• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • FOOTBALL 8 PLAYERS FROM ENGLAND AND ITALY IN UEFA TEAM OF THE TOURNAMENT RRC

Euro 2020: ইউরো কাপের সেরা একাদশে ইতালি, ইংল্যান্ডের আট ফুটবলার

আবির্ভাবেই সেরা দলে স্পেনের বিস্ময় বালক পেড্রি

এদিকে স্পেনের মধ্যমাঠে ‘নিউক্লিয়াস’ ছিলেন পেদ্রি। বার্সার এই কিশোর ৭৬.১ কিলোমিটার দৌড়ে পাসের মালা গেঁথেছেন মাঝমাঠে।

  • Share this:

    #লন্ডন: পর্তুগাল শেষ ষোলো থেকে বাদ পড়ায় এবার ইউরোর ‘সেরা দল’-এ জায়গা হয়নি রোনালদোর। আজ ইউরোর ‘টিম অব দ্য টুর্নামেন্ট’-এ ১১ খেলোয়াড়ের নাম নিজেদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে উয়েফা। চ্যাম্পিয়ন ইতালি থেকে এই একাদশে জায়গা পেয়েছেন সর্বোচ্চ পাঁচ খেলোয়াড়—জিয়ানলুইজি দোন্নারুমা, লিওনার্দো বোনুচ্চি, লিওনার্দো স্পিনাৎসোলা, জর্জিনিও ও ফেদরিক কিয়েসা।

    রানার্সআপ ইংল্যান্ড থেকে জায়গা পেয়েছেন তিনজন—রাহিম স্টার্লিং, হ্যারি ম্যাগুয়ার ও কাইল ওয়াকার। ডেনমার্ক, সুইজারল্যান্ড ও স্পেন থেকে জায়গা পেয়েছেন একজন করে খেলোয়াড়। এর মধ্যে ১৮ বছর বয়সী স্পেনের সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার পেদ্রির অন্তর্ভুক্তি চমক জাগানিয়া হলেও প্রত্যাশিতই। তবে চেক প্রজাতন্ত্রের ফরোয়ার্ড পাত্রিক শিকের বাদ পড়াটা অবাক করে দেওয়ার মতো।

    ইউরো ২০২০–এর এই একাদশের কোচ প্রত্যাশিতভাবেই রবার্তো মানচিনি। ২০১৮ বিশ্বকাপে খেলতে না পারা ইতালিকে টানা ৩৪ ম্যাচ অপরাজিত রেখে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন বানানো কোচকে এড়াতে পারেনি উয়েফার টেকনিক্যাল কমিটি। ইউরোর সেরা দল বাছাই করা মোট ১৬ সদস্যের এই কমিটিতে রয়েছেন এস্তেবান ক্যাম্বিয়াসো, ফাবিও ক্যাপেলো, রবি কিন, এইতর কারাঙ্কা ও ডেভিড ময়েসের মতো কোচ ও প্রাক্তন খেলোয়াড়েরা।

    একাদশ সাজানো হয়েছে ৪-৩-৩ ফরমেশনে। গোলপোস্টে ইতালির গোলকিপার জিয়ানলুইজি দোন্নারুমাকে বেছে নেওয়া হয়েছে প্রত্যাশিতভাবেই। এবার ইউরোর সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন তিনি। তাঁর সামনে চার ডিফেন্ডার—কাইল ওয়াকার থাকবেন রাইটব্যাক পজিশনে, মাঝখানে দুই সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার হিসেবে থাকবেন বোনুচ্চি ও ম্যাগুয়ার। লেফটব্যাক পজিশনে থাকবেন এবার ইউরোয় দারুণ খেলা স্পিনাৎসোলা। চোটের জন্য ইতালির সেমিফাইনাল ও ফাইনালে খেলতে পারেননি স্পিনাৎসোলা।

    তবে ইংলিশ তারকা ম্যাগুয়ারের চেয়ে বেশিসংখ্যক বল রিকভার করেও জর্জো কিয়েল্লিনি কেন একাদশে সুযোগ পেলেন না, সেটি বড় প্রশ্ন। ইতালির ইউরো জয়ে রক্ষণে দারুণ ভূমিকা অধিনায়ক কিয়েল্লিনির। মাঝমাঠে  বাঁ প্রান্তে পেদ্রি, মাঝখানে জর্জিনিও এবং ডান পাশে পিয়ের-এমিল হইবিয়া। ডেনমার্কের সেমিফাইনালে ওঠায় দারুণ ভূমিকা রাখেন টটেনহাম হটস্পার্সের এই মিডফিল্ডার।

    এদিকে স্পেনের মাঝমাঠে  ‘নিউক্লিয়াস’ ছিলেন পেদ্রি। বার্সার এই কিশোর ৭৬.১ কিলোমিটার দৌড়ে পাসের মালা গেঁথেছেন মাঝমাঠে। অ্যাটাকিং থার্ডেও সবচেয়ে বেশি পাস দিয়েছেন তিনি। জর্জিনিও ৮৬.৬ কিলোমিটার দৌড়েছেন। আক্রমণভাগে ডান প্রান্তে ইতালির ফরোয়ার্ড ফেদেরিক কিয়েসা, মাঝখানে বেলজিয়ামের স্ট্রাইকার রোমেলু লুকাকু ও বাঁয়ে ইংল্যান্ডের স্টার্লিং।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: