হোম /খবর /পশ্চিম মেদিনীপুর /
ST সংরক্ষণের দাবিতে কুড়মিদের রেল অবরোধ, খড়গপুরে পরপর ট্রেন বাতিল

Kurmi Protest: ST তালিকাভুক্ত ও পৃথক ধর্মের দাবিতে ফের কুড়মিদের রেল অবরোধ! বাতিল ৪৭ টি ট্রেন, রইল তালিকা

X
title=

কুড়মিদের দাবি- তাদেরকে এসটি তালিকাভুক্ত করতে হবে। পাশাপাশি পৃথক ধর্ম হিসেবে স্বীকৃতি দিতে হবে সারণা ধর্মকে। সেই সঙ্গে কুড়মিদের নিজস্ব ভাষা কুড়মালিকে সংবিধানের অষ্টম তপশিলের অন্তর্ভুক্ত করতে হবে

  • Hyperlocal
  • Last Updated :
  • Share this:

পশ্চিম মেদিনীপুর: মাঝে মাত্র মাস তিনেকের ব্যবধান। ফের কুড়মি সম্প্রদায়ের সড়ক-রেল অবরোধের জেরে রাজ্যের বাকি অংশ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ল জঙ্গলমহল। মঙ্গলবার থেকেই অবরোধ শুরু হয়েছিল জঙ্গলমহলের বিভিন্ন স্থানে। প্রথমে রাস্তা অবরোধ করা হলেও বুধবার সকাল থেকেই খড়গপুর ডিভিশনের নানান স্টেশনে রেল লাইনে বসে পড়েন কুড়মিরা।

মাসখানেক আগে পশ্চিম মেদিনীপুরের খেমাসুলিতে রেল ও রাজ্য সড়ক অবরুদ্ধ করেছিল কুড়মি সম্প্রদায়ের মানুষ। টানা বেশ কয়েকদিন তাদের সেই আন্দোলন চলেছিল। যার জেরে ব্যাপক দুর্ভোগের মুখে পড়ে ঝাড়গ্রাম। পাশাপাশি পশ্চিম মেদিনীপুর ও বাঁকুড়ার জঙ্গলমহল এলাকার‌ও জনজীবন বিপর্যস্ত হয়। কুড়মিদের দাবি- তাদেরকে এসটি তালিকাভুক্ত করতে হবে। পাশাপাশি পৃথক ধর্ম হিসেবে স্বীকৃতি দিতে হবে সারণা ধর্মকে। সেই সঙ্গে কুড়মিদের নিজস্ব ভাষা কুড়মালিকে সংবিধানের অষ্টম তপশিলের অন্তর্ভুক্ত করে ভারতবর্ষের প্রধান ভাষাগুলির অন্যতম একটির স্বীকৃতি দেওয়ার দাবি‌ও তোলা হয়েছে। মূলত এই তিনটি দাবিতেই মাস তিনেক আগে একইভাবে সড়ক ও রেল অবরোধ করে রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলে জনজীবন স্তব্ধ করে দেন তাঁরা।

আরও পড়ুন: বিরাট খবর! প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে বড় নির্দেশ, লাখো পরীক্ষার্থীর জানা জরুরি

সেই সময় রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে তাঁদের এই তিনটে দাবি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দেওয়া হলে অবরোধ ওঠে। কিন্তু রাজ্য সরকার সারণা ধর্মকে পৃথক স্বীকৃতি দিলেও বাকি দুটি দাবি নিয়ে বিশেষ কিছু করা হয়নি বলে কুড়মিদের অভিযোগ। রাজ্য সরকার কেন সিআরআই রিপোর্ট কেন্দ্রকে পাঠাচ্ছে না সেই প্রশ্ন তুলে মঙ্গলবার থেকে ফের কুড়মিরা আন্দোলনের পথে হেঁটেছেন। মঙ্গলবার প্রথমে খেমাশুলির কাছে ১৬ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায়। বুধবার সকাল থেকে আগের মতই ফের ট্রেন অবরোধ শুরু করেন তাঁরা। এর ফলে এদিন সকাল থেকেই একের পর এক দূরপাল্লা ও লোকাল ট্রেন বাতিল হয়ে যেতে থাকে। বহু ট্রেনের রুট অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়েছে। সব মিলিয়ে কুড়মিদের আন্দোলনের জেরে খড়গপুর ও আদ্রা শাখায় ট্রেন চলাচল কার্যত স্তব্ধ।

রেল সূত্রে জানানো হয়েছে ০৮৬৪১ আদ্রা-বরকাকানা মেমু প্যাসেঞ্জার স্পেশাল, ০৮৬৪৯ আদ্রা-পুরুলিয়া মেমু স্পেশাল, ০৩৫৯৫ বোকারো স্টিল সিটি-আসানসোল মেমু স্পেশাল, ০৩৫৯৮ আসানসোল-রাঁচি মেমু স্পেশাল, ০৮৬৫০ পুরুলিয়া-আদ্রা মেমু স্পেশাল, ১৮০৮৫ খড়গপুর-রাঁচি মেমু এক্সপ্রেস, ১৮১১৬ চক্রধরপুর-গোমোহ এক্সপ্রেস, ০৩৫৯২ আসানসোল-বোকারো স্টিল সিটি মেমু স্পেশাল, ১৩৩০১ ধানবাদ-টাটানগর এক্সপ্রেস, ১৮১৮৩ টাটানগর-দানাপুর এক্সপ্রেস, ০৩৫৯৪ আসানসোল-পুরুলিয়া মেমু স্পেশাল, ১৮০৩৬ হাতিয়া-খড়গপুর এক্সপ্রেস, ১৮০৩৫ খড়গপুর-হাতিয়া এক্সপ্রেস, ০৩৫৯৩ পুরুলিয়া-আসানসোল মেমু স্পেশাল, ১৮১৮৪ দানাপুর-টাটানগর এক্সপ্রেস, ০৮৬৪৭ আদ্রা-বড়ভূম মেমু স্পেশাল, ০৮০৪৯ খড়গপুর-ঝাড়গ্রাম মেমু স্পেশাল, ০৮০৫৪ টাটানগর-খড়গপুর মেমু স্পেশাল, ০৮০১৫ খড়গপুর-ঝাড়গ্রাম মেমু স্পেশাল, ০৮০৫৫ খড়গপুর-টাটানগর মেমু স্পেশাল, ০৮০৬০ টাটানগর-খড়গপুর মেমু স্পেশাল, ১২৮১৪ টাটানগর-হাওড়া স্টিল এক্সপ্রেস, ০৮০৬৯ সাঁতরাগাছি-ঝাড়গ্রাম মেমু স্পেশাল, ১২০২১ হাওড়া-বারবিল জন শতাব্দী এক্সপ্রেস, ১২৮৭১ হাওড়া-তিতলাগড় এক্সপ্রেস, ০৮০৭০ ঝাড়গ্রাম-সাঁতরাগাছি মেমু স্পেশাল, ০৮১৬০ টাটানগর-খড়গপুর মেমু স্পেশাল, ০৮০৭১ খড়গপুর-টাটানগর মেমু স্পেশাল, ২২৮৯২ রাঁচি-হাওড়া ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস, ১৮০৩৩ হাওড়া-ঘাটসিলা মেমু এক্সপ্রেস, ০৮০৫০ ঝাড়গ্রাম-খড়গপুর মেমু স্পেশাল, ২২৮৯১ হাওড়া-রাঁচি ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস, ১৮০৩৪ ঘাটশিলা-হাওড়া মেমু এক্সপ্রেস, ০৩৫৯৭ রাঁচি-আসানসোল মেমু স্পেশাল, ০৮৬৯৭ ঝাড়গ্রাম-পুরুলিয়া মেমু স্পেশাল, ১৮০১৯ ঝাড়গ্রাম-ধানবাদ মেমু এক্সপ্রেস, ১২০২২ বারবিল-হাওড়া জন শতাব্দী এক্সপ্রেস, ১২৮১৩ হাওড়া-টাটানগর স্টিল এক্সপ্রেস, ১২৩৭৬ জসিডি-তাম্বারাম এক্সপ্রেস, ১৩৩০২ টাটানগর-ধানবাদ এক্সপ্রেস, ০৮৬৪২ বারকাকানা-আদ্রা মেমু স্পেশাল, ১৮০৮৬ রাঁচি-খড়গপুর মেমু এক্সপ্রেস, ১৮১১৫ গোমোহ-চক্রধরপুর মেমু এক্সপ্রেস, ১৩২৮৭ দুর্গ-রাজেন্দ্রনগর এক্সপ্রেস, ০৮৬৪৮ বারভূম-আদ্রা মেমু স্পেশাল, ০৮৬৯৮ পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম মেমু স্পেশাল, ১৮০২০ ধানবাদ-ঝাড়গ্রাম মেমু এক্সপ্রেস বাতিল করা হয়েছে। প্রায় ৪৭ টি দূরপাল্লার ট্রেন বুধবার সকালেই কুড়মিদের আন্দোলনের জেরে বাতিল করতে বাধ্য হয় রেল। পাশাপাশি বেশ কয়েকটি ট্রেনকে ঘুরপথে চালানো হচ্ছে।

আরও পড়ুন: ভাল নেই অনুব্রত মণ্ডল! আদালতের বাইরে যা জানালেন, দুশ্চিন্তা বাড়ল কয়েকগুণ

এদিকে লক্ষ লক্ষ মানুষের ভোগান্তি হলেও এক্ষুণি আন্দোলনের পথ থেকে সরতে নারাজ কুড়মিরা। তারা পরিষ্কার জানিয়েছে তিনটি দাবি না মানা হলে এরপর আরও বৃহত্তর আন্দোলনের পথে হাঁটবে।

রঞ্জন চন্দ

Published by:kaustav bhowmick
First published:

Tags: Train Cancelled