• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • খেলা
  • »
  • OTHER SPORTS NOVAK DJOKOVIC GETS PAST MATTEO BERRETTINI AFTER SETTING UP FRENCH OPEN SEMI FINAL AGAINST RAFAEL NADAL RRC

French Open : সেমিফাইনালে লাল মাটির সম্রাট নাদালের মুখোমুখি জোকার

লাল মাটির সাম্রাজ্যের সম্রাট নাদালের মুখোমুখি জোকোভিচ

বছর পাঁচেক আগে এই প্যারিসেই নাদালকে ফাইনালে হারিয়েছিলেন জোকোভিচ। স্প্যানিশ তারকা এবার মরিয়া থাকবেন সেই হারের বদলা নিতে

  • Share this:

    #প্যারিস: যেমনটা ভাবা গিয়েছিল, ঠিক তেমনটাই ঘটল। এই প্রজন্মের দুই সেরা আবার মুখোমুখি হতে চলেছেন। চলতি ফরাসি ওপেনের সেমিফাইনালে রাফায়েল নাদাল বনাম নোভাক জোকোভিচ। জোকোভিচ ৬-৩, ৬-২, ৬-৭ (৫-৭), ৭-৫ গেমে হারিয়েছেন ইতালির মাতেয়ো বেরেত্তিনিকে। শুক্রবার ফিলিপে শাঁতিয়ের কোর্টে মুখোমুখি হবেন নাদাল-জোকোভিচ। বেরেত্তিনিকে প্রথম দুই সেটে জোকোভিচের সামনে রীতিমতো অসহায় দেখাচ্ছিল।

    প্রথম সেটে একবার এবং দ্বিতীয় সেটে দু’বার জোকোভিচ ব্রেক করেন বেরেত্তিনিকে। কিন্তু তৃতীয় সেটে ঘুরে দাঁড়ান বেরেত্তিনি। এবার তাঁকে ব্রেক করতে পারেননি জোকোভিচ। উল্টে একের পর এক ‘এস’ সার্ভিস করে তাঁকে বিপদের মুখে ফেলে দেন বেরেত্তিনি। জোকোভিচ মনে হচ্ছিল আচমকাই ছন্দ হারিয়েছেন। সেট গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানেও দু’বার অবিশ্বাস্যভাবে আনফোর্সড এরর করে হেরে যান জোকোভিচ।

    চতুর্থ সেটেও দেখা যায় একই দৃশ্য। দুই খেলোয়াড়ই নিজের সার্ভ ধরে রেখেছিলেন। যত খেলা গড়াচ্ছিল, বেরেত্তিনির সার্ভ এবং ফোরহ্যান্ড ততই ক্ষুরধার হচ্ছিল। কিছুতেই তাঁকে ব্রেক করতে পারছিলেন না জোকোভিচ। শেষমেশ ব্রেক করলেন চতুর্থ সেটেই। দুটি ম্যাচ পয়েন্ট হারানোর পর। বুধবার রাতের ফরাসি ওপেনে দেখা গেল অদ্ভুত এক দৃশ্য। রাত ১১টা থেকে প্যারিসে শুরু কার্ফু। ঠিক তার আগে দর্শকদের স্টেডিয়াম থেকে বের করে দেওয়া হল।

    ওই সময় দুই খেলোয়াড়ই ফিরে গিয়েছিলেন লকার রুমে। প্রায় ২৫ মিনিট খেলা বন্ধ থাকে। এদিকে আর্জেন্টাইন দিয়েগো শোয়ার্টম্যানকে হারিয়ে ফরাসি ওপেনের সেমিফাইনালে উঠেছেন ক্লে কোর্টের রাজা রাফায়েল নাদাল। বছর পাঁচেক আগে এই প্যারিসেই নাদালকে ফাইনালে হারিয়েছিলেন জোকোভিচ। স্প্যানিশ তারকা এবার মরিয়া থাকবেন সেই হারের বদলা নিতে। তাই একটা দুর্দান্ত ম্যাচ দেখার অপেক্ষায় থাকবেন টেনিস প্রেমীরা। নাদাল আগেই জানিয়ে দিয়েছেন তিনি জকোভিচকে নিয়ে নিজের গেমপ্ল্যান সাজাতে শুরু করেছেন ইতিমধ্যেই।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: