Home /News /uncategorized /
আবার তোলা চেয়ে কাঠগড়ায় কামারহাটি পৌরসভা কাউন্সিলার রুপালী সরকার

আবার তোলা চেয়ে কাঠগড়ায় কামারহাটি পৌরসভা কাউন্সিলার রুপালী সরকার

আবার তোলা চেয়ে কাঠগড়া য় কামারহাটি পৌরসভা র ২৯ নম্বর ওয়াডের কাউন্সিলার রুপালী সরকার ।

  • Share this:

    #কলকাতা: আবার তোলা চেয়ে কাঠগড়া য় কামারহাটি পৌরসভা র ২৯ নম্বর ওয়াডের কাউন্সিলার রুপালী সরকার । কয়েকমাস আগে এক টোটো চালকের কাছে তোলা চেয়ে না পেয়ে তাকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপ মারার অভিযোগ উঠেছিল। বেল কিছুদিন আত্মগোপন করে থকার পর তিনি আদালত এ আত্মসমর্পণ করেন ও জামিনে মুক্ত হন।

    আবার ও তার বিরুদ্ধে এক ব্যক্তি সুরেশ রাম এলাকায় বাড়ি করবার সময় তার কাছ থেকে এক লক্ষ টাকা ঘুষ চায় এলাকায় কাউন্সিলার রুপালি সরকারের ডান হাত তৃনমুল কংগ্রেস কর্মী অভয় তেওয়ারী র বিরুদ্ধে। এলাকার আর এক বাসিন্দার বাড়িতে জোর করে একজন দখলদার কে ঢুকিয়ে দেন পয়সার বিনিময়ে। বেলঘড়িয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলে পুলিশ উল্টে অভিযোগকারী কেউ দুইবার্তা গ্রেপ্তার করে। এই ঘটনায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। । এলাকার মানুষ রুপালি সরকার ও তার ডানহাত অভয় তেওয়ারীর গ্রেফতার এর দাবি তোলে। কিন্তু এই ঘটনার কথা অস্বিকার করে কাউন্সিলার রুপালি সরকার ।

    তোলাবাজি-সিন্ডিকেট-প্রোমোটার রাজ মোকাবিলায় কঠোর অবস্থান মুখ্যমন্ত্রীর। নবান্নে অভিযোগ জমা পড়লেই দ্রুত ব্যবস্থার নির্দেশ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পরপরই তোলাবাজির অভিযোগে রাজারহাট ও বাগুইআটি থেকে গ্রেফতার হয়েছে ছ'জন। যার মধ্যে পাঁচ জন তৃণমূল কাউন্সিলর ডাম্পির ঘনিষ্ঠ। শাসক দলের সাংসদ কাকলি ঘোষদস্তিদার ঘনিষ্ঠ এক দুষ্কৃতীকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

    হুশিয়ারি আগেই দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এবার সিন্ডিকেট ঘনিষ্ঠ নেতা-মন্ত্রীদের সাগরেদদের জেলে পুরে আরও কড়া বার্তা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    তোলাবাজি-সিন্ডিকেট-প্রোমোটাররা রাজ মোকাবিলায় নবান্নের আধিকারিকদের মৌখিক নির্দেশ দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

    - নবান্নে কোনও অভিযোগ জমা পড়লেই তা খতিয়ে দেখে দ্রুত পদক্ষেপের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর ৷

    প্রশাসনের সর্বোচ্চ স্তরের নির্দেশ পেয়ে তৎপর পুলিশও। রবিবার বিকেল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত রাজারহাট ও বাগুইআটিতে অভিযান চালিয়ে মোট ছ'জনকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধেই তোলাবাজির অভিযোগ।

    রাজারহাটের দশদ্রোণ থেকে ৩ জনকে গ্রেফতার করে বাগুইআটি থানার পুলিশ ৷ ধৃতদের নাম প্রশান্ত সামন্ত, অভিজিৎ দাস ও অনূপ সিংহরায় ৷ ধৃতদের বিরুদ্ধে দশদ্রোণ এলাকার একটি নির্মীয়মাণ বহুতল থেকে ৬০ লাখ টাকা তোলা চাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে ৷ রাজারহাটের বাবলাতলা থেকে আরও দু’জনকে গ্রেফতার করেছে এয়ারপোর্ট থানার পুলিশ ৷ ধৃতদের নাম রাজু কুণ্ডু ও সঞ্জীব সরকার ৷ এদের বিরুদ্ধেও নির্মীয়মাণ বহুতলের প্রোমোটারের থেকে ৫ লাখ টাকা তোলা চাওয়ার অভিযোগ ৷ ধৃত পাঁচ জনই আবার বিধাননগরের তৃণমূল কাউন্সিলর ডাম্পির ঘনিষ্ঠ ৷ এছাড়া তোলাবাজির অভিযোগে নিউটাউনের পালিগুড়ি থেকে গ্রেফতার হয়েছে একজন ৷ ধৃত আলি হোসেন লস্কর সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদারের ঘনিষ্ঠ বলে জানা গিয়েছে ৷

    অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির মাধ্যমেই ঘরে-বাইরে বার্তা দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এবার সিন্ডিকেট ঘনিষ্ঠ নেতা-মন্ত্রীদের সাগরেদদের জেলে পুরে আরও কড়া বার্তা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    First published:

    Tags: Councillor, ETV Bangla News, Kamarhati, Kolkata

    পরবর্তী খবর