• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • Purbasthali: বিষ ছড়িয়ে মেরে ফেলা হচ্ছিল বক, পানকৌড়ি! দুই ব্যক্তির কাণ্ডে হইচই পূর্বস্থলীতে

Purbasthali: বিষ ছড়িয়ে মেরে ফেলা হচ্ছিল বক, পানকৌড়ি! দুই ব্যক্তির কাণ্ডে হইচই পূর্বস্থলীতে

Purbashtali News: বিষ ছড়িয়ে পাখি মারার ছক! কেন এমন করছিল ওই দুই ব্যক্তি।

Purbashtali News: বিষ ছড়িয়ে পাখি মারার ছক! কেন এমন করছিল ওই দুই ব্যক্তি।

Purbashtali News: বিষ ছড়িয়ে পাখি মারার ছক! কেন এমন করছিল ওই দুই ব্যক্তি।

  • Share this:

#পূর্বস্থলী: এমনিতেই পুকুর, ডোবা বুজিয়ে ইমারত তৈরির জন্য বক, পানকৌড়ির সংখ্যা আগের থেকে অনেক কমেছে। তার মধ্যে আবার বিষ দিয়ে বক, পানকৌড়ি মারার ছক!

বিষ ছড়িয়ে পাখি মারার মারাত্মক অভিযোগ উঠলো দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে। মাছ বাঁচাতে পাখি মেরে ফেলার উদ্যোগ নিয়েছিল তারা। এলাকার বাসিন্দাদের জেরায় তাঁরা সে কথা জানিয়েছে বলে দাবি স্থানীয়দের। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পূর্ব বর্ধমান জেলার পূর্বস্থলীতে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। অভিযুক্ত দুই ব্যক্তিকে আটক করে থানায় নিয়ে গিয়েছে নাদনঘাট থানার পুলিশ।

পূর্বস্থলী ১ নম্বর ব্লকের শ্রীরামপুর পঞ্চায়েতের অন্তর্গত একতা পল্লী এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। পাশ দিয়েই বয়ে গিয়েছে গঙ্গা। তার পাশের জলাভূমি মুড়ি গঙ্গা। এই মুড়ি গঙ্গায় জলের ওপর রয়েছে শর গাছের জঙ্গল। সেই জঙ্গলে হাজারো পাখির বাস। সেই পাখিদেরই বিষ দিয়ে মারা হচ্ছিল বলে অভিযোগ।

এই মুড়ি গঙ্গায় বিভিন্ন প্রজাতির নানান পরিযায়ী পাখিও আসে। সুদূর সাইবেরিয়া থেকে আসা পাখিরা এখানে শীতের কয়েক মাস কাটিয়ে যায়। তবে এই বছর এখনও তাদের আগমন শুরু হয়নি। বিষক্রিয়ায় বক,  পানকৌড়ি সহ বেশ কিছু স্হানীয় পাখি মারা গিয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, সকালে মুড়িগঙ্গার ওপর অনেক পাখির মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। কেন পাখি মারা যাচ্ছে, রোগে না অন্য কোনও কারণে, তা জানতে কৌতূহলী হয়ে পড়েন অনেকেই। সেসব নিয়ে আলোচনা চলছিল সকাল থেকেই। এর পর দুই ব্যক্তির আচরণে সন্দেহ হয় বাসিন্দাদের।

আরও পড়ুন- মরণোত্তর দেহদান দৃষ্টিহীন শিক্ষিকার, নজির গড়লেন নদিয়ার সুমিতা কর্মকার 

ওই দুই ব্যক্তি সেখানে ঘোরাঘুরি করছিল। স্থানীয় বাসিন্দারা ওই দুই ব্যক্তিকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। তখনই তারা জানায়, পাখিরা মাছ খেয়ে নিচ্ছিল। তাই  পাখি মারতে বিষ প্রয়োগের কথা তারা স্বীকার করে বলে দাবি স্থানীয়দের।

এর পরই ওই দুই ব্যক্তিকে ধরে নাদনঘাট থানা পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয়রা। নাদনঘাট থানার পুলিশ ওই দুই ব্যক্তিকে আটক করে নিয়ে যায়। বাসিন্দারা জানান, এলাকার মানুষ প্রকৃতি সচেতন। তারাই পাহারা দিয়ে চোরা শিকারিদের হাত থেকে পরিযায়ী পাখিদের বাঁচিয়ে রাখে। তাদের বুক দিয়ে আগলে রাখা হয় বলে দাবি করেছে তাঁরা। তাই বিষ প্রয়োগে প্রচুর পাখি মেরে ফেলার ঘটনায় ক্ষুব্ধ এলাকার বাসিন্দারা।

Published by:Suman Majumder
First published: