৪৯ রানে আউট, হতাশায় ব্যাটসম্যানের প্রাণঘাতী আক্রমণ ফিল্ডারকে! ঘরোয়া ক্রিকেটে ধুন্ধুমার

৪৯ রানে আউট, হতাশায় ব্যাটসম্যানের প্রাণঘাতী আক্রমণ ফিল্ডারকে! ঘরোয়া ক্রিকেটে ধুন্ধুমার

আহত ক্রিকেটারকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আহত ক্রিকেটারকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

  • Share this:

    #গোয়ালিয়র:

    জেন্টলম্যানস গেম। কিন্তু কিছু ক্রিকেটারের জন্য তথাকথিত ভদ্রলোকের খেলায় বারবার কালির দাগ পড়ে। এদিনও সেটাই হল। ৪৯ রানে আউট হওয়া ব্যাটসম্যান হতাশায় চড়াও হল ফিল্ডারের উপর। যে ফিল্ডার তাঁর ক্যাচ নিয়েছিল তাঁকে ব্যাট দিয়ে প্রচণ্ড জোরে আঘাত করে সেই ব্যাটসম্যান। মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রে ঘয়োরা ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ম্যাচে ধুন্ধুমার কাণ্ড। আহত ক্রিকেটারকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক। ২৩ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান সঞ্জয় পালিয়ার নামে খুনের চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে।

    সচিন পরাশর নামের সেই ফিল্ডারের মাথায় গুরুতর চোট লেগেছে বলে জানা যাচ্ছে। গোলা কা মন্দির থানার পুলিস জানিয়েছে, এদিন স্থানীয় মেলা গ্রাউন্ড-এ ম্যাচ চলছিল। ৪৯ রানে আউট হন সঞ্জয়। মাত্র এক রানের জন্য হাফ সেঞ্চুরি ফস্কানোয় হতাশ হয়ে পড়েন তিনি। এর পরই তাঁর ক্যাচ ধরা পরাশরের দিকে ব্যাট নিয়ে তেড়ে যান সঞ্জয়। সতীর্থরা তাঁকে আটকানোর আগেই সঞ্জয় ব্যাট দিয়ে সজোরে আঘাত করে বসেন পরাশরের মাথায়। সতীর্থরা জানিয়েছেন, সঞ্জয় বারবার পরাশরের মাথায় ব্যাট দিয়ে আঘাত করতে থাকেন। তাঁরা চেষ্টা করেও সঞ্জয়কে আটকাতে পারছিলেন না। এর পরই যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকেন পরাশর। কয়েক মিনিটের মধ্যেই পরাশর নামের সেই ফিল্ডার জ্ঞান হারান।

    পুলিসের তরফে আরও জানানো হয়েছে, পরাশরকে নৃশংসভাবে মারার পরই সঞ্জয় নামের ওই ক্রিকেটার মাঠ ছেড়ে পালিয়ে যায়। তাঁর খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিস। পরাশর নামের সেই ক্রিকেটারকে অজ্ঞান অবস্থাতেই স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক। মাথায় গুরুতর চোট রয়েছে তাঁর। এমন একটি ঘটনার আকস্মিতায় বাকি ক্রিকেটাররাও অবাক হয়ে যান। হাফ সেঞ্চুরি করতে না পারার হতাশা নাকি পুরনো শত্রুতার জেরে পরাশরকে এমনভাবে মারলেন সঞ্জয়, তা খতিয়ে দেখছে পুলিস।

    Published by:Suman Majumder
    First published: