হোম /খবর /খেলা /
দৃষ্টিহীনতা বাধা নয়, ২৫ কিমি দৌড়ে সাধারণ প্রতিযোগীদের সঙ্গে পাল্লা দেবেন আসিফ

দৃষ্টিহীনতা বাধা নয়, ২৫ কিলোমিটার দৌড়ে সাধারণ প্রতিযোগীদের সঙ্গে পাল্লা দেবেন কলকাতার আসিফ

দৃষ্টিহীনতা বাধা নয়, ২৫ কিলোমিটার দৌড়ে সাধারণ প্রতিযোগীদের সঙ্গে পাল্লা দেবেন কলকাতার আসিফ

দৃষ্টিহীনতা বাধা নয়, ২৫ কিলোমিটার দৌড়ে সাধারণ প্রতিযোগীদের সঙ্গে পাল্লা দেবেন কলকাতার আসিফ

আগামী ১৮ ডিসেম্বর কলকাতায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে টাটা স্টিল আয়োজিত এক দৌড় প্রতিযোগিতা। সব কিছু ঠিক থাকলে কোনও রকম শারীরিক সহায়তা ছাড়াই পূর্ণ দূরত্বের প্রতিযোগিতায় যোগ দিতে চলেছেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মহম্মদ আসিফ ইকবাল।

  • Share this:

কলকাতা: ইচ্ছাশক্তির কাছে হার মানে প্রতিবন্ধকতা, পঙ্গুও গিরি লঙ্ঘন করেন অনায়াসে। সে কথা আরও একবার প্রমাণ করতে চলেছেন মহম্মদ আসিফ ইকবাল। সাক্ষী থাকবে কলকাতা।

আগামী ১৮ ডিসেম্বর কলকাতায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে টাটা স্টিল আয়োজিত এক দৌড় প্রতিযোগিতা। সব কিছু ঠিক থাকলে কোনও রকম শারীরিক সহায়তা ছাড়াই পূর্ণ দূরত্বের প্রতিযোগিতায় যোগ দিতে চলেছেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মহম্মদ আসিফ ইকবাল। প্রতিযোগিতায় যোগ দিলে আসিফই হবেন প্রথম দৃষ্টি-প্রতিবন্ধী ভারতীয়-এশীয় দৌড়বিদ যিনি ২৫ কিলোমিটার দৌড়ে নামবেন সাধারণ প্রতিযোগীদের সঙ্গে।

টাটা স্টিল আয়োজিত এই প্রতিযোগিতায় প্রবীণ নাগরিক এবং বিশেষ ভাবে সক্ষম নাগরিকদের জন্য বিশেষ বিভাগের আয়োজন রয়েছে। কিন্তু সেই বিভাগে নাম না লিখিয়ে আসিফ নাম লিখিয়েছেন সাধারণ দৌড় বিভাগে, সম্পূর্ণ ২৫ কিলোমিটার দৌড়তে চান তিনি।

আরও পড়ুন- নতুন বছরে অবস্থান পরিবর্তন রাহু-কেতুর, সমস্যায় পড়বেন কোন রাশির জাতক-জাতিকারা?

কলকাতার বিধাননগর এলাকার বাসিন্দা বছর ছেচল্লিশের আসিফ এক সময় সামান্য হলেও চোখে দেখতে পেতেন। এক সময় সব কিছু অন্ধকার হয়ে যায়। তিনি বলেন, ‘‘১৬ বছর বয়স পর্যন্ত আমার ৫০ শতাংশ দৃষ্টিশক্তি ছিল। কিন্তু তারপর তা-ও হারিয়ে যেতে শুরু করে। আমি সম্পূর্ণ দৃষ্টিশক্তি হারাই। কিন্তু আমার লক্ষ্য থেকে তা আমাকে বিচ্যুত করতে পারেনি। গত পাঁচ বছর ধরে কলকাতার বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় দৌড়াচ্ছি।’’

কিন্তু কী ভাবে এই এতটা পথ পাড়ি দেবেন আসিফ, সে বিষয়ে জানিয়েছেন তিনিই। প্রতিযোগিতার সময় আসিফের সঙ্গে থাকবেন তাঁর দুই বন্ধু। আসিফের কোমরে বাঁধা থাকবে একটি বেতার স্পিকার। বন্ধুদের সঙ্গে এই স্পিকারের মাধ্যমেই যোগাযোগ রাখবেন আসিফ। বন্ধুরাই পথ নির্দেশনা দেবেন আসিফকে।

আরও পড়ুন- টাকা লুঠ করার নতুন কৌশল সাইবার অপরাধীদের, জনধন যোজনার অ্যাকাউন্ট ভাড়া!

আসিফ বলেন, ‘‘আমার রানার বন্ধুরা আশপাশের বিবরণ দিয়ে অডিও বার্তা দিতে থাকে। এই বার্তার মাধ্যমেই আমি ওদের অনুসরণ করব। আমার বন্ধুরাই আমাকে লক্ষ্যে পৌঁছতে সাহায্য করবে। এর বাইরে আর কোনও শারীরিক সহায়তা আমি গ্রহণ করব না।’’

“আমি অন্ধ হয়ে থাকব এবং কোনও শারীরিক সহায়তা ছাড়াই দৌড়াতে থাকব। আমার বন্ধু রানার আমাকে পারিপার্শ্বিকতার একটি অডিও বিবরণ প্রদান করবে এবং এটি আমাকে তাদের অনুসরণ করতে এবং আমার লক্ষ্যে পৌঁছাতে সাহায্য করবে ৷ ’’

কলকাতায় পিডব্লিউসি কনসাল্টিংয়ের অ্যাসোসিয়েট ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করেন আসিফ। তারই পাশাপাশি নিজের লক্ষ্য অর্জনের জন্য স্থিরপ্রজ্ঞ তিনি। এ বারের দৌড় তাঁকে এনে দিতে পারে বিশ্ব রেকর্ড। টাটা স্টিল আয়োজিত কলকাতা দৌড় প্রতিযোগিতায় আসিফের ২৫ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেওয়ার এই বিশেষ ঘটনার সাক্ষী থাকতে চলেছেন এশিয়া বুক অফ রেকর্ডসের একজন প্রতিনিধি।

আসিফ জানিয়েছেন, ৩ ঘণ্টা ৩৫ মিনিটের মধ্যেই তিনি তাঁর ২৫ কিলোমিটার দৌড় সম্পূর্ণ করতে চান। এ জন্য দীর্ঘদিন ধরে অনুশীলন করছেন তিনি। আসিফ আশাবাদী এই ডিসেম্বরের ফলাফল ইতিবাচক হবেই। আর তার পরে আরও লম্বা দৌড়ের প্রস্তুতি।

আসিফ বলেন, ‘আগামী জানুয়ারিতে মুম্বই ম্যারাথনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করব। আর এ জন্য আমি আমার পরিবারের প্রতিটি মানুষের সমর্থন পেয়েছি। আমি ভাগ্যবান, আমার পরিবার বন্ধুদের হতাশ করব না।’

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Marathon, Tata Steel