Home /News /uncategorized /
শরিকি আপত্তি অগ্রাহ্য করে অধীর-মান্নানের সঙ্গে পা মেলালেন সিপিআইএমের তন্ময়

শরিকি আপত্তি অগ্রাহ্য করে অধীর-মান্নানের সঙ্গে পা মেলালেন সিপিআইএমের তন্ময়

আরও একবার কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে, শরিকদের আপত্তিকে রীতিমতো অগ্রাহ্য করে কংগ্রেসের মিছিলে উপস্থিত সিপিআইএম ৷

  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: আরও একবার কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে, শরিকদের আপত্তিকে রীতিমতো অগ্রাহ্য করে কংগ্রেসের মিছিলে উপস্থিত সিপিআইএম ৷

    বামফ্রন্টের বৈঠক হওয়া সিদ্ধান্তকে পাত্তা না দিয়েই কংগ্রেসের মিছিলে হাঁটলেন উত্তর দমদমের সিপিআইএম বিধায়ক তন্ময় ভট্টাচার্য। শনিবার মহানগরের রাজপথে মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে কংগ্রেসের ডাকা মিছিলে আবদুল মান্নান, অধীর চৌধুরীর সঙ্গে পা মেলালেন তন্ময় ভট্টাচার্য ৷

    দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে কেন কংগ্রেসের মিছিলে কেন? এই নিয়ে প্রশ্ন উঠতে তন্ময় ভট্টাচার্যের দাবি, মানুষের হয়ে লড়াই করতেই মিছিলে আসা। তিনি আরও বলেন, ‘আমি পরিষদীয় দলের পক্ষ থেকে আসিনি ৷ আমি ব্যক্তিগত সিদ্ধান্তেই মিছিলে যোগ দিয়েছি ৷’

    তন্ময় ভট্টাচার্যের এই পদক্ষেপে ক্ষুদ্ধ আরএসপি সহ বাকি বাম শরিকেরা ৷ ফ্রন্টের লাইন অমান্য করায় তন্ময়ের ব্যাপারে বিমান বসুর কাছে অভিযোগ জানাতে চলেছে আরএসপি। এমতাবস্থায় তন্ময়ের সিদ্ধান্তের দায় এড়াচ্ছে সিপিআইএমের পরিষদীয় দল। আলিমুদ্দিনের প্রচ্ছন্ন মদতেই তন্ময়ের মিছিলে হাঁটা কিনা, উঠছে সে প্রশ্নও। জোট বিতর্কে দ্বিধাবিভক্ত বঙ্গ বামফ্রন্টে ফাটল সব মিলিয়ে আরও প্রকাশ্যে ৷

    কংগ্রেসের সঙ্গে জোটকে পিছনে ফেলে এগিয়ে যাওয়া নিয়ে একমত হয়েছিল বামফ্রন্ট। বাম পরিষদীয় দলও সেই সিদ্ধান্তও মেনে নেয়। তারপর ২৪ ঘন্টাও কাটল না। দলের সিদ্ধান্তকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে কংগ্রেসের মিছিলে হাঁটলেন উত্তর দমদমের সিপিএম বিধায়ক তন্ময় ভট্টাচার্য। ফ্রন্টের সিদ্ধান্ত না মেনে কংগ্রেসের মিছিলে হাঁটার যুক্তি হিসেবে জনমতকে খাড়া করলেন তিনি ৷

    ফ্রন্টের সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত অমান্য করা নিয়ে তন্ময়বাবুকে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, ‘আমাকে সবাই জিজ্ঞাসা করছেন,আমি কেন কংগ্রেসের মিছিলে? আমি বলতে চাই এটা মানুষের ইস্যু ৷ নির্বাচনী প্রচারে আমরাই মানুষকে বলেছি ৷ কংগ্রেসের সঙ্গে আমরা জোট করেছি ৷ মূল্যবৃদ্ধি নির্বাচনে ছিল অন্যতম ইস্যু ৷ মানুষ আমাকে জিতিয়েছেন ৷ এই জনমত অস্বীকার করা যাবে না ৷ দলীয় নেতাদেরও একথাই বলেছি ৷ মানুষের দাবিতে বারবার রাস্তায় নামব ৷ কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আমার লড়াই চলবে ৷’

    শুক্রবার বিধানসভায় বাম পরিষদীয় দলের বৈঠকে স্থির হয়েছিল, কংগ্রেসের মিছিলে যোগ দেবেন না তাঁরা। সেই সিদ্ধান্ত কংগ্রেস নেতৃত্বকে জানিয়েও দেওয়া হয়। সেই সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করেই মিছিলে আসায় কংগ্রেসের বাহবা পেয়েছেন তন্ময়।

    তন্ময়ের মিছিলে হাঁটার খবর বাম শরিকদের ক্ষোভ যেন উসকে দিয়েছে। কংগ্রেসের মিছিলে সিপিআইএমের তন্ময় ভট্টাচার্যে যোগদানে ক্ষোভে ফুঁসছে RSP ৷ ফ্রন্টের সিদ্ধান্ত অগ্রাহ্য করায় তন্ময়ের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে, তা নিয়ে ফ্রন্ট চেয়ারম্যানের দ্বারস্থ হতে চলেছে আরএসপি। ক্ষুব্ধ RSP বিধায়ক তথা প্রাক্তন মন্ত্রী বিশ্বনাথ চৌধুরী বলেন, ‘ব্যক্তিগত উদ্যোগ কথার অর্থ কী? পরিষদীয় সিদ্ধান্ত লঙ্ঘন করে মিছিলে গিয়েছে তন্ময় ৷ বামফ্রন্ট চেয়ারম্যানের কাছে কৈফিয়ত চাইবে RSP ৷’

    তন্ময়ের সিদ্ধান্তের দায় এড়ালেও দলীয় বিধায়কের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার ইঙ্গিত দেয়নি সিপিআইএম। সিপিআইএমের পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী জানান, ‘ব্যক্তিগত উদ্যোগে যাওয়া উচিত হয়নি ৷ আমার সঙ্গে তাঁর কোনও কথা হয়নি ৷ পরিষদীয় দলের অনুমতি ছাড়াই উনি গিয়েছেন ৷ এব্যাপারে তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হবে ৷’

    ভোটে হারের পর বারবার জোটের পক্ষে সওয়াল করেছেন সূর্যকান্ত মিশ্ররা। শরিকদের চাপে সেই অবস্থান বদলাতে হয়। তবে জোটবন্ধুর হাতটা বোধহয় একেবারে ছেড়ে দিতে চায়নি সিপিএমের জোটপন্থীরা। তন্ময়ের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগের পরও আলিমুদ্দিনের তরফে তেমন কড়া ব্যবস্থার ইঙ্গিত মিলছে না । এতেই এই সম্ভাবনা স্পষ্ট বলে মত ওয়াকিবহল মহলের।

    First published:

    Tags: Alliance Controversy, Congress, Congress Rally, Cpim, Leftfront Congress Alliance, Tanmoy Bhattacharya, সিপিআইএম