• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • Euro 2020 : ওয়েলসের বিরুদ্ধে নিশ্চিত জেতা ম্যাচ ড্র করল সুইজারল্যান্ড

Euro 2020 : ওয়েলসের বিরুদ্ধে নিশ্চিত জেতা ম্যাচ ড্র করল সুইজারল্যান্ড

গোল করার পথে ওয়েলস স্ট্রাইকার মুর

গোল করার পথে ওয়েলস স্ট্রাইকার মুর

ম্যাচটা ড্র হওয়ায় সুইজারল্যান্ড নিজেদের দোষ দেবে। ম্যাচের অধিকাংশ সময় দাপট দেখিয়ে, বেশি সুযোগ তৈরি করে তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে না পারা অবশ্যই দুঃখের ব্যাপার

  • Share this:

    ওয়েলস -১ (মুর) সুইজারল্যান্ড - ( এমবোলো )

    #বাকু: শনিবার আজারবাইজানের রাজধানী বাকুতে গ্রুপ এ - র ম্যাচে প্রায় জিতেই গিয়েছিল সুইজারল্যান্ড। ওয়েলসকে ১-০ হারাল সুইসরা। হয়তো হেডিং লিখে ফেলা হয়েছিল। কিন্তু খেলাটার নাম ফুটবল। মহান অনিশ্চয়তার খেলায় কখন কি হবে বলা যায় না।ম্যাচের ৫৪ মিনিটে গোল করেন সুইস স্ট্রাইকার এমবোলো। ডানদিকের কর্নার থেকে ভেসে আসা বলে হেড করে বল জালে জড়িয়ে দেন তিনি। ওয়েলস গোলরক্ষক সুযোগ পাননি বল আটকানোর।

    ম্যাচের প্রথম পাঁচ মিনিট দাপট ছিল ওয়েলসের। কিন্তু এরপর খেলাটা দখল নিয়ে নেয় সুইজারল্যান্ড। ৩-৪-১-২ ফর্মেশন এ দল সাজিয়েছিলেন সুইজারল্যান্ডের অভিজ্ঞ কোচ ভ্লাদিমির পেটকোভিচ্। মিডফিল্ড দখল নেয় জাকা, ফ্রলার, এমবাবুরা। খেলা থেকে হারিয়ে যায় ওয়েলস। সামনে দুই স্ট্রাইকার এমবোলো এবং সেফরভিচ ছিলেন। একটু তলা থেকে ফ্রি ফুটবলার হিসেবে খেলছিলেন শাকিরি। ওয়েলস দলের সবচেয়ে বড় তারকা গ্যারেথ বেল কিছুই করতে পারছিলেন না। প্রাক্তন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা এখন অতীতের ছায়ামাত্র।

    একমাত্র ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকা ড্যানিয়েল জেমস ছাড়া আর কেউ নজর টানতে পারলেন না ওয়েলস দলে। প্রথমার্ধে একটা গোলের সুযোগ পেয়েছিল ওয়েলস।জেমসের ক্রস থেকে হেড করেন মুর। দুরন্ত রিফ্লেক্স দেখিয়ে বাঁচিয়ে দেন সুইস গোলরক্ষক। ৬৫ মিনিটের মাথায় শাকিরিকে তুলে নেন সুইস কোচ। এরপর এই ম্যাচে ফিরতে শুরু করে ওয়েলস। মিডফিল্ডে জুভেন্টাসের ফুটবলার রামসে নড়াচড়া শুরু করেন। মরেল কর্নার থেকে একটা বল ভাসিয়ে দেন বক্সে। সেই সাড়ে ছয় ফুটের স্ট্রাইকার মুর হেডে সমতা ফিরিয়ে আনেন।

    এরপর ৮৫ মিনিটে সুইজারল্যান্ড পরিবর্তিত ফুটবলার গ্রভানোভিচ্ গোল করেন। কিন্তু অফসাইডের কারণে বাতিল হয়।এমবোলোর হেড সেভ করেন ওয়লেস গোলকিপার।তবে ম্যাচটা ড্র হওয়ায় সুইজারল্যান্ড নিজেদের দোষ দেবে। ম্যাচের অধিকাংশ সময় দাপট দেখিয়ে, বেশি সুযোগ তৈরি করে তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে না পারা অবশ্যই দুঃখের ব্যাপার।সব সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে সুইজারল্যান্ড আরও বড় ব্যবধানে জিতে মাঠ ছাড়ত।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: