Home /News /sports /
ফাইনালের আগে রানী এলিজাবেথের শুভকামনা সাউথগেট এবং থ্রি লায়ন্সদের

ফাইনালের আগে রানী এলিজাবেথের শুভকামনা সাউথগেট এবং থ্রি লায়ন্সদের

মেগা ফাইনালের আগে হ্যারি কেনদের শুভেচ্ছাবার্তা রানীর

মেগা ফাইনালের আগে হ্যারি কেনদের শুভেচ্ছাবার্তা রানীর

৫৫ বছর আগে আমি খুব সৌভাগ্যশালী ছিলাম ববি মুরের হাতে ট্রফি তুলে দিতে, সেদিন উপলব্ধি করেছিলাম ফাইনাল ম্যাচ জিতে এত বড় আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট জেতাটা প্লেয়ার, পরিচালকবর্গ এবং বাকি সমস্ত কর্মীদের কাছে কতটা অর্থ রাখে

  • Share this:

    #লন্ডন: ইংল্যান্ড আরেকবার ফুটবল জ্বরে মেতে উঠেছে। সাধারণ মানুষ শুধু না, রাজনীতিবিদ, রূপালী পর্দায় তারকারা এবং স্বয়ং মহারানী দ্বিতীয় এলিজাবেথও এই উন্মাদনা থেকে নিজেকে বিরত রাখতে পারছেন না। ১৯৬৬ সালের পর এই প্রথমবার ইংল্যান্ডের জাতীয় দল কোনো বড় টুর্নামেন্টের ফাইনালে পৌঁছাতে পেরেছে। শেষবার ববি মুরের ইংল্যান্ড ৬৬ এর বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল এবং সেবার তিনিও পুরস্কার নিয়েছিলেন রানীর হাত থেকে।

    ১৯৮৬ সালেও রানী ইউরো ফাইনালে ট্রফি তুলে দেন চ্যাম্পিয়নদের হাতে, কিন্ত সেটা জার্মানির ক্যাপ্টেন ইউরগেন ক্লিনসম্যানকে। ইংল্যান্ডের সফল ফাইনাল জয়ের আজ ৫৫ বছর পর এবার ইউরোর ফাইনালে ইতালির মুখোমুখি হবে থ্রি লায়নসরা। মহারানী এলিজাবেথ জাতীয় দলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেছেন '৫৫ বছর আগে আমি খুব সৌভাগ্যশালী ছিলাম ববি মুরের হাতে ট্রফি তুলে দিতে, সেদিন উপলব্ধি করেছিলাম ফাইনাল ম্যাচ জিতে এত বড় আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট জেতাটা প্লেয়ার, পরিচালকবর্গ এবং বাকি সমস্ত কর্মীদের কাছে কতটা অর্থ রাখে'।

    গ্যারেথ সাউথগেটকে উদ্দেশ্য করে তিনি ৬৬ এর বিশ্বকাপের স্মৃতিগুলি তুলে ধরলেন। 'আমার এবং আমার পরিবারের তরফ থেকে অনেক অভিবাদন জানাতে চাই ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে পৌঁছানোর জন্য, এবং কালকের ম্যাচের জন্য শুভেচ্ছা জানাই। ইতিহাস শুধু তোমাদের সাফল্যের সাক্ষী থাকবে না তোমাদের উদ্দীপনা, একাগ্রতা এবং অঙ্গীকারের সাক্ষী থাকবে।' ইংলিশ দলের প্রত্যেক প্লেয়ার আশা করছে ১৯৬৬ সালের ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি ঘটবে এবং এবার ববি মুরের জায়গায় হ্যারি কেন রানী এলিজাবেথের হাত থেকে পুরস্কৃত হবে।

    লন্ডনের অফিস থেকে শুরু করে রেস্টুরেন্ট, পানশালা সব জায়গায় ভিড় জমিয়েছেন সর্মথকরা। তারা বিশ্বাস করছে ইতিহাস তৈরি করবে রহিম স্টারলিং, স্টোন, ওয়াকাররা। অধিনায়ক হ্যারি কেন যতক্ষণ আছেন ইংলিশদের স্বপ্ন দেখতে বাধা নেই। সামনে ইতালির মতো হেভিওয়েট দল থাকলেও আত্মবিশ্বাসী ইংল্যান্ড। রানীর শুভেচ্ছা গুডলাক বয়ে আনবে কিনা জানা যাবে আর কয়েক ঘন্টা পর।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: EURO 2020 Copa 2021, Euro Cup 2020

    পরবর্তী খবর