• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • পেটের জ্বালা! সচিন, শেহবাগকে আউট করা বোলার এখন ট্যাক্সি ড্রাইভার

পেটের জ্বালা! সচিন, শেহবাগকে আউট করা বোলার এখন ট্যাক্সি ড্রাইভার

ভারতের বিরুদ্ধে বরাবর দুরন্ত পারফর্ম করেছেন।

ভারতের বিরুদ্ধে বরাবর দুরন্ত পারফর্ম করেছেন।

ভারতের বিরুদ্ধে বরাবর দুরন্ত পারফর্ম করেছেন।

  • Share this:

    #ইসলামাবাদ: ভাগ্যের ফের বোধ হয় একেই বলে! এমনিতে ক্রিকেটারদের আর্থিক সমস্যার কথা খুব একটা শোনা যায় না। জাতীয় দলের হয়ে খেলার পর ক্রিকেটারদের আর্থিক সমস্য়া হয় না সচরাচর। তবে সবার ক্ষেত্রে ব্যাপারটা সমান নয়। পাকিস্তানের আরশাদ খানের ক্ষেত্রে তো নয়ই। আরশাদ খান এখন জীবন-যাপনের জন্য ট্যাক্সি ড্রাইভার হিসাবে কাজ করছেন। পাকিস্তানের এই প্রাক্তন ক্রিকেটার একটা সময় সচিন তেন্ডুলকর, বীরেন্দ্র শেহবাগকে আউট করেছেন। সেই তিনিই কি না এখন ট্যাক্সি ড্রাইভার!

    ১৯৯৭ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল আরশাদ খানের। অফ স্পিনার হিসাবে বেশ নামডাক হয়েছিল তাঁর। কিন্তু হঠাত্ করেই যেন ক্রিকেট মাঠ থেকে উধাও হয়ে যান তিনি। এর পর প্রবল আর্থিক কষ্টের মধ্যে দিন কাটে তাঁর। অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে এখন ট্যাক্সি ড্রাইভার হিসাবে কাজ করছেন তিনি। ভারতের বিরুদ্ধে বরাবর দুরন্ত পারফর্ম করেছেন আরশাদ। সাধারণত ভারতের বিরুদ্ধে ভাল পারফর্ম করা ক্রিকেটারদের পাকিস্তান দলে জায়গা পাকা হয়ে যায়। কিন্তু আরশাদের ক্ষেত্রে সেটা হয়নি। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশের হয়ে ভাল খেলেও তাঁকে বাদ পড়তে হয়েছিল।

    ৯টি টেস্ট ও ৫৮টি ওয়ান ডে খেলেছেন আরশাদ খান। টেস্টে ৩২ টি এবং ওয়ান ডে তে ৫৬টি উইকেট পেয়েছেন পাকিস্তানের এই অফ স্পিনার। কেরিয়ারের শেষ টেস্ট ও ওয়ান ডে ম্যাচও ভারতের বিরুদ্ধেই খেলেছেন আরশাদ। কিন্তু এর পর আচমকাই তিনি ক্রিকেট থেকে ছিটকে যান। অনেক ক্রিকেটার খেলা ছাড়ার পরও ক্রিকেটের সঙ্গে জড়িয়ে থাকেন। কোচ বা ধারাভাষ্যকার হিসাবে। কিন্তু আরশাদ সেটা করেননি। বলা ভাল তিনি খেলা ছাড়ার পর আর ক্রিকেটে থাকতে পারেননি। এর পরই সংসার খরচ চালাতে তাঁকে ট্যাক্সির স্টিয়ারিং ধরতে হয়। এখন তো জাতীয় দল থেকে বাদ পড়লেও ক্রিকেটাররা ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ খেলে কোটি কোটি টাকা উপার্জন করেন। কিন্তু পাকিস্তানের এই স্পিনার সেই সুযোগও পাননি।

    Published by:Suman Majumder
    First published: