Home /News /technology /
BGMI Banned In India: PUBG-র পর এবার BGMI-ও ব্যান করে দিল ভারত সরকার, উধাও প্লে স্টোর থেকে

BGMI Banned In India: PUBG-র পর এবার BGMI-ও ব্যান করে দিল ভারত সরকার, উধাও প্লে স্টোর থেকে

গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকে সরলেও ইতিমধ্যেই যে সব গ্রাহকের ফোনে এই গেম ইনস্টল রয়েছে তাঁরা এই গেম খেলতে পারছেন।

  • Share this:

BGMI Banned In India: ভারতে জনপ্রিয় পাবজি মোবাইল গেম বন্ধ হওয়ার পরে সাউথ কোরিয়ান গেম ডেভেলপার ক্রাফটন (Krafton) ভারতে একই গেম অন্য নামে কিছু পরিবর্তন করে চালু করেছিল। সেটি হল ব্যাটলগ্রাউন্ড মোবাইল ইন্ডিয়া গেম বা BGMI। কিন্তু, এখন আবার ভারতে ব্যান করা হয়েছে ব্যাটলগ্রাউন্ড মোবাইল ইন্ডিয়া গেম। ভারতের আইটি মন্ত্রক থেকে অফিসিয়ালি কিছু না জানানো হলেও গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকে রিমুভ করা হয়েছে ব্যাটলগ্রাউন্ড মোবাইল ইন্ডিয়া গেম। ক্রাফটনের তরফে জানানো হয়েছে যে, কেন গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকে থেকে এই গেম উধাও হল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে, এই বিষয়ে সঠিক তথ্য পেলে জানানো হবে।

গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকে থেকে সরলেও ইতিমধ্যেই যে সব গ্রাহকের ফোনে এই গেম ইনস্টল রয়েছে তাঁরা এই গেম খেলতে পারছেন। এক বিবৃতিতে গুগলের তরফে জানানো হয়েছে যে, "নির্দেশ পাওয়ার পরে, সেই প্রক্রিয়া অনুসরণ করে, আমরা সংশ্লিষ্ট ডেভেলপারকে জানিয়েছি এবং ভারতে গুগল প্লে স্টোরে উপলব্ধ অ্যাপটিতে অ্যাকসেস ব্লক করেছি।"

আরও পড়ুন: মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের এই ৫ ট্রিক আসান করে দেবে লেখালিখি

ব্যাটলগ্রাউন্ড মোবাইল ইন্ডিয়া সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে সম্প্রতি তাদের ১০০ মিলিয়ন গ্রাহক হয়েছে। সেই ঘটনার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই ভারতে গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকে উধাও হয়েছে ব্যাটলগ্রাউন্ড মোবাইল ইন্ডিয়া। এর পরেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে তবে কি ভারতে নিষিদ্ধ হল ব্যাটলগ্রাউন্ড মোবাইল ইন্ডিয়া গেম!

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে প্রহার নামের একটি এনজিও ভারত সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছিল ব্যাটলগ্রাউন্ড মোবাইল ইন্ডিয়া গেম এবং পাবজি মোবাইলের মতো গেম বন্ধ করতে। এর পর ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২ সালে ভারতে ব্যান করা হয় ৫৪টি চাইনিজ অ্যাপ। এবার আবার ব্যান করা হল ব্যাটলগ্রাউন্ড মোবাইল ইন্ডিয়া। এর থেকেই ভারত সরকারের সিদ্ধান্ত স্পষ্ট।

আরও পড়ুন: ১৩টি নতুন মোবাইল প্ল্যানে বিনামূল্যে অ্যামাজন প্রাইম! দেখুন অসাধারণ এই অফার

আইএনএসের রিপোর্ট অনুযায়ী রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘ তৈরি করেছে স্বদেশি জাগরণ মঞ্চ। যারা সমর্থন করছে প্রহারকে। এর মাধ্যমে চিনের বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ ভারতে ব্যান করা হচ্ছে। এই সকল অ্যাপে চিনের প্রভাব রয়েছে সেই কারণ দেখিয়ে ভারতে ব্যান করা হচ্ছে এই সকল অ্যাপ। ভারত সরকার ২০২০ সালের ২ সেপ্টেম্বর পাবজি মোবাইল ব্যান করেছিল। এবার ব্যান করা হল ব্যাটলগ্রাউন্ড মোবাইল ইন্ডিয়া।

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

Tags: Battleground mobile india, PUBG

পরবর্তী খবর