গোলাপি আভায় সাজছে ইডেন

আকাশ থেকে নামতে পারে সিরিজের ট্রফি। এক সুরে মিশতে পারে দুই বাংলা। গোলাপি আভায় ভাসবে ইডেন।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 30, 2019 11:56 PM IST
গোলাপি আভায় সাজছে ইডেন
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 30, 2019 11:56 PM IST

#কলকাতা: আকাশ থেকে নামতে পারে সিরিজের ট্রফি। এক সুরে মিশতে পারে দুই বাংলা। গোলাপি আভায় ভাসবে ইডেন। আগামী বাইশ নভেম্বর ইডেনে ঘণ্টা বাজিয়ে ঐতিহাসিক টেস্টের উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আর বিলম্ব নয়। দিনরাতের টেস্ট নিশ্চিত হতে তৎপরতা শুরু বঙ্গ ক্রিকেটের অন্দরে।

ইতিমধ্যেই অর্ডার দেওয়া হয়েছে বাহাত্তরটি গোলাপি বল। ম্যাচ শুরু বেলা একটায়। শেষ হবে রাত আটটায়। প্রথম চল্লিশ মিনিট টি ব্রেক। পরের কুড়ি মিনিট সাপার ব্রেক। ম্যাচ আয়োজনের তৎপরতার মধ্যেই বেশ কিছু পদক্ষেপ নিতে চলেছে সিএবি।

সেনা অনুমতি দিলে, সিরিজের ট্রফি নামতে পাের আকাশ থেকে। ট্রফি আনতে পােরন প্যারাট্রুপাররা। ইতিহাসের টেস্টকে স্মরণীয় করতে সোনার কয়েন দিয়ে টসের ভাবনা। টিকিটে থাকতে পাের গোলাপি আভা। ইডেনে আকাশকেও গোলাপি করার ভাবনা। প্রতিনিধি ও সদস্যদের জন্য তৈরি হচ্ছে বিশেষ টাই। যেখানে থাকতে পারে ইডেনের নকশা। ম্যাচের প্রথমদিন হবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। একমঞ্চে থাকবে উষা উত্থুপ এবং রুনা লায়লা।

বাইশ নভেম্বর ভারত-বাংলাদেশ টেস্টের আগে ইডেন বেল বাজাবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মাঠে হাজির থাকবেন দু’হাজার এক সালে ভারতের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট খেলা বাংলাদেশের প্রাক্তন ক্রিকেটাররা।

Loading...

গোলাপি বলে ইডেন টেস্টে বিরাটদের সবরকম সাহায্য করবেন তিনি। কলকাতায় দাবি ভারতীয় উইকেট কিপার ঋদ্ধিমান সাহার। এদিকে, কলকাতা টেস্টের পিচ হতে চলেছে ফিফটি-ফিফটি। ইঙ্গিত পিচ কিউরেটর সুজন মুখোপাধ্যায়ের।

আর কয়েকদিন তারপর এই ইডেনের গায়ে লাগতে চলেছে গোলাপি আভা। পরীক্ষামূলক ভাবে পিঙ্ক বলে ক্রিকেট ম্যাচে সাফল্য পেয়েছিল কলকাতা। এবার আরও বড় মঞ্চ। কেমন হবে বিরাটদের জন্য ইডেনের বাইশ গজ।

অক্টোবরের রাতেই শিশিরে ভরেছে ইডেন। নভেম্বরে মাত্রা বাড়বে তা স্বাভাবিক। কী ভাবে ঠেকানো যাবে ডিউ ফ্যাক্টর। এই পরিস্থিতিতে গোলাপি বলে ভারতের মাটিতে প্রথম টেস্ট খেলার জন্য মুখিয়ে ভারতীয় উইকেট কিপার ঋদ্ধিমান সাহা। এই মাঠে বছর তিনেক আগে সুপার লিগের খেলছিলেন তিনি। গোলাপি বলে ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতাকেই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে কাজে লাগাতে চান।

First published: 11:56:02 PM Oct 30, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर