যুৎ পিষ্টের মত ঘটনা ঘটার পরেও টনক নড়ছে না প্রশাসনের। চন্দ্রকোনায় ফের আমাদের ক্যামেরায় ধরা পড়ল সেই মরণ ফাঁদের ছবি। বেশকিছু দিন আগে আমরা চন্দ্রকোনা পৌরসভার বাতিস্তম্ভ এর বাক্স খোলা এবং বিদ্যুতের তার বেরিয়ে থাকার খবর দেখিয়েছিলাম। তারপরেই নড়ে চড়ে বসে চন্দ্রকোনা পৌর প্রশাসন। কিন্তু পৌরসভার অবস্থা যেই কে সেই। আবারও অসচেতনতার ছবি চন্দ্রকোনা পৌরসভার অধীনস্ত চন্দ্রকোনা গ্রামীণ হাসপাতাল প্রাঙ্গনে।

    চন্দ্রকোনা পৌরসভার একাধিক ওয়ার্ডে দিন কয়েক আগে খোলা ছিলো পথ বাতিস্তম্ভর ইলেকট্রিক বোর্ড গুলি। সেই খবর সম্প্রচার করার কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই সেই ইলেকট্রিক বোর্ড গুলিকে ঢেকে ফেলে পৌরসভা। এবার খোদ গ্রামীণ হাসপাতাল চত্বরে অসচেতনতার ছবি। গ্রামীণ হাসপাতাল চত্বরে একাধিক বাতি স্তম্ভে খোলা রয়েছে ইলেকট্রিক বোর্ড, যেকোনও সময় ঘটতে পারে বড় সড় দুর্ঘটনা।

    আরও পড়ুনঃ দীর্ঘ ১০ বছর হয়নি এই রাস্তার কাজ! সমস্যায় গ্রামবাসীরা

    পাশাপাশি বর্ষার মরসুমে চন্দ্রকোনা গ্রামীণ হাসপাতাল চত্বরে থাকা রোগীর পরিজনেরা যেকোনও মুহূর্তে অখেয়ালী হলেই হাত চলে যেতে পারে ঐ বাতি স্তম্ভের খোলা ইলেকট্রিক বোর্ড গুলিতে। ইতিমধ্যে এই বিষয়ে প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন, প্রশ্ন তুলছে সাধারণ মানুষ।

    আরও পড়ুনঃ ঝাড়গ্রামে বদলী হলেন পশ্চিম মেদিনীপুরের CMOH

    তবে এবিষয়ে চন্দ্রকোনার ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক স্বপ্ননীল মিস্ত্রি বলেন, বিদ্যুতের বিষয়টি দেখাশোনা করে পৌরসভা। কিছুদিন আগে বিদ্যুতের সমস্যা হওয়ায় পুরসভায় অভিযোগ জানানো হয়েছিল, মেরামতের জন্য হয়ত বোর্ড গুলি খোলা রাখা হয়েছে। আমরা আবারও পুর কর্তৃপক্ষকে খোলা বোর্ড গুলি ঢেকে ফেলতে আবেদন জানাব।

    Partha Mukherjee
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Chandrakona, Paschim medinipur

    পরবর্তী খবর