• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • FOOTBALL EAST BENGAL ROPE IN A LEAGUE DEFENDER TOMISLAV MRCELA FOR ISL ON A YEAR CONTRACT RRC

East Bengal Tomislav : ইস্টবেঙ্গলে অস্ট্রেলিয়ান লিগ খেলা ডিফেন্ডার টমিস্লাভ

লাল হলুদে নতুন বিদেশি টমিস্লাভ

East Bengal rope in A League defender Tomislav Mrcela. অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় দলে থাকা এবং এ লিগে খেলার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন সেন্টার ব্যাক টমিস্লাভ মর্সেলা এক বছরের জন্য ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

  • Share this:

    #কলকাতা: আমির দেরভিসেভিচকে সই করানোর পর একজন বিদেশি ডিফেন্ডারের খোঁজ চালাচ্ছিল এস সি ইস্টবেঙ্গল। বয়স কম, মোটামুটি অভিজ্ঞতা এবং নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষমতা - এই তিনটি বিষয়ে জোর দেওয়া হয়েছিল। স্প্যানিশ কোচ ম্যানুয়াল দিয়াজের সঙ্গে কথা বলেই শেষ পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ান লিগে খেলা এই সেন্টার ব্যাককে সই করাল লাল হলুদ। অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় দলে থাকা এবং এ লিগে খেলার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন সেন্টার ব্যাক টমিস্লাভ মর্সেলা এক বছরের জন্য লাল হলুদের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

    এসসি ইস্টবেঙ্গলের ওয়েবসাইটকে টমিস্লাভ বলেছেন, এসসি ইস্টবেঙ্গলে সই করতে পেরে আমার ভাল লাগছে। ভারতে খেলা আমার কয়েকজন বন্ধুর কাছ থেকে এই ক্লাবের ব্যাপারে জেনেছিলাম। এই ক্লাবের খ্যাতির কথা সম্পর্কেও আমি ওয়াকিবহাল। এসসি ইস্টবেঙ্গলের রক্ষণভাগ দুর্ভেদ্য রাখতে আমি নিজের সেরাটা দিতে প্রস্তুত, আমার অভিজ্ঞতাও ভাগ করে নেব সতীর্থদের সঙ্গে।

    পারথে জন্ম হলেও ক্রোয়েশিয়ায় বড় হয়েছেন টমিস্লাভ। ২০০১ সালে আরএনকে স্প্লিটের ডালমেশিয়ান ইউথ আকাদেমিতে যোগ দেন। আরএনকে স্প্লিটে আট বছর কাটানোর পর বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে খেলেছেন। লোকোমোটিভার হয়ে প্রথম গোল করেছিলেন। দক্ষিণ কোরিয়ায় জিওন্নাম ড্রাগনসের হয়েও খেলেছেন। ২০১৮ বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বের খেলায় অস্ট্রেলিয়ার ২৩ সদস্যের দলেও ডাক পান। টমিস্লাভ ছয় ফুটের ওপর লম্বা। ফলে এরিয়াল বলে দারুণ শক্তিশালী।

    আগেরবার ব্রিটিশ ডিফেন্ডার ড্যানি ফক্সকে দলে নিয়ে ভুগতে হয়েছিল শতাব্দীপ্রাচীন ক্লাবকে। অর্ধেক সময় চোটে কাবু ছিলেন তিনি। তৃতীয় বিদেশি হিসেবে নাইজেরিয়ান স্ট্রাইকার ড্যানিয়েল চিমা চুকউ এসসি ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বলে খবর। যদিও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এখনও হয়নি। ফেসট্যাক স্পোর্টের হয়ে প্রথম খেলতে শুরু করেন। ২০১০ সালে যোগ দেন নরওয়ের প্রথম ডিভিশনের দল লিনে।

    বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে ২৬৪টি ম্যাচ খেলে ৯৫টি গোল করেছেন। চিনের লিগ ওয়ানের গত দু বছর খেলেছেন। তাইঝু ইউয়ান্ডার হয়ে খেলার পর এবার তিনি আসছেন লাল হলুদে। অত্যন্ত শক্তিশালী এবং চতুর স্ট্রাইকার বলেই পরিচিত এই চিমা। আফ্রিকান ফুটবলাররা বরাবর ভারতীয় ফুটবলে সফল। তাই এই বিদেশি ভারতে সফল হবেন আশা করা যায়। তাঁকে আনা হচ্ছে গতবার দুর্দান্ত খেলা ব্রাইটের জায়গায়।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: