• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • SACHIN TENDULKAR PAYS HIS HOMAGE TO RAMAKANT ACHREKAR ON GURU PURNIMA ARC

Sachin Tendulkar : গোলাপে সাজালেন ছবি, চোখ বন্ধ করে গুরুপূর্ণিমায় আচরেকরকে শ্রদ্ধা সচিনের

প্রয়াত কোচের বাড়িতে গিয়ে শ্রদ্ধা জানালেন তাঁর ছবিতে, ছবি-ফেসবুক

দেশে থাকলে এই তিথিতে তেন্ডুলকর (Sachin Tendulkar) যাবেনই রমাকান্ত আচরেকরের (Ramakant Achrekar) বাড়িতে ৷ এ বারও তার অন্যথা হল না ৷ শুক্রবার প্রয়াত কোচের বাড়িতে গিয়ে শ্রদ্ধা জানালেন তাঁর ছবিতে ৷

  • Share this:

    মুম্বই : শ্রাবণ মাসের গুরুপূর্ণিমা ৷ দেশে থাকলে এই তিথিতে তেন্ডুলকর (Sachin Tendulkar) যাবেনই রমাকান্ত আচরেকরের (Ramakant Achrekar) বাড়িতে ৷ এ বারও তার অন্যথা হল না ৷ শুক্রবার প্রয়াত কোচের বাড়িতে গিয়ে শ্রদ্ধা জানালেন তাঁর ছবিতে ৷

    অবসরের পর মাস্টারব্লাস্টার এখন অনেক বেশি সক্রিয় সামাজিক মাধ্যমে ৷ ফেসবুক ও ট্যুইটারে তিনি পোস্ট করেছেন আচরেকরের বাড়িতে গিয়ে তাঁকে শ্রদ্ধা জানানোর ভিডিয়ো ৷ ভিডিয়োতে দেখা যায়, চেকশার্ট ও জিন্স পরা তেন্ডুলকার তাঁর গুরুর ছবির সামনে প্রথমে মাস্ক খুলে পকেটে রাখলেন ৷ তার পর একটা একটা করে গোলাপ রাখলেন সেই ছবির সামনে ৷ এর পর জোড়হাতে চোখবন্ধ করে শ্রদ্ধা নিবেদন ৷

    দ্রোণাচার্য আচরেকর প্রয়াত হয়েছেন ২০১৯ সালে ৷ তার পরেও নিজের পুরনো অভ্যাস থেকে একবিন্দু সরেননি তেন্ডুলকার ৷ ভিডিয়োর ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘‘আচরেকর স্যরের বাড়িতে গিয়ে গুরুপূর্ণিমায় তাঁকে শ্রদ্ধা জানালাম ৷ মনের মধ্যে ভিড় করে এল পুরনো সব স্মৃতি ৷ আমার জীবনে তাঁর অবদানের জন্য কোনও ধন্যবাদই যথেষ্ট নয় ৷’’

    ছোট ভাইয়ের মধ্যে ক্রিকেটীয় প্রতিভা আছে বুঝতে পেরে তাঁকে আচরেকরের কাছে সঁপে দিয়েছিলেন অজিত তেন্ডুলকর ৷ সেখানেই ক্রিকেটে হাতেখড়ি সচিনের ৷ তার পর কিংবদন্তি হওয়ার পথে বাকিটা ইতিহাস ৷ ক্রিকেটের প্রথম কোচ তথা গুরুর প্রভাব তাঁর জীবনে সুগভীর ৷ পেসার হতে চাওয়া সচিনকে আচরেকরই বুঝিয়েছিলেন তাঁর প্রতিভার সঠিক জায়গা ব্যাটসম্যানের ভূমিকাতেই ৷ বহু বার সচিন বলেছেন, প্রথম থেকে আচরেকরের প্রশিক্ষণ তাঁকে সঠিক দিশা দেখিয়েছে কেরিয়ারে ৷

    আচরেকরের জহুরির চোখ রত্ন চিনতে ভুল করেনি ৷ সচিন একাধিক বার বলেছেন, ‘‘স্যর ছিলেন অত্যন্ত কঠোর এবং নিয়মানুবর্তিতায় বিশ্বাসী ৷ আবার একইসঙ্গে খুবই স্নেহপ্রবণ ৷ তিনি কোনওদিনও আমার খেলা দেখে ভাল বলতেন না ৷’’ তবে শিষ্যও পরে বুঝতে শিখেছিলেন কখন তাঁর গুরু খুশি হয়েছেন ৷ যখন তিনি ছাত্রকে পানিপুরি ও ভেলপুরি খাওয়াতে নিয়ে যেতেন, তখন ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: