corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘সামাজিক দূরত্ব শিকেয়, মনে হচ্ছিল গিলক্রিস্টকে খামচে ধরে থাকি’ মরুঝড়ের স্মৃতি উসকে যা বললেন সচিন

‘সামাজিক দূরত্ব শিকেয়, মনে হচ্ছিল গিলক্রিস্টকে খামচে ধরে থাকি’ মরুঝড়ের স্মৃতি উসকে যা বললেন সচিন
Photo- AFP

সচিনের মরুঝড় তো সব ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে রয়েছে কিন্তু মাস্টারব্লাস্টারের কী মনে আছে শুনলে চমকে উঠবেন ৷

  • Share this:

#মুম্বই: প্রতিটা ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীর কাছেই সচিন তেন্ডুলকর ঈশ্বর ৷ আর তারা সকলেই সচিনের ‘মরুঝড়’ কিছুতেই ভুলতে পারেন না৷ তিনদিনের মধ্যে জোড়া শতরান করেছিলেন মাস্টারব্লাস্টার ৷ ১৯৯৮-তে শারজায় কোকোকোলা কাপে এই ধামাকা করেছিলেন ৷ এপ্রিলের ২২ তারিখ এই শতরান করেছিলেন তিনি ৷ তাঁর শতরানে ভর দিয়েই ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে পৌঁছেছিল ভারত ৷ আর তাঁর সেই অবিস্মরণীয় ইনিংসকে ক্রিকেটের ইতিহাসে মরুঝড় বলেই বলা হয় ৷

সেদিন খেলা চলাকালীন ঝড় আসায় খেলা থমকেছিল আর তারপর ভারতের টার্গেট বদলে গিয়েছিল ৷ সচিন জানিয়েছেন, সে সময় তাঁর বেশ খারাপ লেগেছিল ৷ সচিনের মতে সে সময় সকলের অসহ্য লাগছিল৷ চার ওভার কেটে নেওয়া হয়েছিল অন্যদিকে রান কমেছিল মাত্র ৯ ৷ ফলে অনেক কম ওভারে জয়ের জন্য অনেক বড় রান তাড়া করতে হচ্ছিল দলকে ৷

সচিন বলেছেন, ‘‘ আমরা ড্রেসিমরুমে নতুন বদলে যাওয়া টার্গেট নিয়ে ভাবছিলাম৷ ভাবছিলাম কি করব ৷ ধীরে ধীরে খেলা শুরু হল ৷ খেলা কমে ৪৬ ওভার হয়ে গেল আর যদি ভুল না বলি তাহলে টার্গেটের থেকে মাত্র ৮-৯ রান কমানো হয়েছিল ৷ আমি ভীষণ ভেঙে পড়েছিলাম৷ ’’

সচিনের শতরান মেন ইন ব্লুকে ফাইনালে পৌঁছে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট ছিল ৷ পাশাপাশি সেই একই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে একদিন বাদে ফাইনাল খেলতে হয়েছিল টিম ইন্ডিয়াকে ৷ নিউজিল্যান্ডকে রানরেটে টেক্কা দিয়ে ফাইনালের টিকিট জিতেছিল ভারত ৷

সচিন বলেছেন, ‘‘এটা আমাদের প্রথম অভিজ্ঞতা ৷ আমি কখনও মরুঝড় দেখিনি ৷ আমি যখন ওটা প্রথম দেখেছিলাম তখন মনে হয়েছিল আমি উড়ে যাব ৷ অ্যাডাম গিলক্রিস্ট ঠিক আমার পিছে দাঁড়িয়েছিল ৷ ঝড়টা এতটাই শক্তিশালী ছিল যে ভুলে গিয়েছিলাম সোশ্যাল ডিসটেন্সিং কী জিনিস ৷ আমার মনে হয়েছিল ওকে জাপটে ধরি ঝড়ের গতিতে হাওয়া বইছিল আমি মনে করছিলাম যাক বাবা ৮০-৯০ কেজি-র গিলক্রিস্টকে জড়িয়ে ধরে রেখেছি ৷ আম্পায়ার যখন মাঠ ছাড়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করছিল তখন আমি মনে এটাই ভাবছিলাম৷ ’’

ফাইনালে সচিন শতরান করেছিলেন আর তাঁর শতরানে ভর করেই অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত ৷

Published by: Debalina Datta
First published: May 5, 2020, 3:53 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर