Home /News /sports /

Ian Botham and Michael Vaughan on Ashes : ইংল্যান্ডের লজ্জার পরাজয় নিয়ে রুটদের ধুয়ে দিলেন বোথাম, বয়কটরা

Ian Botham and Michael Vaughan on Ashes : ইংল্যান্ডের লজ্জার পরাজয় নিয়ে রুটদের ধুয়ে দিলেন বোথাম, বয়কটরা

ইংল্যান্ডের লজ্জাজনক পরাজয়ের পর রুটকে দায়িত্ব ছাড়তে আবেদন প্রাক্তনদের

ইংল্যান্ডের লজ্জাজনক পরাজয়ের পর রুটকে দায়িত্ব ছাড়তে আবেদন প্রাক্তনদের

Ian Botham and Geoffrey Boycott frustrated at Ashes loss. ইংল্যান্ডের লজ্জাজনক পরাজয়ের পর রুটকে দায়িত্ব ছাড়তে আবেদন প্রাক্তনদের

  • Share this:

    #মেলবোর্ন: লজ্জা। খুব বড় লজ্জা। এমন লজ্জাজনক পারফরম্যান্স নিয়ে প্রচন্ড লজ্জিত ইংল্যান্ডের প্রাক্তন কিংবদন্তি ক্রিকেটাররা। তাদের মধ্যে রয়েছেন বয়কট, ইয়ান বোথাম এবং মাইকেল ভন। মেলবোর্নে আড়াই দিনের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার কাছে উড়ে যাওয়ার পর ইংলিশ ক্রিকেট নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যঙ্গ বিদ্রুপ চলছে। সেটাই স্বাভাবিক। সামান্যতম লড়াই করতে পারেনি ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়ার কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে।

    আরও পড়ুন - ATK Mohun Bagan vs FC Goa Preview : আইএসএলে গোয়ার বিরুদ্ধে আজ পরীক্ষা মোহনবাগানের নতুন কোচ ফেরান্ডোর

    বয়কট, ইয়ান বোথাম যা দেখে নিজেদের রাগ প্রকাশ করেছেন। শুধু অধিনায়ক নন, গোটা ইংল্যান্ড দলটা ব্যর্থ মনে করছেন তারা। একমাত্র জেমস অ্যান্ডারসন ছাড়া কোন ইংরেজ ক্রিকেটার দাগ কাটতে পারেননি। ইয়ান বোথাম বলেছেন প্রথম দুটো ম্যাচ হেরে যাওয়ার পর ইংল্যান্ডের উচিত ছিল তৃতীয় ম্যাচ এর জন্য সঠিক পরিকল্পনা করা। এই ম্যাচটা সিরিজ বাঁচানোর ম্যাচ ছিল।

    আরও পড়ুন - Gavaskar on India all rounders : দুজন অলরাউন্ডার পেলেই বিশ্বকাপে বাজিমাত করতে পারে ভারত, বলছেন গাভাসকার

    কোথায় পাল্লা দিয়ে লড়াই করবে, উল্টে আড়াই দিনে আত্মসমর্পণ। ইংলিশ ক্রিকেট এমন লজ্জার ইতিহাস খুব বেশি আসেনি। বয়কট বলছেন ব্যর্থতার দায় নিয়ে দায়িত্ব ছেড়ে দিন রুট এবং কোচ সিলভারউড। মাইকেল ভন মনে করেন তরুণ ক্রিকেটার তুলে আনার ক্ষেত্রে ইংলিশ ক্রিকেট সিস্টেম অনেক পিছিয়ে আছে। অনেক এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া, ভারত এমনকি নিউজিল্যান্ড।

    দ্বিতীয় ইনিংসে ৬৮ রানে অলআউট ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ১১৭ বছরের মধ্যে এটাই সর্বনিম্ন স্কোর ইংল্যান্ডের। দলের অবস্থা যখন এমন সঙিন তখন সবকিছু ঢেলে সাজানোর চিন্তা ওঠা অস্বাভাবিক কিছু না। ইংল্যান্ড অধিনায়ক হিসেবে সবচেয়ে বেশি টেস্ট হারের রেকর্ডও (২৪) এখন রুটের। এরপরও অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করে যাবেন কিনা, এই প্রশ্নের উত্তরে রুট বলেন, সিরিজ তো এখনো শেষ হয়নি। এখনো হাতে দুটি বড় ম্যাচ আছে।

    এর বাইরে অন্য কিছু নিয়ে ভাবা ভুল হবে। রুটের ব্যাখ্যা, আমি খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি সিরিজের মাঝপথে আছি। পরের ম্যাচটা কীভাবে জিতব, শুধু সেটা নিয়েই আমার ভাবা উচিত। স্বার্থপরের মতো শুধু নিজেরটা নিয়ে ভাবা উচিত হবে না। এবছর ৯টি টেস্ট হেরেছে ইংল্যান্ড। দলটির ইতিহাসে এক বছরে এটি সর্বোচ্চসংখ্যক টেস্ট হারের রেকর্ড।

    তবে রুট যাই বলুন না কেন, প্রাক্তন ইংরেজ ক্রিকেটাররা মনে করছেন এই লজ্জাজনক পরাজয়ের পর আত্মগ্লানি হওয়া উচিত ইংরেজ ক্রিকেটারদের। বোঝা উচিৎ এরপর তাদের নিয়ে আগ্রহ কমতে পারে দেশের ক্রিকেট প্রেমীদের।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: England vs Australia, Joe Root

    পরবর্তী খবর