• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • Joni Kauko Mohun Bagan target : মোহনবাগানকে আইএসএল চ্যাম্পিয়ন করা ছাড়া দ্বিতীয় টার্গেট নেই ইউরো খেলা জনির

Joni Kauko Mohun Bagan target : মোহনবাগানকে আইএসএল চ্যাম্পিয়ন করা ছাড়া দ্বিতীয় টার্গেট নেই ইউরো খেলা জনির

বাগান সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটাতে চান জনি কাউকো

বাগান সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটাতে চান জনি কাউকো

Joni Kauko of ATK Mohun Bagan targets ISL Championship this season ইউরো কাপের মত টুর্নামেন্ট খেলা সরাসরি এটিকে মোহনবাগান দলে যোগ দিয়েছিলেন জনি কাউকো।

  • Share this:

    #গোয়া: ইউরো কাপের মত টুর্নামেন্ট খেলা সরাসরি এটিকে মোহনবাগান দলে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দেশের হয়ে খেলতে যাওয়ার কারণে এফসি কাপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচ খেলা হয়নি তার। উজবেকিস্তানের শক্তিশালী দল নাসাফের বিরুদ্ধে বিধ্বস্ত হওয়ার ম্যাচে মাঠে থাকলেও নজর টানতে পারেননি। বুঝেছিলেন তার ওপর কতটা প্রত্যাশা সমর্থকদের। শারীরিকভাবে সেরা জায়গায় ছিলেন না। কিন্তু এখন টানা অনুশীলন করে যেমন শারীরিক ভাবে প্রস্তুত, তেমনই হাবাসের কোচিং স্টাইল সম্পর্কেও অবগত। জনি জানিয়ে দিচ্ছেন আর চিন্তা নেই সবুজ মেরুন সমর্থকদের।

    আরও পড়ুন - Solskjaer out Man United : টানা ব্যর্থতায় বরখাস্ত হতে পারেন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড কোচ ওলে সোলস্কার

    নিজের সেরা ছন্দে আইএসএল খেলতে দেখা যাবে তাকে। সঙ্গে ফরাসি তারকা হুগো বুমু রয়েছেন। জনির দায়িত্ব হবে ডিফেন্স এবং আক্রমণভাগের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখা। সেটা কিভাবে করবেন, রপ্ত করেছেন অনুশীলনে। ডিফেন্স শক্তিশালী রেখেই আক্রমণে যেতে চান হাবাস। জনি মনে করেন এই মরশুমে শক্তিশালী দল এটিকে মোহনবাগানের। স্বদেশী এবং বিদেশির মিশ্রন বেশ ভাল।

    কাউকো এবারের ইউরোতে ফিনল্যান্ডের জার্সিতে সেন্ট্রাল মিডিও হিসেবে খেলেছেন। তবে কাউকো মূলত বক্স টু বক্স মিডিও হিসেবে খেলতে বেশি স্বচ্ছন্দবোধ করেন। তবে দলের প্রয়োজনে তিনি অ্যাটাকিং মিডিও বা বাঁদিক থেকেও খেলে থাকেন। কাউকোর মতো প্লেয়ারকে দলে পেয়ে রীতিমতো উচ্ছ্বসিত এটিকে মোহনবাগান কোচ আন্তোনিও লোপেজ হাবাস।

    হাবাস বলেছেন, ‘ও (কাউকো) একজন অসাধারণ মিডফিল্ডার। পুরো মাঝমাঠ জুড়ে খেলে। এর বাইরেও ও খুব তাড়াতাড়ি ফুটবলের যে কোনও সিস্টেম এবং খেলার ধরনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারে। ও শারীরিক ভাবে খুবই শক্তিশালী এবং এর সঙ্গে ওর আলাদা একটি ব্যক্তিত্ব রয়েছে। এর পাশাপাশি মাঠে ওর নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে। আমার মনে হয়, ও দলের চাবিকাঠি হয়ে উঠবে।’

    কোচের প্রশংসা শুনে খুশি জনি। তবে পেশাদার ফুটবলার বলেই জানেন বিশ্বাসের দাম দিতে হবে মাঠে নেমে। তাই চোয়াল শক্ত। ভারতীয় ফুটবলের মান কবে উন্নত হচ্ছে মনে করেন তিনি। মোহনবাগানের ইতিহাস সম্পর্কে শুনেছেন। জানেন ফাইনাল খেললেও রানার্সআপ হয় সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছিল। এবার চাই চ্যাম্পিয়নশিপ ছাড়া অন্য কিছু ভাবতে রাজি নন ছয় ফুট দুই ইঞ্চির এই ফুটবলার।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: