Co-Win Hacked : কো উইন হ্যাক? বিপন্ন ১৫ কোটি ভারতীয়ের ডেটা? সত্যতা জানাল কেন্দ্র...

কো উইন হ্যাক? Photo : Reuters

করোনা টিকার (Corona Vaccine) রেজিস্ট্রেশনের পোর্টাল 'কোউইন' (Co-win) হ্যাক করা হয়েছে। এবার এই সংক্রান্ত প্রতিবেদনের বিষয়ে মুখ খুলল কেন্দ্রীয় সরকার (Centre)। 'এই খবর ভিত্তিহীন,' স্পষ্ট জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: টিকা নেওয়ার জন্য সরকারি সিস্টেম কো-উইনে (Co-Win App) নাম নথিভুক্ত করা বাধ্যতামূলক। সেই পোর্টালই নাকি রাতারাতি হ্যাকারদের কবলে! সম্প্রতি এই সংক্রান্ত বেশ কিছু রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। সেখানে বলা হয়েছিল যে করোনা টিকার (Corona Vaccine) রেজিস্ট্রেশনের পোর্টাল 'কোউইন' (Co-win) হ্যাক করা হয়েছে। এবার এই সংক্রান্ত প্রতিবেদনের বিষয়ে মুখ খুলল কেন্দ্রীয় সরকার (Centre)। 'এই খবর ভিত্তিহীন,' স্পষ্ট জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। হ্যাক হওয়ার যে মেসেজটি ফুটে উঠেছিল, তা নকল।

    ভ্যাকসিন নেওয়ার স্লট বুকিংয়ের জন্য আরোগ্য সেতু বা উমঙ্গ অ্যাপই ব্যবহার করা হয়। সেখানেও সরাসরি কো-উইন সিস্টেমেই নিজের নাম, আধার কার্ডের নম্বর সহ যাবতীয় তথ্য নথিভুক্ত করতে হয়। তবে সম্প্রতি শোনা যায়, হ্যাক হয়ে গিয়েছে এই কো-উইন সিস্টেমটি। হ্যাক হয়ে যাওয়ার একটি মেসেজও দেখা যায়।

    কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানায়, 'কিছু কিছু সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে যে 'কোউইন' প্ল্যাটফর্মটি হ্যাক হয়েছে। তবে, আমাদের প্রাথমিক তদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী, এই খবর সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। কেন্দ্র জানিয়েছে, টিকার জন্য জনগণের দেওয়া তথ্য পোর্টালে সম্পূর্ণ নিরাপদ। তবে স্বাস্থ্যমন্ত্রক এবং Empowered Group on Vaccine Administration (EGVAC)-এর কম্পিউটার ইমারজেন্সি রেসপন্স টিম বিষয়টির তদন্ত করছে।

    EGVAC-এর প্রধান ডঃ আর এস শর্মা বলেন, 'সোশ্যাল মিডিয়ায়' কোউইন 'সম্পর্কিত হ্যাকিংয়ের খবর দেখার পর আমরা তদন্ত শুরু করেছি। প্রাথমিক তদন্তের ভিত্তিতে আমরা এই নিশ্চয়তা দিচ্ছি যে 'কোউইন'-এর সমস্ত ডেটা নিরাপদ রয়েছে। পোর্টালের বাইরের কারও কাছে কোনও প্রকারের ডেটা লিক হয়নি।

    প্রসঙ্গত, 'ডার্ক লিক মার্কেট' নামে একটি হ্যাকার গ্রুপ কিছুদিন আগে একটি ট্যুইটের মাধ্যমে দাবি করে যে তাদের কাছে প্রায় ১৫ কোটি ভারতীয়ের একটি ডাটাবেস রয়েছে।কোউইন পোর্টালে রেজিস্ট্রেশন করেছেন এমন ব্যক্তিদের সমস্ত তথ্য তাদের হাতে, জানায় হ্যাকাররা। ৮০০ ডলারের বদলে সেই ডেটা তারা বিক্রি করছে বলে দাবিও করে ওই হ্যাকার গ্রূপ। তবে, ডেটা লিকের খবরের পাশাপাশি, এই খবরটি যে ভুয়ো, তাও রিপোর্ট করে বেশ কিছু সংবাদমাধ্যম। কিছু রিপোর্টে এও বলা হয় যে, ডেটা ফাঁসের দাবি করা এই হ্যাকার গ্রুপটিও ভুয়ো।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: