হোম /খবর /ফুটবল /
ত্রাতা সেই রোনাল্ডো, গ্রুপ অফ ডেথ থেকে পরের রাউন্ডে পর্তুগাল! সঙ্গে জার্মানিও

Portugal vs France: ত্রাতা সেই রোনাল্ডো, গ্রুপ অফ ডেথ থেকে পরের রাউন্ডে পর্তুগাল! সঙ্গে জার্মানিও

অনবদ্য রোনাল্ডো

অনবদ্য রোনাল্ডো

Portugal vs France: মিউনিখে হাঙ্গেরির সঙ্গে ২-২ গোলের ড্রয়ে 'মৃত্যুকূপ'খ্যাত 'এফ' গ্রুপের দ্বিতীয় সেরা দল হিসেবে শেষ ষোলোয় উঠেছে জোয়াকিম লো'র দল। অপরদিকে, এদিন ২-২ গোলে ড্র করে নির্বিঘ্নেই পরের রাউন্ডে গেল পর্তুগাল।

  • Last Updated :
  • Share this:

#বুদাপেস্ট: ইউরো কাপে কোনও মতে পরের রাউন্ডে গেল পর্তুগাল। তৃতীয় সেরা দল হিসেবে ছাড়পত্র পেলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ও তাঁর দল পর্তুগাল। ফ্রান্সের বিরুদ্ধে ২-২ ড্র করেও ইউরোর শেষ ষোলোয় গেল রোনাল্ডোরা। অপরদিকে, অবিশ্বাস্য, একইসঙ্গে নাটকীয়ও। শেষ বাঁশি বাজার ৭ মিনিট আগ পর্যন্তও হাঙ্গেরির সঙ্গে ২-১ গোলে পিছিয়ে থেকে ইউরোর গ্রুপপর্ব থেকে বিদায়ের পথে ছিল জার্মানি। বদলি হয়ে নামা লিওন গোরেৎজকার ৮৪ মিনিটে করা সমতাসূচক গোলে শেষ পর্যন্ত হাঁপ ছেড়ে বাঁচে জার্মানি। মিউনিখে হাঙ্গেরির সঙ্গে ২-২ গোলের ড্রয়ে 'মৃত্যুকূপ'খ্যাত 'এফ' গ্রুপের দ্বিতীয় সেরা দল হিসেবে শেষ ষোলোয় উঠেছে জোয়াকিম লো'র দল।

এদিন ফ্রান্স আর পর্তুগালের খেলা ছিল উত্তেজনায় ভরা। প্রথম ও দ্বিতীয় পর্ব মিলে দুটি পেনাল্টি পায় পর্তুগাল। ৩০ ও ৬০ মিনিটে দুটি পেনাল্টি থেকেই গোল করেন রোনাল্ডো। অপরদিকে, ৪৫ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করার পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ফের গোল করেন ফ্রান্সের এমবাপে।

এদিন গ্রুপ এফ-এর খেলা ছিল নাটকীয়তায় ভরা। ছ'টি গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সরা সরাসরি নক আউটে পৌঁছবে। বাকি চারটি জায়গার জন্য লড়াই ছিল ছ'টি গ্রুপে তৃতীয় স্থানে থাকা দলগুলির মধ্যে। ইতিমধ্যেই তিনটে ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ ‘‌এ’‌ থেকে শেষ ১৬-য় পৌঁছে গেছে সুইজারল্যান্ড। ‘‌এফ’‌ গ্রুপে ২ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট ছিল পর্তুগালের। এদিন পর্তুগাল ড্র করার সাথেসাথেই অপরদিকে হাঙ্গেরির সঙ্গে ড্র করে জার্মানি। ফলে গোল পার্থক্যে বিদায় নেয় হাঙ্গেরি। আর গ্রুপ অফ সিক্সটিনে চলে যায় রোনাল্ডোরা।

ফ্রান্সের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে গভীর সঙ্কটে ছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোরা। ফ্রান্সের বিরুদ্ধে জিতলে তো কোনও কথাই ছিল না। সরাসরি নক আউটের ছাড়পত্র পেয়ে যেত তারা। কিন্তু, যদি হেরে যায়?‌ সেক্ষেত্রেও শেষ ষোলোয় যাওয়ার সুযোগ ছিল। কারণ ইউক্রেন ও ফিনল্যান্ডের থেকে পর্তুগালের গোল পার্থক্য ছিল ভাল জায়গায়। ওই দুটি দলই আগেই গ্রুপ লিগে শেষ ম্যাচ খেলে ফেলেছিল। সুতরাং গোল সংখ্যা বাড়ানোর সুযোগ ছিল না তাদের। তবে নক আউটে যেতে গেলে পর্তুগালকে ফ্রান্সের কাছে ২ গোলের বেশি ব্যবধানে হারলে চলত না। যদি ২ গোল কিংবা তার কম ব্যবধানে ফ্রান্সের কাছে হারত, তখন ‘‌ডি’‌ ও ‘‌ই’‌ গ্রুপের ম্যাচে যাই ফলাফল হোক না কেন, নক আউটে পৌঁছে যেতেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোরা। তবে ৩ কিংবা তার বেশি গোলের ব্যবধানে হারলে গ্রুপ ‘‌ডি’‌ এবং ‘‌ই’‌–র ম্যাচের ফলাফলের ওপর নির্ভর করতে হত। কিন্তু এদিন ২-২ গোলে ড্র করে নির্বিঘ্নেই পরের রাউন্ডে গেল পর্তুগাল।

Published by:Suman Biswas
First published:

Tags: EURO 2020 Copa 2021, Euro Cup 2020