প্রাতর্ভ্রমণের সময় কুপিয়ে খুন বাঁকুড়ায়, ঘটনার সাক্ষী মহিলাকেও কোপানো হল

প্রাতর্ভ্রমণের সময় কুপিয়ে খুন বাঁকুড়ায়, ঘটনার সাক্ষী মহিলাকেও কোপানো হল
  • Share this:

#বাঁকুড়া: সাত সকালে বাঁকুড়ায় জোড়া খুন। সোমবার প্রাতর্ভ্রমণের সময় মগরা মোড়ে বনকর্মীকে কুড়ুল দিয়ে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ। ঘটনার সাক্ষী এক মহিলাকেও কুপিয়ে খুন করা হয়। অভিযুক্ত গ্রেফতার। গ্রাম্য বিবাদের জেরে খুন বলে প্রাথমিক অনুমান পুলিশের।

সোমবার কাকভোরে বাঁকুড়ায় জোড়া খুন। বাঁকুড়ার সদর থানার মগরা মোড়ে খুন হন গুণময় চৌধুরী ও নিছু রায়। স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রাতর্ভ্রমণের বেরিয়ে পেশায় বনকর্মী গুণময় চৌধুরীকে কুডুল নিয়ে ধাওয়া করে গ্রামেরই বাসিন্দা অরূপ চৌধুরী। মগরা মোড়ে গুণময়ের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে অরূপ। কুড়ুলের এলোপাথারি কোপে রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়েন বনকর্মী। সে সময়ে প্রাতর্ভ্রমণ সেরে ফিরছিলেন নিছু রায় নামে স্থানীয় এক মহিলা। ঘটনা দেখে ফেলায় তাঁকেও কুড়ুলের কোপ মারে অরূপ। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় দু'জনের।

এরপরই অরূপ চৌধুরীর বাড়িতে চড়াও হন স্থানীয় বাসিন্দারা। শুরু হয় ভাঙচুর। পরিবার-সহ চম্পট দেয় অভিযুক্ত। অরূপের দুই ভাই মিলন ও গণেশকে হাতের কাছে পেয়ে মারধর করে উত্তেজিত জনতা। তাদের উদ্ধার করে বাঁকুড়া মেডিক্যালে পাঠায় পুলিশ। এরপর গ্রামেরই এক জায়গায় গা ঢাকা দিয়ে থাকা অভিযুক্ত অরূপকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ধৃত অরূপের বাবা বৈদ্যনাথ চৌধুরীর সঙ্গে জমিজায়গা নিয়ে বিবাদ চলছিল প্রতিবেশী নিহত গুণময় চৌধুরীর। ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরেই খুন বলে প্রাথমিক অনুমান পুলিশেরও। অরূপকে জেরা করে খুনের কারণ সম্বন্ধে নিশ্চিত হতে চায় পুলিশ।

First published: November 5, 2019, 3:36 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर