Home /News /west-midnapore /
বন্দি দশা থেকে মুক্তির আকুতি, মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধানাগার থেকে মুক্ত ১০ বন্দি

বন্দি দশা থেকে মুক্তির আকুতি, মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধানাগার থেকে মুক্ত ১০ বন্দি

title=

10 prisoners were released from Medinipur Central Jail: মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন ১০ জন বন্দি। যারা কেউ ৯ বছর, কেউ ১২ বছর, কেউ তারও বেশি সময় ধরে বন্দি জীবন কাটিয়েছে৷

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর: স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্ত অনুসারে রাজ্যের বিভিন্ন জেল থেকে মুক্তি পেলেন ৯৯ জন৷ তার মধ্যে পশ্চিম মেদিনীপুরের মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার থেকে মুক্তি পেলেন ১০ জন। সেই মুক্তি পর্বে হাজির হয়েছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী মানস রঞ্জন ভুঞা, বিধায়ক জুন মালিয়া, অজিত মাইতি-সহ কারা দফতরের আধিকারিকরা ৷

    কারা দফতরের কাছে করা আবেদন অনুসারে প্রতিবছরই একটি সার্ভে হয়ে থাকে বিভিন্ন সংশোধনাগারে থাকা বন্দিদের নিয়ে ৷ দীর্ঘদিন ধরে জেলে থাকা বন্দীরা নিজেদের সংশোধন করেছেন, এমন প্রতিশ্রুতি দিয়ে মুক্ত জীবনের জন্য প্রার্থনা করে থাকেন তারা। তাদের আবেদন, বিভিন্ন অতীত তথ্য ক্ষতিয়ে দেখে কারা দফতর অনেককেই বন্দি দশা থেকে মুক্তি দিয়ে থাকে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে। তাদের স্বাধীন জীবন যাপনের জন্য মুক্তি দেওয়া হয়। এ বারও তাই হয়েছে। রাজ্যে ৯৯ জন এমন বন্দিকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে স্বাধীনতা দিবসকে সামনে রেখে। তার মধ্যে মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন ১০ জন। যারা কেউ ৯ বছর, কেউ ১২ বছর, কেউ তারও বেশি সময় ধরে বন্দি জীবন কাটিয়েছেন৷

    আরও পড়ুন: অনুব্রতর 'বেনামী' সম্পত্তির মালিক, কে এই আব্দুল লতিফ? বিস্ফোরক তথ্য চমকে দেবে

    বন্দিমুক্তি পর্বে হাজির হয়েছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী মানস রঞ্জন ভুঁঞা, বিধায়ক জুন মালিয়া, অজিত মাইতি, কারা দফতরের বিভিন্ন আধিকারিকরাও। এ দিন মানস রঞ্জন ভুঁঞা বলেন, "বন্দিদের স্বাভাবিক জীবনে ফেরার একটা সুযোগ দেওয়া হয়ে থাকে৷ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে তাদের স্বাধীন জীবন যাপনের জন্য মুক্তি দেওয়া হল। আমাদের এই জেল সংশোধনাগার থেকে ১০ জনকে ছাড়া হল। মুহুর্তটা সব থেকে মনে রাখার মতো আমাদের কাছে। কারন এরা দীর্ঘদিন পরে পরিবারের কাছে ফিরবে৷ বন্দিদের ১০ জনকে জেলের বাইরে এনে সংশোধনাগার প্রাঙ্গনে ফুলের তোড়া ও মিষ্টি দিয়ে নতুন জীবনের জন্য অভ্যর্থনা জানান আধিকারিক ও মন্ত্রীরা।

    বন্দি দশা থেকে ৯ বছর পর মুক্তি পেয়েছেন অন্যদের সঙ্গে এমন একজন বাঁকুড়ার শ্রীকান্ত দে। তিনি বলেন, একটি অপরাধের জন্য ৯ বছর জেল খেটে বাইরে বেরোলাম ৷ জানিনা পরিবার আমাকে কীভাবে গ্রহন করবে। বাঁকুড়ায় ফেরার পদ্ধতিও ভুলে গিয়েছি। প্রশাসনের পক্ষ থেকে গাড়িতে বসিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে।

    Partha Mukherjee

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    Tags: Independence Day 2022

    পরবর্তী খবর