দেশের ক্রীড়ামন্ত্রী ফিট না হলে চলে! Kiren Rijiju-র পরিশ্রম দেখে স্যালুট হিমা দাসের

দেশের ক্রীড়ামন্ত্রী ফিট না হলে চলে! Kiren Rijiju-র পরিশ্রম দেখে স্যালুট হিমা দাসের

খেলাধুলার সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ সরাসরি। এমন মানুষ ফিট না হলে চলে!

খেলাধুলার সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ সরাসরি। এমন মানুষ ফিট না হলে চলে!

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: তিনি দেশের ক্রীড়ামন্ত্রী বলে কথা। তাঁর সঙ্গে প্রায় প্রতিদিনই দেশের স্বনামধন্য ক্রীড়াবিদদের কথা হয়, দেখা হয়। খেলাধুলার সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ সরাসরি। এমন মানুষ ফিট না হলে চলে! ভারতের ক্রীড়া মন্ত্রী কিরেন রিজিজুর ফিটনেস সম্পর্কে অনেকেই জানেন। আর পাঁচজন রাজনীতিবিদের মতো তাঁর সকাল শুরু হয় না। তিনি ভোরে ঘুম থেকে ওঠেন। তারপর ওয়ার্কআউট, মাঠে ফুটবল, ভলিবল, বাস্কেটবল খেলেন। দফতরের কাজ সামলাতে শুরু করেন এসব কিছুর পর। নিজেকে ফিট রাখতে সব কিছুই করেন কিরেন রিজিজু। আর তাঁর নিজেকে ফিট রাখার এমন চেষ্টা দেখে অনুপ্রাণিত হন দেশের ক্রীড়াবিদরাও।

    সম্প্রতি ভারতের তারকা অ্যাথলিট হিমা দাস একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, দেশের ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু কীভাবে এই বয়সেও নিজেকে ফিট রাখার চেষ্টা করছেন। হিমা দাস নিজেও সেই ভিডিও দেখে উদ্বুদ্ধ হয়েছেন। এমনকী সে কথা প্রকাশ্যে স্বীকার করেছেন অসমের অ্যাথলিট তিনি। ক্রীড়ামন্ত্রীর উদ্দেশ্যে হিমা লিখেছেন, ''আপনি আমাদের সব সময়ই অনুপ্রাণিত করেন।'' হিমার সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হওয়ার পর থেকে অনেকেই কিরেন রিজিজুকে স্যালুট জানাচ্ছেন।

    <blockquote class="twitter-tweet"><p lang="en" dir="ltr">.<a href="https://twitter.com/KirenRijiju?ref_src=twsrc%5Etfw">@KirenRijiju</a> sir you always motivate us. <a href="https://t.co/fE7TzoEBSx">pic.twitter.com/fE7TzoEBSx</a></p>&mdash; Hima (mon jai) (@HimaDas8) <a href="https://twitter.com/HimaDas8/status/1376576502670749699?ref_src=twsrc%5Etfw">March 29, 2021</a></blockquote> <script async src="https://platform.twitter.com/widgets.js" charset="utf-8"></script>

    নিজেকে ফিট রাখতে ক্রীড়ামন্ত্রী যে ব্যায়াম করছেন সেটিকে অনুকরণ করবেন বলে জানিয়েছেন কেউ। অনেকেই আবার বলেছেন, আপনাকে দেখে অনেক ক্রীড়াবিদ উদ্বুদ্ধ হবেন। একজন তো আবার ক্রীড়া মন্ত্রীকে রাজনীতির পাশাপাশি বলিউডের সিনেমাতেও অভিনয় করার পরামর্শ দিয়ে ফেলেছেন। ৪৯ বছর বয়সী কিরেন রিজিজু এমন প্রতিক্রিয়া দেখে অবাক এবং আপ্লুত। তিনি লিখেছেন, ''দেশের যুবসমাজকে অনুপ্রাণিত করতে পেরে আমি দারুণ খুশি। আমাদের প্রত্যেকেরই শরীরচর্চার জন্য কিছুটা সময় বের করা উচিত। শরীর ভালো থাকলে তবেই দেশের সেবা করা যায়। আর হ্যাঁ নেশাদ্রব্য থেকে দূরে থাকতে হবে।''

    Published by:Suman Majumder
    First published: