Home /News /technology /
Garena Free Fire Game: কেন্দ্র নিষিদ্ধ করেছে গারেনা ফ্রি ফায়ার গেম, তবুও চলছে খেলা

Garena Free Fire Game: কেন্দ্র নিষিদ্ধ করেছে গারেনা ফ্রি ফায়ার গেম, তবুও চলছে খেলা

Garena Free Fire Game: যাঁদের মোবাইলে আগে থেকেই সেটি ডাউনলোড করা রয়েছে, তাঁরা এখনও খেলে যাচ্ছেন এই ফ্রি ফায়ার গেম।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: জাতীয় সুরক্ষার স্বার্থে বেশ কয়েকটি অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে ভারত সরকার। এর মধ্যে রয়েছে জনপ্রিয় গ্যারেনা ফ্রি ফায়ার (Garena Free Fire Game)। ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্র্্কের তরফে এ দেশে নিষিদ্ধ হয়েছে ৫৩টি চাইনিজ মোবাইল অ্যাপ। তবে গ্যারেনা ফ্রি ফায়ার গেম নিষিদ্ধ হলেও ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স এখনও সচল এদেশে।

বেশ কিছুদিন আগেই গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপেল প্লে স্টোর ফ্রি ফায়ার গেমের ডাউনলোডিং অপশন বন্ধ করে দিয়েছে। কিন্তু যাঁদের মোবাইলে আগে থেকেই সেটি ডাউনলোড করা রয়েছে, তাঁরা এখনও খেলে যাচ্ছেন এই ফ্রি ফায়ার গেম(Garena Free Fire Game)।গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত সরকার ভারতে ব্যান করে দেয় গারেনা ফ্রি ফায়ার গেম। এর ঠিক একদিন আগেই ১৩ ফেব্রুয়ারি ১৪ বছর বয়সের এক ছেলে আত্মঘাতী হয়। পুলিশের দাবি, ওই কিশোরের গারেনা ফ্রি ফায়ার খেলতে না পারায় আত্মঘাতী হয়। পরিবারের লোকজন তাকে ফ্রি ফায়ার গেম খেলতে না দেওয়ায় অভিমানেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয় ওই কিশোর। নিউজ এজেন্সি এএনআই (ANI)- সূত্রে এমনই জানা গিয়েছে।

ভারত সরকার কয়েকদিন আগে এ দেশে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে পাবজি মোবাইল গেমকে। এরপর ভারতে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে গারেনা ফ্রি ফায়ার গেম। সম্প্রতি ভারত সরকার এই গারেনা ফ্রি ফায়ার গেমও ব্যান করে দেয়।

ফ্রি ফায়ার বনাম ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স গেমের গ্রাফিক্সের পার্থক্য -

ফ্রি ফায়ার বনাম ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স গেমের মধ্যে প্রধান পার্থক্য হল এর গ্রাফিক্স। এই দুটি গেমের(Garena Free Fire Game) মধ্যে আসল পার্থক্য রয়েছে গ্রাফিক্স কোয়ালিটিতে। ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স গেমে রয়েছে উন্নত মানের ভিস্যুয়াল ফিডেলিটি, বেটার কালার, ফলিয়েজ, লাইটিং এবং শ্যাডো। অন্যদিকে ফ্রি ফায়ার লাইট ভার্সনের গেম হওয়ার জন্য এতে অনেক আধুনিক ফিচার থাকলেও এর গ্রাফিক্স কোয়ালিটি কম উন্নত। কিন্তু লাইট ভার্সনের গেম হওয়ার জন্য এটি অত্যন্ত জনপ্রিয় এবং অনেকের ফোনেই রয়েছে এই গেম।

ফ্রি ফায়ার বনাম ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স গেমের(Garena Free Fire Game) মধ্যে স্টোরেজের ক্ষেত্রেও পার্থক্য রয়েছে। ফ্রি ফায়ার হল একটি লাইট ভার্সনের গেম। এটি ডিজাইন করা হয়েছে মোবাইল ডিভাইসের জন্য। এটি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করার জন্য শুধু ৫০০ থেকে ৭০০এমবি প্রয়োজন। এর ফলে বেশিরভাগ ফোনেই রয়েছে এই লোয়ার স্পেসিফিকেসনের লাইট ভার্সনের গেম। অন্যদিকে ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স লঞ্চ করা হয়েছে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে। এটির জন্য প্রয়োজন প্রায় ১.৫জিবি স্টোরেজ এবং প্রায় ৪জিবি র্যামম। ফ্রি ফায়ার বনাম ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স গেমের র্যাজমের মধ্যেও পার্থক্য রয়েছে। ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স গেমের বেটার গ্রাফিক্সের জন্য আধুনিক প্রসেসর এবং বেশি জিবির র্যাফম প্রয়োজন। গ্যারেনা ফ্রি ফায়ার গেমের জন্য ১জিবি র্যাবম প্রয়োজন হলেও ফ্রি ফায়ার ম্যাক্সের জন্য প্রায় ৪জিবি  প্রয়োজন।

 আরও পড়ুন: হুবহু সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের গলা ! একের পর গানে অবাক করেছেন অনিমেষ শিকদার ! চর্চায় বাপি-পিকলু!

ফ্রি ফায়ার বনাম ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স গেমের ফিচারের মধ্যে কয়েকটি পার্থক্য রয়েছে। ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স গেমের জন্য বেশি স্টোরেজের প্রয়োজন। এর ফলে এই গেমে রয়েছে বেশ কয়েকটি আধুনিক এবং উন্নত ফিচার। অন্যদিকে ফ্রি ফায়ার লাইট ভার্সনের গেম হওয়ার জন্য এতে কয়েকটি ফিচার কম রয়েছে।

Published by:Piya Banerjee
First published:

Tags: Free Fire Game, Garena Free Fire

পরবর্তী খবর