Home /News /sports /

ফ্রান্সের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপে গোলের নায়ক, মাত্র ৪২ বছরেই প্রয়াত সেনেগালের পাপা বউবা দিওপ

ফ্রান্সের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপে গোলের নায়ক, মাত্র ৪২ বছরেই প্রয়াত সেনেগালের পাপা বউবা দিওপ

প্রয়াত পাপা বউবা দিওপ৷ Photo-Twitter/FIFA

প্রয়াত পাপা বউবা দিওপ৷ Photo-Twitter/FIFA

জাপান-কোরিয়া বিশ্বকাপের প্রথম গোলদাতা ছিলেন দিওপ৷ সেবার বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছেছিল সেনেগাল৷

  • Share this:

    #সেনেগাল: ২০০২ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সকে হারিয়ে ফুটবল বিশ্বকে চমকে দিয়েছিল সেনেগাল৷ যাঁর পা থেকে সেই গোল এসেছিল, সেই পাপা বউবা দিওপ প্রয়াত৷ মাত্র ৪২ বছর বয়সেই চলে গেলে সেনেগালের ফুটবল তারকা৷ দীর্ঘ দিন ধরে লিভারের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি৷ কয়েকদিন আগে ফুটবল কিংবদন্তি দিয়েগো মারাদোনার প্রয়াণের পর ফুটবলপ্রেমীদের জন্য আরও এক মন খারাপ করে দেওয়া খবর এল সেনেগাল থেকে৷

    জাপান-কোরিয়া বিশ্বকাপের প্রথম গোলদাতা ছিলেন দিওপ৷ সেবার বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছেছিল সেনেগাল৷ গোটা ফুটবল বিশ্বের মন জয় করে নিয়েছিলেন দিওপ এবং তাঁর সতীর্থরা৷ সেবছরই আফ্রিকান নেশনস কাপের ফাইনালে টাইব্রেকারে ক্যামেরুনের কাছে হার স্বীকার করতে হয় সেনেগালকে৷ সেই দলেরও সদস্য ছিলেন পাপা বউবা দিওপ৷

    শোকবার্তায় ফিফা ট্যুইটারে লিখেছে, 'সেনেগালের ফুটবল কিংবদন্তি পাপা বউবা দিওপের মৃত্যু সংবাদে ফিফা শোকাহত৷ একদা বিশ্বকাপের নায়ক চিরকাল নায়কের মর্যাদাই পাবেন৷' মাত্র ২১ বছর বয়সে দেশের হয়ে অভিষেক হয় দিওপের৷ এর পর সেনেগালের হয়ে ৬০টি ম্যাচে খেলেন তিনি৷ আফ্রিকান দলটির মাঝমাঠের স্তম্ভ ছিলেন পাপা৷ কিন্তু ক্লাব এবং জাতীয় দলের হয়ে তাঁর অসাধারণ গোলগুলি ফুটবলপ্রেমীদের মণিকোঠায় চিরদিন থেকে যাবে৷ ২০০১ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত সেনেগালের হয়ে খেলেছেন দীর্ঘদেহী এই ফুটবলার৷ পাশাপাশি ফরাসি ক্লাব লেন্স, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব ফুলহ্যাম, ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেড, বার্মিংহাম সিটি-র মতো ক্লাবের হয়েও খেলেছেন দিওপ৷

    পাপা বউবার দিওপকে স্মরণ করে লিভারপুল স্ট্রাইকার এবং সেনেগালের তারকা ফুটবলার সাদিও মানে ট্যুইটারে লিখেছেন, 'তোমার চির বিদায়ের খবরে আমাদের হৃদয় ভেঙে গিয়েছে৷ কিন্তু তুমি আমাদেরকে বিদায় জানালেও চিরকাল তুমি আমাদের হৃদয়েই থেকে যাবে৷'

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    পরবর্তী খবর