বাছুরকে মারা নিয়ে প্রতিবেশীদের ঝগড়া, বৃদ্ধকে খুঁটিতে বেঁধে ইট দিয়ে ঠুকে ভাঙা হল দাঁত

নির্যাতিত ওই ব্যক্তির অভিযোগ, তাঁকে বেঁধে রাখা হয়েছিল এবং ইট ছোড়া হয়েছিল তাঁর দিকে ৷ এমনকি ইট দিয়ে ঠুকে দাঁত ভেঙে দেওয়ারও অভিযোগ ওঠে।

নির্যাতিত ওই ব্যক্তির অভিযোগ, তাঁকে বেঁধে রাখা হয়েছিল এবং ইট ছোড়া হয়েছিল তাঁর দিকে ৷ এমনকি ইট দিয়ে ঠুকে দাঁত ভেঙে দেওয়ারও অভিযোগ ওঠে।

  • Share this:

Supratim Das

#দুবরাজপুর: বীরভূমের দুবরাজপুর থানা এলাকার লাগোয়া গ্রামে বাছুরকে মারা নিয়ে বচসার শুরু দুই প্রতিবেশীর সঙ্গে। পরে তা মারামারির রূপ নিল।

গতকাল রাতের বেলায় দুই প্রতিবেশী, একে অপরের বিরুদ্ধে হামলার  অভিযোগ করেন। এক পক্ষের প্রতিবেশীকে অপর পক্ষের প্রতিবেশীরা পোলে বেঁধে মারধোর করে বলে অভিযোগ। নির্যাতিত ওই ব্যক্তির অভিযোগ, তাঁকে বেঁধে রাখা হয়েছিল এবং ইট ছোড়া হয়েছিল তাঁর দিকে ৷ এমনকি ইট দিয়ে ঠুকে দাঁত ভেঙে দেওয়ারও অভিযোগ ওঠে। এক যুবকের হাতও ভেঙে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে ৷

খবর পেয়ে গ্রামে পৌছায় বীরভূমের দুবরাজপুর থানার পুলিশ ৷ পুলিশ গিয়ে সংঘর্ষ থামিয়ে আহতদের উদ্ধার করে। ঘটনায় আহত ৬ জন, তাঁদের প্রথমে দুবরাজপুর গ্রামীন হাসপাতাল ও পরে সিউড়ি সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। জানা গিয়েছে, ওই দুই প্রতিবেশী একে অপরের আত্মীয়। এর আগেও বেশ কয়েকবার তাঁদের মধ্যে বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে বচসার ঘটনা ঘটেছে ৷ তবে এই ধরনের বড়সড় সংঘর্ষের ঘটনা এই প্রথম ঘটল। এই ঘটনায় বীরভূমের দুবরাজপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন আহত প্রতিবেশীরা। অন্যান্য প্রতিবেশীরা জানিয়েছে, গতকাল রাতে হঠাৎ করেই সংঘর্ষ বেধে যায় ওই দুই প্রতিবেশীর মধ্যে।

Published by:Simli Raha
First published: