iOS ব্যবহারকারীদের জন্য সুখবর! নতুন ফটো এবং ভিডিও এডিটিং ফিচার আনল Google Photos

iOS ব্যবহারকারীদের জন্য নতুন ফটো এবং ভিডিও এডিটিং ফিচার আনল Google Photos!

ভিডিও এডিটিং-এর নতুন ফিচারে থাকবে ট্রিমিং, স্টেবিলাইজেশন, ক্রপিং, কনট্রাস্ট, হাইলাইট নিয়ন্ত্রণ করার সুবিধা সহ আরও অনেক কিছু

  • Share this:

Google Photos: Google Photos App iOS ইউজারদের জন্য নতুন ফটো এবং ভিডিও এডিটিং ফিচার নিয়ে আসতে চলেছে। সোমবার Google এই আপডেটটি ঘোষণা করে জানিয়েছে। এত দিন কেবলমাত্র প্রিমিয়াম অ্যান্ড্রয়েড ফোনের গ্রাহকদের কাছে এই সুবিধা ছিল। তাঁরা অ্যাডভান্সড ফটো এবং ভিডিও এডিটিং-এর সুবিধা নিজের মুঠোফোনে পেতেন। এবার থেকে Apple-এর iOS-এও এই ফিচার আসছে।

এই ফিচারে মেশিন লার্নিং টুল অন্তর্ভুক্ত করা রয়েছে যা এনহান্স ও কালার পপ এডিটের ক্ষেত্রে পরামর্শ দেবে। Google-এর দাবি এই ফিচারের সূত্র ধরে আরও উন্নত এডিটিং দক্ষতা সহকারে iOS অ্যাপে আসবে। এবার iOS গ্রাহকদের ফটো ছাড়াও একে বারে নতুন ধারার ভিডিও এডিটিং-এর অভিজ্ঞতা দেবে Google Photos App।

ভিডিও এডিটিং-এর নতুন ফিচারে থাকবে ট্রিমিং, স্টেবিলাইজেশন, ক্রপিং, কনট্রাস্ট, হাইলাইট নিয়ন্ত্রণ করার সুবিধা সহ আরও অনেক কিছু।

iOS ১৫-এ Apple Photos এর নতুন ফিচারটির ঘোষণা ঠিক যেই সময় হয়েছে, যখন তার সমসাময়িক মুহূর্তেই প্রায় iPhone-এ Google-এর এই নতুন ফিচারটি যুক্ত হয়েছে। Google Photos App আপডেটটি এখন iOS ডিভাইজে রোল আউট করা হচ্ছে। এর ফলে বোঝা যাবে iPhone-এর ব্যবহারকরীরা কতটা স্বতঃস্ফূর্ত। Android-এর ক্ষেত্রে কিছু ফটো এডিটিং ফিচার চালাতে Google One সাবস্ক্রিপশনের প্রয়োজন পড়ে। সম্ভবত iOS-এর ক্ষেত্রেও তেমনটাই হবে।

Google Photos গত বছরের অক্টোবরে Android-এ ফটো এডিটিং সফ্টওয়ার হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। এর পর ২০২১ সালের এপ্রিল মাসে Android ভিডিও এডিটর হিসেবে Android ফোনে এর ব্যবহার শুরু হয়। ক্রপিং, ভিডিও রোটেট করা, নানা ধরনের ফিল্টার, ব্রাইটনেস ও কনট্রাস্ট বদলানোর নানা ফিচার রয়েছে এই অ্যাপ্লিকেশনে। প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যে ১ জুন থেকে নতুন নিয়ম চালু হয়েছে। এখন আর বিনামূল্যে Google Photos-এ স্মার্টফোনের ছবির ব্যাক আপ রাখা যাবে না। বিনামূল্যে ১৫ জিবি ছবি আপলোড করা যাবে মাত্র, তার পরে পয়সা দিতে হবে।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: