• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • OTHER SPORTS TENNIS STAR SANIA MIRZA TEACHES HER SON ABOUT TRAFFIC LIGHTS SHARES ADORABLE VIDEO ON INSTAGRAM TC SR

ছোট্ট ইজহানকে ট্রাফিক লাইট শেখাচ্ছেন সানিয়া, ভিডিও মন জয় করে নেবে!

ইজহানের এই সুন্দর ভিডিও শেয়ারের সঙ্গে সঙ্গেই তা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ইজহানের এই সুন্দর ভিডিও শেয়ারের সঙ্গে সঙ্গেই তা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

  • Share this:

#হায়দরাবাদ: বয়স মাত্র ২। এখনই ট্রাফিক লাইট নিয়ে পড়াশোনা করছে খুদে। শিখছে লাল, সবুজ, কমলা লাইটের গুরুত্ব। মা'র প্রশ্নের উত্তরে সুন্দর করে জবাবও দিচ্ছে সে। বাচ্চাটি ইজহান মির্জা মালিক (Izhaan Mirza malik)। মা, টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা (Sania Mirza)-র কাছেই ট্রাফিক নিয়মের পাঠ নিচ্ছে সে।

সম্প্রতি ছেলেকে ট্রাফিক লাইট (Traffic Lights) নিয়ে পাঠ দেওয়ার একটি ছোট্ট ভিডিও ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে শেয়ার করেন সানিয়া। ক্যাপশনে লেখেন, ইটস গুড টু টিচ দেম ইয়াং, ভেরি ইয়াং, লার্নিং অল অ্যাবাউট সিগন্যাল বক্সেস। অর্থাৎ বাচ্চা বয়সেই ট্রাফিক লাইট সম্বন্ধে শেখানো ভাল।

ভিডিও ক্লিপটিতে একদম ঘরোয়া পোশাকে পাজামায় দেখা যাচ্ছে মা-ছেলেকে। একটি বোর্ড হাতে মা ইজহানকে প্রশ্ন করছেন, গ্রিন মানে কী? ইজহান (Izhaan) ভাঙা ভাঙা শব্দে উত্তর দিচ্ছে গ্রিন মানে গো। সানিয়া আবার জিজ্ঞাসা করছেন, অরেঞ্জ মানে কী? ইজহান উত্তর দিচ্ছে, প্লিজ ওয়েট। এ ভাবেই মায়ের প্রশ্নের সব উত্তরের সঠিক জবাব দিচ্ছে খুদে ইজহান।

View this post on Instagram

A post shared by Sania Mirza (@mirzasaniar)

আর ইজহানের এই সুন্দর ভিডিও শেয়ারের সঙ্গে সঙ্গেই তা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সকলেই ইজহানকে কিউট বলতে থাকে। কেউ কেউ তার কথায় মুগ্ধ হয়ে যায়। লাভ রিয়্যাক্টে ভরে যায় কমেন্ট বক্স। শেষ দেখা পর্যন্ত ভিডিওটি তিন লক্ষেরও বেশি লাইক পেয়েছে। অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়াও (Parineeti Chopra) ইজহানকে উদ্দেশ্য করে কমেন্ট করে ফেলেন। লেখেন যে, ইজহান তাঁর হৃদয়ও জয় করে নিয়েছে!

২০১০ সালে পাকিস্তানি ক্রিকেট তারকা শোয়েব মালিক (Shoaib Malik)-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন সানিয়া। ২০১৮ সালের অক্টোবরে তাঁদের জীবনে আসে ইজহান। টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামস (Serena Williams)-এর অনুপ্রেরণায় সানিয়াও অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন তাঁর বিভিন্ন অভিজ্ঞতা নিয়ে কথা বলেন। জানান, তিনি খেলায় ফিরতে পারবেন সেই সময়ে ভাবেননি। প্রেগনেন্সি (Pregnancy) সম্পূর্ণ নতুন একটা বিষয়। যার প্রত্যেকটি ধাপ নতুন অভিজ্ঞতা দেয়। মানুষকে পরিবর্তন করে এই সময়।

প্রেগনেন্সির জার্নি নিয়ে লিখতে গিয়ে সানিয়া লেখেন- ২৩ কেজি ওজন বেড়ে গিয়েছিল প্রেগনেন্সির সময়ে। ভাবিনি আমি আর ফিট হয়ে টেনিস কোর্টে ফিরতে পারব। পরে তিনি ২৬ কেজি ওজন কমান। ফেরেন খেলায়!

Published by:Simli Raha
First published: