corona virus btn
corona virus btn
Loading

পদের লোভ নয়, সংগঠনে টিম গেমই ছিল অশোকবাবুর মূলমন্ত্র

পদের লোভ নয়, সংগঠনে টিম গেমই ছিল অশোকবাবুর মূলমন্ত্র

অশোক ঘোষ ৷ বাংলার রাজনীতির অবিসংবাদী নেতাদের মধ্যে একজন। গণআন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন চিরজীবন । আমৃত্যু সামলেছেন ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য সম্পাদকের পদ। চাইলেই ভোটে জিতে গুরুত্বপূর্ণ দফতরের মন্ত্রী হতে পারতেন। কিন্ত, রাষ্ট্র ক্ষমতার অংশ চাননি। আজীবন শুধু সংগঠনই ছিল অশোক ঘোষের ধ্যানজ্ঞান।

  • Share this:

#কলকাতা:   অশোক ঘোষ ৷  বাংলার রাজনীতির অবিসংবাদী নেতাদের মধ্যে একজন। গণআন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন চিরজীবন । আমৃত্যু সামলেছেন ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য সম্পাদকের পদ। চাইলেই ভোটে জিতে গুরুত্বপূর্ণ দফতরের মন্ত্রী হতে পারতেন। কিন্ত, রাষ্ট্র ক্ষমতার অংশ চাননি। আজীবন শুধু সংগঠনই ছিল অশোক ঘোষের ধ্যানজ্ঞান।

১৯২৩ সালে ২ জুলাই চুঁচুড়ায় অশোক ঘোষের জন্ম। তখন দেশ পরাধীন। কৈশোরে তিনি দেখেন, ব্রিটিশ শাসকের বিরুদ্ধে স্বাধীনতার সংগ্রাম ক্রমশ তীব্র হচ্ছে। জড়িয়ে পড়েন আন্দোলনে। ১৯৪২ সালে ভারত ছাড়ো আন্দোলনেও সক্রিয় ভূমিকা নিয়েছিলেন অশোক ঘোষ।

স্বাধীনতা আন্দোলনে ভূমিকা 

-- ১৯৪২-১৯৪৪ সাল পর্যন্ত গোপন ডেরা থেকে কাজ চালাতেন

-- ১৯৪৪ সালে কলেজ স্কোয়ারের কাছে মেস থেকে গ্রেফতার হন

-- স্বদেশির দায়ে ৩ বছর জেলবন্দি ছিলেন

-- ১৯৫২ সালে ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য সম্পাদক হন অশোক ঘোষ

-- আমৃত্যু টানা ৬৪ বছর রাজ্য সম্পাদকের পদে ছিলেন

দেশ স্বাধীন হয়। ফরওয়ার্ড ব্লকের প্রথম সম্মেলনে অংশ নেন অশোক ঘোষ। দেশের প্রথম সাধারণ নির্বাচন যে বছর, সে বছরই তরুণ নেতার হাতে এল গুরুভার।রাজ্য বা জাতীয় রাজনীতি তো বটেই, আন্তর্জাতিক স্তরেও এই নজিরের হয়তো কোনও জুড়ি নেই। রাজ্যে ফরওয়ার্ড ব্লকের শীর্ষ পদে থাকলেও কোনওদিন নির্বাচনে লড়েননি। বামফ্রন্টের প্রতিষ্ঠাতা দলের সদস্য ছিলেন তিনি। নির্বাচনে জিতে গুরুত্বপূর্ণ দফতরের মন্ত্রী হতেই পারতেন। কিন্তু, স্বেচ্ছায় সে সব থেকে চিরকালই নিজেকে দূরে সরিয়ে রেখেছেন। দলের সংগঠন সামলানোর গুরুদায়িত্ব পালন করেছেন টানা সাড়ে ছয় দশক।

First published: March 3, 2016, 1:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर