বাস চালিয়ে পেট চালাচ্ছেন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের বিশ্বকাপ দলের সদস্য, প্রাক্তন স্পিনার !

বাস চালিয়ে পেট চালাচ্ছেন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের বিশ্বকাপ দলের সদস্য, প্রাক্তন স্পিনার !

photo source collected

কোনও কাজ খুঁজে না পেয়ে বাসচালক হিসেবেই সেখানে জীবিকা নির্বাহ করছেন শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন স্পিনার।

  • Share this:

#মেলবোর্ন: অস্ট্রেলিয়ায় বাস চালাচ্ছেন শ্রীলঙ্কার ২০১১ সালের বিশ্বকাপ দলের সদস্য সূরজ রণদীভ (Suraj Randhiv)। তাঁর ছবি ভাইরাল হতেই হইচই পড়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কী এমন হল যে তাঁর এমন পরিণতি, সেই প্রশ্নই করেছেন নেটিজেনরা।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এক ভিডিও। যেখানে শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন স্পিনার সূরজ রনদীভকে মেলবোর্নের (Melbourne) রাস্তায় বাসের স্টিয়ারিং ধরা অবস্থায় দেখা যাচ্ছে। জীবিকা নির্বাহের জন্যই যে তিনি এই কাজ করছেন, তা জানাতে তিনি দ্বিধা করেননি। তা বলে ক্রিকেট থেকে তিনি দূরে সরে যাননি বলেও জানিয়েছেন রনদীভ। এখনও নিয়মিত প্রতি দিন তিনি মাঠে গিয়ে গা ঘামান বলে জানিয়েছেন শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপার। বল ও ব্যাট হাতে নিজেকে ঝালিয়ে নেন এই প্রাক্তন ক্রিকেটার।

জানা গিয়েছে, শ্রীলঙ্কা ছেড়ে অস্ট্রেলিয়ার নাগরিকত্ব নিয়েছেন সূরজ। কোনও কাজ খুঁজে না পেয়ে বাসচালক হিসেবেই সেখানে জীবিকা নির্বাহ করছেন শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন স্পিনার। তবে এ কাজে যে কোনও লজ্জা নেই, তাও স্পষ্ট জানিয়েছেন রনদীভ। চলার মাঝেমধ্যে ক্রিকেট-পাগল জনতার সঙ্গে মুখোমুখি হলে সেই সফর আরও দুর্দান্ত হয় বলে তিনি জানিয়েছেন। সেই ক্রিকেট-প্রেমীদের মধ্যে কেউ কেউ রনদীভকে চিনে ফেললে তো আর কথাই নেই! এরকম ঘটনা একাধিকবার ঘটেছে বলে জানিয়েছেন শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রিকেটার। কেউ কেউ তাঁর অটোগ্রাফ নিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন সূরজ।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ১২টি টেস্ট, ৩১টি ওয়ান ডে ও সাতটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা রনদীভ তিন ফর্ম্যাটে যথাক্রমে ৪৩, ৩৬ ও ৭ উইকেট নিয়েছেন। আইপিএলে (IPL) চেন্নাই সুপার কিংসের (Chennai Super Kings) জার্সি গায়ে মাঠে নামারও অভিজ্ঞতা রয়েছে সূরজ রনদীভের। অস্ট্রেলিয়ার জেলা স্তরের ক্রিকেটে অংশ নেওয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন স্পিনারের। খেলেছেন ডানডেনং ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে। সেই সূত্রে অজি ক্রিকেট তারকাদের সঙ্গে তাঁর বেশ ভালই হৃদ্যতা রয়েছে বলে নিজেই জানিয়েছেন রনদীভ। তাঁর কথায়, সদ্য শেষ হওয়া বর্ডার-গাভাসকর ট্রফিতে তিনি অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলকে পরামর্শ দিয়ে সাহায্য করেছেন।

প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে মেলবোর্নের ফ্রেঞ্চ বেসড কোম্পানি ট্রান্সডেভের হয়ে কাজ করেন সূরজ রনদীভ। একই সঙ্গে তিনি অস্ট্রেলিয়ায় ক্লাব ক্রিকেটও খেলেন। তাঁর সঙ্গে শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রিকেটার চিনথাকা জয়সিংঘে (Chinthaka Jayasinghe) ও জিম্বাবোয়ের ওয়াডিংটন মাওয়ায়েংগা (Waddington Mwayenga) একই পেশার সঙ্গে যুক্ত বলে জানা গিয়েছে। তাঁরা অস্ট্রেলিয়ার নাগরিকত্ব নিয়ে সেখানেই ক্লাব ক্রিকেট খেলছেন বলে জানা গিয়েছে।

Published by:Piya Banerjee
First published:

লেটেস্ট খবর