corona virus btn
corona virus btn
Loading

কোন ক্রিকেটার ম্যাচ ফিক্সিং-এর প্রস্তাব দিতেন, নাম ফাঁস করলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন তারকা পেসার

কোন ক্রিকেটার ম্যাচ ফিক্সিং-এর প্রস্তাব দিতেন, নাম ফাঁস করলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন তারকা পেসার
এবার গড়াপেটা বিতর্কে মুখ খুললেন আকিব জাভেদ৷

সাম্প্রতিক কালে যে পাক ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে ম্যাচ গড়াপেটার অভিযোগ সামনে এসেছে, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন প্রাক্তন পাকিস্তানি অধিনায়ক সেলিম মালিকও৷

  • Share this:

#পাকিস্তান: সাম্প্রতিক কালে পাকিস্তানের একাধিক প্রাক্তন ক্রিকেটার ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে চাঞ্চল্যকর স্বীকারোক্তি সামনে এনেছেন৷ এবার পালা পাকিস্তানের প্রাক্তন তারকা পেসার আকিব জাভেদের৷ প্রাক্তন এই পেসার স্বীকার করেছেন, তাঁকেও ম্যাচ ফিক্সিং-এর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল৷ এমন কি, কোন ক্রিকেটার তাঁকে এই প্রস্তাব দিয়েছিলেন, সেই নামও সামনে এনেছেন আকিব জাভেদ৷

পাকিস্তানের একটি নিউজ চ্যানেলকে আকিব জাভেদ জানিয়েছেন, সেলিম পারভেজ নামে এক প্রাক্তন ক্রিকেটার তাঁকে ম্যাচ ফিক্সিং-এর প্রস্তাব দিয়েছিলেন৷ জাভেদের দাবি, এই সেলিম পারভেজই জুয়াড়িদের মধ্যস্থতাকারী হিসেবে ক্রিকেটারদের ম্যাচ গড়াপেটার টোপ দিতেন৷

জাভেদ বলেন, 'ক্রিকেটারদের হাতে বিলাসবহুল গাড়ি এবং লক্ষ লক্ষ টাকা তুলে দেওয়া হতো৷ আমাকেও ম্যাচ ফিক্সিং-এর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল৷ হুমকি দেওয়া হয়েছিল, প্রস্তাবে সাড়া না দিলে আমার কেরিয়ার শেষ করে দেওয়া হবে৷ সেলিম পারভেজ নামে এক প্রাক্তন ক্রিকেটার অন্যান্য খেলোয়াড়দের এই প্রস্তাব দিতেন৷'

জাভেদ দাবি করেছেন, ম্যাচ ফিক্সিং-এ জড়াবেন না বলে নিজের সিদ্ধান্তে তিনি অনড় ছিলেন৷ এর জন্য তাঁকে খেসারতও দিতে হয়েছে৷ ফিক্সিং-এ রাজি নন বলে অনেক সিরিজ থেকেই তাঁকে বাদ দেওয়া হয়৷ শুধু তাই নয়, তাঁকে যাঁরা সমর্থন করতেন বা কথা বলতেন, তাঁদেরকেও শাস্তি দেওয়া হতো৷ জাভেদ অবশ্য জানিয়েছেন, ফিক্সিং-এ রাজি না হয়ে দল থেকে বাদ পড়ায় তাঁর কোনও আফশোস নেই৷

সাম্প্রতিক কালে যে পাক ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে ম্যাচ গড়াপেটার অভিযোগ সামনে এসেছে, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন প্রাক্তন পাকিস্তানি অধিনায়ক সেলিম মালিকও৷ তিনি অবশ্য দাবি করেছেন, ম্যাচ গড়াপেটা নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড এবং আইসিসি-এর তদন্তে সবরকম সাহায্য করতে তিনি তৈরি৷ যাতে অভিযোগ মুক্ত হয়ে ফের পেশা হিসেবে ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত হতে পারেন তিনি৷

 
Published by: Debamoy Ghosh
First published: June 21, 2020, 6:26 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर