Junior Shami: একইরকম পেস, খুনে সুইং! মহম্মদ শামির ভাইকে দেখে অনেকেই অবাক

শামির মতোই তিনিও বাংলার হয়েই খেলেন।

শামির মতোই তিনিও বাংলার হয়েই খেলেন।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: শামির সঙ্গে অনেক মিল। একইরমক পেস, সুইংয়ের দাপাদাপি রয়েছে তাঁর বোলিংয়ে। জুনিয়র শামি অনেকদিন ধরেই ঘরোয়া ক্রিকেটে আগুন ঝড়াচ্ছেন। এর আগেও বেশ কয়েকবার ভাল পারফরম্য়ান্সের জন্য খবরের শিরোনামে উঠে এসেছিলেন মহম্মদ কাঈফ। আর বারবারই তাঁর সঙ্গে ভারতীয় দলের অন্যতম পেসার মহম্মদ শামির তুলনা হয়েছে। কারণ তিনি সম্পর্কে শামির ভাই। আর তিনিও পেসার। ফলে দুজনের তুলনা হওয়াটা যেন স্বাভাবিক নিয়ম হয়ে দাঁড়িয়েছে। শামির সুইংয়ের সামনে অনেক সময়ই হাঁটু গেড়ে বসে পড়েন তাবড় ব্য়াটসম্য়ানরা। শামির ভাইয়ের বোলিংয়েও কিন্তু সুইং আছে। সেইসঙ্গে পেসও খারাপ নয়। তিনি ব্যাটসম্যানদের ত্রাস হয়ে উঠেছেন। আর সব থেকে বড় কথা, শামির মতোই তিনিও বাংলার হয়েই খেলেন। ঘরোয়া ক্রিকেটের গণ্ডি পেরিয়ে এবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আত্মপ্রকাশের জন্য মুখিয়ে রয়েছেন মহম্মদ কাঈফ।

    মহম্মদ কাঈফ অবশ্য অলরাউন্ডার হিসাবে ঘরোয়া ক্রিকেটে পরিচিত। বাংলার অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে খেলেন শামির ভাই। জুনিয়র স্তরের ম্য়াচে একের পর এক অসাধারণ পারফরম্য়ান্স করছেন কাঈফ। এদিন একটি ম্য়াচের ক্লিপিংস সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন শামির ভাই। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, শামির ভাইয়ের সুইং আর পেসের সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছেন ব্যাটসম্যান। বরোদার বিরুদ্ধে বাংলার অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে খেলছিলেন কাঈফ। সেই ম্যাচের একটি অসাধারণ ডেলিভারি করেন তিনি। তাঁর সুইং বুঝতে পারেনি ব্যাটসম্য়ান। ফলে উইকেট দিয়ে বসেন। এই ম্যাচে তাঁর একের পর এক ডেলিভারি বারবার ব্যাটসম্য়ানদের বিরক্ত করেছে। সেই ভিডিও দেখে অনেকেই তাঁকে জুনিয়র শামি নামে ডেকেছেন। ভারতীয় ক্রিকেট সার্কিটের অনেকে তাঁর বোলিংয়ের সঙ্গে শামির মিল পেয়েছেন।

    কিছুদিন আগেই বিজয় হাজারে ট্রফিতে বাংলার হয়ে অভিষেক হয়েছিল মহম্মদ কাঈফের। তার পর থেকে একের পর এক ম্যাচে দারুন পারফর্ম করছেন তিনি। ভাই বাংলার হয়ে অভিষেক করায় শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন শামি। তিনি জানিয়েছিলেন, তাঁর মতো কাঈফও একদিন ভারতীয় দলের হয়ে খেলবেন।

    Published by:Suman Majumder
    First published: