Rodger Federer : হাঁটুর চোট, ফরাসি ওপেন থেকে নাম তোলার পথে ফেডেরার

মাঝপথেই ফরাসি ওপেন থেকে নাম তুলতে পারেন ফেডেরার

জিতলেন, কিন্তু ফরাসি ওপেনে মন জয় করতে পারলেন না রজার ফেডেরার। নিজেও সেটা বুঝতে পেরে জানিয়ে দিলেন, প্রতিযোগিতায় আর নামবেন কি না সে ব্যাপারে ভাবনাচিন্তা শুরু করেছেন

  • Share this:

    #প্যারিস: সর্বকালের অন্যতম সেরা টেনিস তারকা তিনি। কেউ কেউ ম্যাজিশিয়ান বলে ডাকেন। কেউ আবার তুলনা করেন পুরনো মদের সঙ্গে। যত দিন যায়, রজার ফেডেরার ততই যেনো নতুনরূপে ধরা দেন। টেনিস রোমান্সের গল্পে কয়েকটা এপিসোড শুধু তাঁকে নিয়েই লিখতে হবে। এই বয়সেও এরকম ফর্ম ! তাও টেনিসের মত পরিশ্রমের খেলায়। রজার ফেডেরার সত্যিই অনবদ্য। তিনি নিজেই যেন নিজের তুলনা।

    বরাবর উইম্বলডন তাঁর ফেভারিট টুর্নামেন্ট। তবে ঘাস ছাড়া অন্যান্য কোর্টেও সমান দক্ষ তিনি। কিন্তু চলতি ফরাসি ওপেনে একটা সমস্যা দেখা দিয়েছে সুইস তারকাকে নিয়ে। জিতলেন, কিন্তু ফরাসি ওপেনে মন জয় করতে পারলেন না রজার ফেডেরার। নিজেও সেটা বুঝতে পেরে জানিয়ে দিলেন, প্রতিযোগিতায় আর নামবেন কি না সে ব্যাপারে ভাবনাচিন্তা শুরু করেছেন।

    শনিবার রাতে জার্মানির ডমিনিক কোয়েপফারকে ৭-৬ (৭-৫), ৬-৭ (৩-৭), ৭-৬ (৭-৪), ৭-৫ গেমে হারিয়ে চতুর্থ রাউন্ডে উঠে গিয়েছেন ফেডেরার। ম্যাচের ফল দেখেই অনুমান করা যায় লড়াই কতটা হাড্ডাহাড্ডি হয়েছে। এর ফলে গ্র্যান্ড স্ল্যামে ৪২৪ ম্যাচের ইতিহাসে এই প্রথম ফেডেরারের কোনও ম্যাচে প্রথম তিনটি সেট টাইব্রেকারে গেল। ম্যাচের পর ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক বললেন, “জানি না আর খেলতে পারব কিনা। খেলা চালিয়ে যাওয়া নিয়ে আমাকে একটা সিদ্ধান্ত নিতেই হবে। হাঁটুর উপর চাপ দেওয়া কী খুব ঝুঁকিপূর্ণ? এখন কী বিশ্রাম নিলেই ভাল হয়?”

    গত বছর দু’বার হাঁটুতে অস্ত্রোপচার হয়েছে ফেডেরারের। এ মরশুমে নামার আগে বারবার জানিয়েছেন, ঘাসের কোর্টে জেতাই তাঁর প্রধান লক্ষ্য। নবম উইম্বলডন জেতার লক্ষ্যে নামবেন তিনি। তার আগে প্রস্তুতি প্রতিযোগিতা খেলবেন হ্যালে। সব মিলিয়ে লন্ডনে টেনিসের সবচেয়ে সম্মানজনক প্রতিযোগিতায় নামার আগে নিজেকে শারীরিক এবং মানসিক দিক থেকে সঠিক জায়গায় নিয়ে যেতে মরিয়া তিনি।

    নোভাক জোকোভিচ বা রাফায়েল নাদাল টেনিস ইতিহাসে যথেষ্ট বড় জায়গা দখল করে থাকবেন। কিন্তু রজার ফেডেরার যে সকলের থেকে আলাদা তাতে বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই। হয়তো এটাই হতে চলেছে ফেডেরারের সোনালী কেরিয়ারের শেষ উইম্বলডন। মুখে কিছু না বললেও, তাঁর পরিবার এবং বন্ধুবান্ধব মোটামুটি এ ব্যাপারে নিশ্চিত। তাই শেষ লড়াইয়ে নিজের সেরাটা উজাড় করে দিতে চাইবেন ফেডেক্স।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: