Home /News /technology /
বৃষ্টির মধ্যে হোক বা জলের নিচে, iPhone-এ টাইপ করা থামবে না! আসছে নতুন প্রযুক্তি

বৃষ্টির মধ্যে হোক বা জলের নিচে, iPhone-এ টাইপ করা থামবে না! আসছে নতুন প্রযুক্তি

iPhone Underwater Typing: ভবিষ্যতে আইফোনের ইউজাররা বৃষ্টি এবং জলের নিচেও টাইপ করতে সক্ষম হবে।

  • Share this:

    iPhone Underwater Typing: আইফোন (iPhone) প্রেমীদের জন্য সুখবর। কারণ আইফোনে আসতে চলেছে নতুন প্রযুক্তি। এর মাধ্যমে বৃষ্টির মধ্যেও আইফোনে টাইপ করতে কোনও সমস্যা হবে না। এছাড়াও জলের নিচেও টাইপ করা যাবে আইফোনে। শুনতে অবাক লাগলেও আইফোনে ভবিষ্যতে আসতে চলেছে এমনই নতুন প্রযুক্তি। জানা গিয়েছে যে আইফোনে ব্যবহার করা হতে চলেছে নতুন পেটেন্ট। এর মধ্যে রয়েছে ইউএস পেটেন্ট এবং ট্রেডমার্ক অফিস। ভবিষ্যতে আইফোনে ব্যবহার করা হতে চলেছে এই নতুন প্রযুক্তি। সুতরাং আগামী কিছু দিনের মধ্যে না হলেও ভবিষ্যতে আইফোনের ইউজাররা বৃষ্টি এবং জলের নিচেও টাইপ করতে সক্ষম হবে।

    বর্তমানে অ্যাপলের (Apple) ফোনে যে পেটেন্ট ব্যবহার করা হয় সেটি সাপোর্ট করে ময়েশ্চার কনটেন্ট। এর ফলে অ্যাপলের বিভিন্ন ডিভাইসের স্ক্রিনে কন্ডিশন অনুযায়ী সব কিছু অ্যাডজাস্ট হয়ে যায়। কিন্তু, আইফোনের ডিসপ্লেতে নিয়ে আসা হতে চলেছে পরিবর্তন। এর ফলে কন্ট্রোল বাটন এবং সেন্সর আইফোনে বিল্ট করা হবে। সেন্সর এমনভাবে তৈরি করা হবে, যেন কোনও লিকুইড ড্রপ পড়লেও কোনও ফলস টাচ কাজ না করে। এছাড়াও ডিসপ্লেতে ব্যবহার করা হতে চলেছে প্রেসার সেনসিটিভ স্ক্রিন। এর ফলে ইউজাররা যখন অতিরিক্ত প্রেসার দেবে, তখনই সেটি কাজ করবে। এর ফলে সেই মতোই আইফোনের স্ক্রিনে ময়েশ্চার ব্যবহার করা হবে।

    আরও পড়ুন - সাবধান! বন্ধ হয়ে যেতে পারে আপনার Netflix অ্যাকাউন্ট! কেন জানুন

    আরও পড়ুন - ভুলেও এই মেসেজে ক্লিক করবেন না! অনলাইন শপিংয়েও সাবধান! খালি হয়ে যাবে ব্যাঙ্কের সব টাকা!

    বৃষ্টির মধ্যে এবং জলের নিচে আইফোন বের করলে এর ক্যামেরাও সেই মতো কাজ করা শুরু করে দেবে। নতুন প্রযুক্তির মাধ্যমে আইফোনের ক্যামেরা অ্যাপ কাজ করবে ড্রাই, ওয়েট এবং আন্ডারওয়াটার মোডে। এর ফলে বৃষ্টির মধ্যে এবং জলের নিচেও ফটো তুলতে কোনও অসুবিধা হবেনা। আমরা প্রায় সবাই জানি ড্রাই মোডের সম্পর্কে। কিন্তু ওয়েট এবং আন্ডারওয়াটার মোডও ইউজাররা ব্যবহার করতে পারবে। সেই সময় ইউআই কাজ করবে না। সেই মোডের জন্য বড় বাটনের ব্যবহার করা হবে। এর ফলে খুব সহজ ভাবেই ব্যবহার করা যাবে ক্যামেরা কয়েকটি বেসিক টাচ রেসপন্সের মাধ্যমে।

    এছাড়াও অ্যাপল ইউজারদের তাদের আইফোনের ডেপথ লেভেল সম্পর্কে জানিয়ে দেবে। এছাড়াও ইউজারদের সতর্ক করে জানিয়ে দেওয়া হবে ওয়াটার রেসিস্টেন্সের সীমা। যেন সেই সীমায় পৌঁছালেই ইউজাররা তা জানতে পারে। অ্যাপল আইফোনের জন্য নিয়ে আসতে চলেছে অন্য আইপি রেটিং। এর ফলে ভবিষ্যতে আইফোনে ব্যবহার করা হতে পারে আরও উন্নত প্রযুক্তি।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Apple, IPhone

    পরবর্তী খবর