দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্ত্রী-র গায়ে হাত তুললেই শুধু ডোমেস্টিক ভায়োলেন্স! আর কী কী পরে এর আওতায় হবু দম্পতিদের শেখাবে মহিলা কমিশন

স্ত্রী-র গায়ে হাত তুললেই শুধু ডোমেস্টিক ভায়োলেন্স! আর কী কী পরে এর আওতায় হবু দম্পতিদের শেখাবে মহিলা কমিশন
Photo- File

শুধু স্ত্রী-রাই যে স্বামীদের হাতে নিগৃহীতা হন তা নয় স্বামীরাও হন নিগৃহীত

  • Share this:

#বর্ধমান: আপনি কি স্ত্রীকে ভালোবেসে বেড টি এগিয়ে দেন? অসুস্থ হলে তাঁকে রান্না ঘরে না গিয়ে বিশ্রাম নিতে বলেন! হয়তো বলেন। তাহলে ভালো। আবার উত্তরটা নাও হতে পারে।  আসলে শারীরিক নির্যাতনই একমাত্র ডোমেস্টিক ভায়োলেন্স নয়। তার নানান দিক রয়েছে। সেসব ব্যাপার জানা নেই অনেকেরই। সব মিলিয়ে এখনও সমাজের কোনে কোনে সচেতনতার অভাব রয়ে গিয়েছে। সেই সচেতনতা বাড়াতে কলেজ পড়ুয়াদের নিয়ে বিশেষ শিবির করবে রাজ্য মহিলা কমিশন।

সোমবার বর্ধমানে এসেছিলেন রাজ্য মহিলা কমিশনের চেয়ার পার্সন লীনা গঙ্গোপাধ্যায়।  পূর্ব বর্ধমান জেলা শাসকের কনফারেন্স হলে প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। মূলত ডোমেস্টিক ভায়োলেন্স ও তার প্রতিকারের বিষয়েই আলোচনা হয়। এ জেলায় ডোমেস্টিক ভায়োলেন্সের প্রবণতা কেমন, পুলিশ প্রশাসনের সহায়তা কতটা পান নির্যাতিতারা সে ব্যাপারেও তথ্য সংগ্রহ করে মহিলা কমিশন।

সেই বৈঠকেই মহিলা কমিশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ডোমেস্টিক ভায়োলেন্সের বিষয়ে সচেতনতার পাঠ দেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে। সে জন্যই রাজ্য জুড়ে জেলায় জেলায় বিশেষ শিবির করা হবে হবু স্বামী- স্ত্রীদের নিয়ে। স্কুলের মেয়েদের থেকেও এ ব্যাপারে কলেজ পড়ুয়াদের সচেতন করার ওপর বাড়তি জোর দেওয়া হচ্ছে। আজকের কলেজ পড়ুয়ারাই আগামী দিনের স্বামী অথবা স্ত্রী। তাই তাদের সচেতন করা গেলে ডোমেস্টিক ভায়োলেন্স অনেক কমানো যাবে বলে আশাবাদী মহিলা কমিশন।

কমিশনের মতে, আজকের কলেজ ছাত্র যদি ডোমেস্টিক ভায়োলেন্সের বিষয়ে সচেতন হয় তবে সে পরিবারের অন্যান্যদের সে ব্যাপারে সতর্ক করবে। আবার নির্যাতনের শিকার হলে কোথায় গেলে সুবিচার মিলবে তা আগাম জানা থাকলে সুবিধা পাবেন নির্যাতিতা। সেজন্য ডোমেস্টিক ভায়োলেন্স কী ও তার প্রতিকার কিভাবে মিলতে পারে তা কলেজ ছাত্রীদের জেনে রাখা জরুরি।

চেয়ার পারসন লীনা গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, শ্বশুরবাড়িতে স্বামী বা শ্বশুর শাশুড়ির অত্যাচারই একমাত্র ডোমেস্টিক ভায়োলেন্স নয়। তার অনেক রকম ভেদ রয়েছে। অনেক ক্ষেত্রে থানায় গেলে সুরাহা মেলে। আবার তার বিপরীত ঘটনার উদাহরণও প্রচুর রয়েছে। সেজন্য নির্দিষ্ট কী কী আইনি ব্যবস্থা রয়েছে তা হবু স্বামী স্ত্রীদের জেনে রাখা জরুরি।

Saradindu Ghosh

Published by: Debalina Datta
First published: March 2, 2020, 7:53 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर