Tokyo 2020: Olympics-র হাতে গোনা দিন, ভারতের যোগদান নিয়ে এল স্বস্তির খবর

FILE - In this April 14, 2021, file photo, Tokyo 2020 Olympic Games mascot Miraitowa poses with a display of Olympic Symbol after an unveiling ceremony of the symbol on Mt. Takao in Hachioji, west of Tokyo to mark 100 days before the start of the Olympic Games. (AP Photo)

একদিন আগেই শুরু হয়েছিল Tokyo 2020-র Olympics বিস্তর জল্পনা৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:  ভারত, মালয়শিয়া সহ আটটি দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশের জন্য বড় স্বস্তির খবর এল৷ টোকিও ২০২০ (Tokyo 2020) আয়োজক কমিটির প্রধান আধিকারিক তোশহিরো মুতো অস্বীকার করলেন ১০ টি এশিয়ান দেশ অলিম্পিক্সে যোগদান করতে পারবে না এই খবরের সত্যতা নেই৷ এই দেশগুলিতে করোনা সংক্রমণের (Covid-19) কেসের সংখ্যায় প্রচণ্ড বৃদ্ধির নিরিখেই নাকি দশটি দেশের টোকিওতে অলিম্পিক্সে যোগদানের ওপর কালো ছায়া ছিল৷

    তোশহিরো মুতো জানিয়েছেন এমনকি এই ধরণের কোনও বিষয় আলোচনাও করা হয়নি৷ মুতোর দাবি অনুযায়ি যেসব দেশে করোনা সংক্রমণ অত্যধিক মাত্রায় সেখান থেকে ক্রীড়াবিদ , কোচ ও আধিকারিকদের যে দল আসবে তারা যেন সকলেই করোনা টিকা নিয়ে তবেই জাপানে আসেন৷ জাপানে অলিম্পিক্স শুরু হচ্ছে ২৩ জুলাই থেকে৷

    টোকিও গেমসের সর্বোচ্চ আধিকারিক জানিয়েছেন , ‘‘আমরা এটা কখনই শুনিনি, এটা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীণ৷ এটাকে একটা প্রস্তাব হিসেবেও কখনও গ্রাহ্য করা হয়নি৷’’

    ‘‘ভারতের নতুন প্রজাতি নিয়ে ভয় রয়েছে৷ তাই তাঁরা জাপানে আসার আগে পুরোপুরি ভ্যাকসিন নেওয়া থাকতে হবে৷ আমরা যে পলিসি নিয়েছি তাতে ১০০ শতাংশ ভ্যাকসিনেশন প্রস্তাবিত এবং প্রয়োজন৷ ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, বাংলাদেশ এবং এদের সঙ্গে সম্পর্কিত দেশগুলির ক্ষেত্রে৷ ’’

    তিনি আরও যোগ করেন, ‘‘তাই তাদের IOC-র সঙ্গে কথা বলা দরকার জাপানে ঢোকার আগে ১০০ শতাংশ টীকাকরণের বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য৷ ’’

    তিনি এও উড়িয়ে দিয়েছেন এরকম কোনও আলোচনা করা হয়নি যে জাপানের অলিম্পিক্স ফের একবার পিছিয়ে যাবে বা বাতিল করা হবে৷ কারণ করোনা ভাইরাস অতিমারির জন্য ইতিমধ্যেই একবছর পিছিয়ে গেছে Olympic ও Paralympic Games৷
    মঙ্গলবার মালয়শিয়ায় প্রকাশিত খবরে জানা গিয়েছিল জাপান সরকার অলিম্পিক অর্গানাইজিং কমিটিকে বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছিল যে যে ১০ টি দেশে করোনা সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত তাদের দেশ থেকে অ্যাথলিট আসা বন্ধ করতে হবে৷  এরপরেই দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার এই দেশগুলির মধ্যে প্রচণ্ড চিন্তা শুরু হয়ে যায়৷ চার বছর বাদে বিশ্বের সেরা ইভেন্টের জন্য প্রস্তুতি সারেন সমস্ত দেশের অ্যাথলিটরা৷

    মালয়শিয়া ও ভারত ছাড়া এই রিপোর্ট অনুযায়ি দেশগুলি ছিল পাকিস্তান, নেপাল, বাংলাদেশ, মলদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান , ভিয়েতনাম ও ইউনাইটেড কিংডম বা ব্রিটেন৷

    Published by:Debalina Datta
    First published: