corona virus btn
corona virus btn
Loading

একে আমফান, তার উপর বারবার ঝড়বৃষ্টি, বাজারে আকাশছোঁয়া দাম সবজির

একে আমফান, তার উপর বারবার ঝড়বৃষ্টি, বাজারে আকাশছোঁয়া দাম সবজির

সবজি চাষিরা বলছেন, যে ক্ষতি হয়েছে তাতে খুব তাড়াতাড়ি সবজির দাম কমবে এমনটা আশা না করাই ভালো।

  • Share this:

Saradindu Ghosh

#বর্ধমান: বর্ধমান শহরে অমিল শশা, পটল সহ নানা সবজি। চাহিদার তুলনায় যোগান একেবারেই কমে যাওয়ায় দাম বেড়েছে সব সবজির। খুচরো দোকানদারদের অনেকেই সবজির লাগামছাড়া দাম শুনে প্রায় খালি হাতে পাইকারি বাজার থেকে ফিরছেন। আলু, পেঁয়াজ, কুমড়ো ছাড়া অন্য সবজি রাখছেন না । যে দু-একজন পটল, শশা, ঝিঙে সংগ্রহ করেছেন তাঁরাও আকাশছোঁয়া  দাম হাঁকছেন। বিক্রেতারা বলছেন, আমফান ও তার পরবর্তী সময়ে দফায় দফায় ঝড় ও মুষলধারে বৃষ্টির কারণে শশা, পটল, ঝিঙে চাষ প্রায় নষ্ট হয়ে গিয়েছে। ফলন একেবারেই কমে গিয়েছে  পাইকারি বাজারে তার যোগান না থাকায় দাম উঠেছে অনেকটাই। সে জন্যই  এইসব সবজির দাম হঠাৎ করে অনেকটা বেড়ে গিয়েছে।

পূর্ব বর্ধমান জেলার পূর্বস্থলীতে ব্যাপক পরিমাণে সবজির চাষ হয়। এখানকার কালেখাঁতলা পাইকারি বাজারে আশপাশ এলাকা থেকে সবজি আসে। স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, লকডাউনের সময় প্রচুর সবজি উৎপাদন হয়েছে। কিন্তু তা জেলার বাইরে রফতানি করা যায়নি। তাই জলের দরে সব সবজি বেচে দিতে হয়েছে। এখন আনলক ওয়ানের হাত ধরে কিছু কিছু সবজি রফতানি শুরু হয়েছে। কিন্তু এখন সবজির উৎপাদন একেবারেই কমে গিয়েছে বলা চলে। বহু জমির ফসল আমফান ও তারপরের ঝড়-বৃষ্টিতে নষ্ট হয়ে গিয়েছে। এমনিতেই বাইরের জেলার চাহিদা তার ওপর ফলন একেবারেই কমে যাওয়ায় দাম বেড়েছে।

বর্ধমানের খুচরো বাজারে শশার দেখা মিলছে না বললেই চলে। যেটুকু রয়েছে তার কেজি প্রতি দাম ৭০-৮০ টাকা। বাজার থেকে উধাও হয়ে গিয়েছে পটলও। দশ টাকা কেজির পটল এখন বিক্রি হচ্ছে ৬০-৭০ টাকা কেজি দরে। ভাল জাতের ঝিঙে আগে ১২ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছিল। এখন সেই ঝিঙেই বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা কেজি দরে। দাম বেড়েছে উচ্ছে করোলা, ঘি করোলা, কাঁচা পেঁপে,কাঁচা লংকা, বেগুন, ক্যাপসিকাম, টমেটো সবেরই। সবজি চাষিরা বলছেন, যে ক্ষতি হয়েছে তাতে খুব তাড়াতাড়ি সবজির দাম কমবে এমনটা আশা না করাই ভালো। সামনেই বর্ষার মরশুম। এখন বেশি বৃষ্টি হলেই জমিতে জল দাঁড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা। তাই নতুন করে চাষ করে ফসল ফলাতে বেশ কিছুদিন সময় লাগবে বলেই মনে করা হচ্ছে। সবজির আকালের এই সময়ে চাহিদা বেড়েছে আলুর। ফলে দাম চড়ছে তারও। বর্ধমানের খুচরো বাজারে জ্যোতি আলু ২৪ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে।

Published by: Simli Raha
First published: June 3, 2020, 5:29 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर