• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • OTHER SPORTS BANGLADESHI NOBEL LAUREATE MUHAMMAD YUNUS TO BE AWARDED WITH OLYMPIC LAUREL IN TOKYO RRC

টোকিওতে 'অলিম্পিক লরেল' পুরস্কারে ভূষিত হবেন নোবেলজয়ী মহম্মদ ইউনুস

ক্রীড়া জগতে বিশেষ অবদানের পুরস্কার পাবেন মহম্মদ ইউনুস

প্রফেসর ইউনূসের বিভিন্ন উদ্যোগের মধ্যে রয়েছে ‘ইউনূস স্পোর্টস হাব’। এর মাধ্যমে একটি সামাজিক নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছেন তিনি। এই প্রতিষ্ঠানে খেলাধুলার মাধ্যমে উন্নতির পথকে আরও সহজের চেষ্টা করে

  • Share this:

    #টোকিও: বিরল সম্মান পেতে চলেছেন ডক্টর মহম্মদ ইউনুস। বাংলাদেশের কাছে গর্বের দিন। ১৯৮০ সালে ক্ষুদ্রঋণ বিতরণের জন্য গ্রামীণ ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করেন ড. ইউনূস। এরপর ২০০৬ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পান তিনি। প্রফেসর ইউনূসের বিভিন্ন উদ্যোগের মধ্যে রয়েছে ‘ইউনূস স্পোর্টস হাব’। এর মাধ্যমে একটি সামাজিক নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছেন তিনি। এই প্রতিষ্ঠানে খেলাধুলার মাধ্যমে উন্নতির পথকে আরও সহজের চেষ্টা করে।

    এর আগে ২০১৬ সালে ব্রাজিলে রিও অলিম্পিকে মশাল বহন করেন ড. ইউনূস। তিনিই প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে এমন বিরল সম্মান অর্জন করেন। মহম্মদ ইউনূসকে আসন্ন টোকিও অলিম্পিক গেমসে ‘অলিম্পিক লরেল’ সম্মান দেওয়া হবে। বিশ্বের মাত্র দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসেবে এই সম্মান পেতে যাচ্ছেন তিনি। ক্রীড়াক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য অলিম্পিকে ৮১ বছর বয়সী অর্থনীতিবিদকে এই বিশেষ পুরস্কার প্রদান করা হবে।

    ‘অলিম্পিক লরেল’ পদক মূলত তাদেরকেই প্রদান করা হয় যারা শিক্ষা, সংস্কৃতি, উন্নয়ন এবং শান্তি প্রতিষ্ঠায় বিশেষ অবদান রাখেন। সেই লক্ষ্যে ২০১৬ সালে প্রথমবারের মতো ‘অলিম্পিক লরেল’ পদক দেওয়ার প্রচলন শুরু হয়। সেবার রিও অলিম্পিকে এই সম্মানজনক পদক দেওয়া হয় কেনিয়ার প্রাক্তন অলিম্পিয়ান কিপ কেইনোকে। তিনি ১৯৬৮ এবং ১৯৭২ সালে ১৫০০ মিটারে স্বর্ণপদক জেতেন। এছাড়া তিনি ছিলেন কেনিয়ার অলিম্পিক কমিটির প্রেসিডেন্ট এবং আইওসির সান্মানিক সদস্য। তিনি নিজের দেশে শিশুদের জন্য স্কুলের পাশাপাশি একটি অ্যাথলেট প্রশিক্ষণ কেন্দ্রও গড়ে তুলেছেন।

    কিপ কেইনোর পর ড. ইউনূস হতে যাচ্ছেন ‘অলিম্পিক লরেল’ সম্মান পাওয়া দ্বিতীয় ব্যক্তি। আইওসির বিবৃতি অনুযায়ী, আগামী ২৩ জুলাই ২০২১ অলিম্পিক এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রফেসর মহম্মদ ইউনূস “অলিম্পিক লরেল” পুরস্কার গ্রহণ করবেন। অনুষ্ঠানটি সরাসরি দেখা যাবে। এ ব্যাপারে অলিম্পিক প্রেসিডেন্ট থমাস বাখ বলেন, “প্রফেসর ইউনূস আমাদের সকলের জন্য অনুপ্রেরণা।” তিনি আরও বলেন, প্রফেসর ইউনূস তাঁর সামাজিক ব্যবসায়ের ধারণাকে ক্রীড়া জগতে উন্নয়নের কাজে লাগানো এবং নতুন দিশা দেখানোর জন্য এই সম্মান পাবেন।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: