হোম /খবর /প্রযুক্তি /
সাইকেল চালাবেন কেন! ৩৬ হাজার টাকায় বাজারে এল স্কুটার, আর দেরি কেন!

Bounce Infinity E-Scooter: সাইকেল চালাবেন কেন! ৩৬ হাজার টাকায় বাজারে এল স্কুটার, পেট্রোল পাম্পেও যেতে হবে না

Bounce Infinity E-Scooter: সাইকেলে প্যাডেল করার দিন শেষ! এর থেকে সস্তায় স্কুটার হয়তো আর পাবেন না। আর দেরি কেন!

  • Last Updated :
  • Share this:
রোজ কর্মক্ষেত্রে যান পাবলিক ট্রান্সফোর্টে চেপে! নাকি কাজের জায়গায় এখনও যাচ্ছেন সাইকেল চেপে! পকেটে চাপের ভয়! আর চিন্তা নেই। এবার ৩৬ হাজার টাকায় ভারতের বাজারে এল ই-স্কুটার। ফলে পেট্রোল পাম্পে যাওয়ার ঝামেলা নেই। পকেটেও চাপ পড়বে না। তা হলে আর সাইকেলে প্যাডেল করবেন কেন! কম খরচে আমরামদায়ক সফর করুন। রোজ কর্মক্ষেত্রে যান পাবলিক ট্রান্সফোর্টে চেপে! নাকি কাজের জায়গায় এখনও যাচ্ছেন সাইকেল চেপে! পকেটে চাপের ভয়! আর চিন্তা নেই। এবার ৩৬ হাজার টাকায় ভারতের বাজারে এল ই-স্কুটার। ফলে পেট্রোল পাম্পে যাওয়ার ঝামেলা নেই। পকেটেও চাপ পড়বে না। তা হলে আর সাইকেলে প্যাডেল করবেন কেন! কম খরচে আমরামদায়ক সফর করুন।ইলেকট্রিক স্টার্ট-আপ বাউন্স ভারতের তাদের ই-স্কুটার ইনফিনিটি লঞ্চ করেছে। এই স্কুটারের এক্স-শোরুম প্রাইজ ৩৬ হাজার টাকা। তবে এখানে একটা ব্যাপার আছে। এই দামে আপনি শুধুই স্কুটার পাবেন। ব্যাটারি কিনতে হলে আরও কিছুটা দাম দিতে হবে ক্রেতাকে। ইলেকট্রিক স্টার্ট-আপ বাউন্স ভারতের তাদের ই-স্কুটার ইনফিনিটি লঞ্চ করেছে। এই স্কুটারের এক্স-শোরুম প্রাইজ ৩৬ হাজার টাকা। তবে এখানে একটা ব্যাপার আছে। এই দামে আপনি শুধুই স্কুটার পাবেন। ব্যাটারি কিনতে হলে আরও কিছুটা দাম দিতে হবে ক্রেতাকে।ব্যাটারি সমেত এই স্কুটার কিনতে হলে আপনাকে দিতে হবে ৬৮,৯৯৯ টাকা। তবে আপনি স্রেফ ৪৯৯ টাকা দিয়ে এই স্কুটার বুক করতে পারবেন। বাউন্স এই স্কুটারের টেস্ট ড্রাইভ শুরু করবে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি থেকে। তবে বুকিং শুরু হয়ে গিয়েছে। ব্যাটারি সমেত এই স্কুটার কিনতে হলে আপনাকে দিতে হবে ৬৮,৯৯৯ টাকা। তবে আপনি স্রেফ ৪৯৯ টাকা দিয়ে এই স্কুটার বুক করতে পারবেন। বাউন্স এই স্কুটারের টেস্ট ড্রাইভ শুরু করবে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি থেকে। তবে বুকিং শুরু হয়ে গিয়েছে।সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০২২ সালের মার্চ মাস নাগাদ ক্রেতারা এই স্কুটার ডেলিভারি পাবেন। আপাতত পাঁচটি রঙে পাওয়া যাবে এই ইলেকট্রিক স্কুটার। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০২২ সালের মার্চ মাস নাগাদ ক্রেতারা এই স্কুটার ডেলিভারি পাবেন। আপাতত পাঁচটি রঙে পাওয়া যাবে এই ইলেকট্রিক স্কুটার।এই স্কুটার গ্রাহকরা ব্যাটারি সমেত বা ব্যাটারি ছাড়া কেনার সুযোগ পাবেন। ২ কিলোওয়াট লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারিতে চলবে এই স্কুটার। কেউ চাইলে অন্য কোথাও থেকে ব্যাটারি কিনে নিতে পারেন। রাজস্থানে একটি প্লান্টে এই স্কুটারের উত্পাদন শুরু হয়ে গিয়েছে। এই স্কুটারে ড্র্যাগ মোড রয়েছে। অর্থাত্, পাংচার হলেও চালানো যাবে। এই স্কুটার গ্রাহকরা ব্যাটারি সমেত বা ব্যাটারি ছাড়া কেনার সুযোগ পাবেন। ২ কিলোওয়াট লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারিতে চলবে এই স্কুটার। কেউ চাইলে অন্য কোথাও থেকে ব্যাটারি কিনে নিতে পারেন। রাজস্থানে একটি প্লান্টে এই স্কুটারের উত্পাদন শুরু হয়ে গিয়েছে। এই স্কুটারে ড্র্যাগ মোড রয়েছে। অর্থাত্, পাংচার হলেও চালানো যাবে।
এই স্কুটারের নতুন EV স্মার্ট অ্যাপের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া যাবে। একবার চার্জ দিলে ৮৫ কিমি চলবে। ঘণ্টায় সর্বোচ্চ গতিবেগ হবে ৬৫ কিমি। এই স্কুটারের নতুন EV স্মার্ট অ্যাপের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া যাবে। একবার চার্জ দিলে ৮৫ কিমি চলবে। ঘণ্টায় সর্বোচ্চ গতিবেগ হবে ৬৫ কিমি।
Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: E-Scooter, Electric scooter, Electric Vehicle