নৈহাটি বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দিল রাজ্য সরকার

নৈহাটি বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দিল রাজ্য সরকার

শুক্রবার ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির মালিকদের ক্ষতিপূরণ দিল রাজ্য সরকার

  • Share this:

#নৈহাটি: উড়ে গিয়েছে বাড়ির চাল। দেওয়ালে ফাটল। লণ্ডভণ্ড ঘর। কোনওরকমে প্রাণ বেঁচেছে। মৃত্যুকে কাছ থেকে দেখার আতঙ্ক এখনও চোখে-মুখে। নৈহাটিতে বাজি নিষ্ক্রিয় করতে গিয়ে ভয়াবহ বিস্ফোরণের শব্দে ধ্বংসের ছবি নৈহাটি ও গঙ্গার ওপারের চুঁচুড়ার বেশ কয়েকটি বাড়িতে।

নৈহাটির ছাই ঘাটে বাজি নিষ্ক্রিয় করতে গিয়ে বিস্ফোরণের আওয়াজে অনেক বাড়ি ভেঙে পড়ে। শুক্রবার, ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির মালিকদের ক্ষতিপূরণ দিল রাজ্য সরকার। ১৫৬ টা পরিবারের মধ্যে কেউ ৩৫ হাজার টাকা, কেউ ২০ হাজার টাকা, কেউ ১৫ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ হিসাবে পেলেন। ক্ষতিগ্রস্তদের হাতে এই চেক তুলে দেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, বিধায়ক পার্থ ভৌমিক, পুলিশ কমিশনার মনোজ বর্মা, ডিএম চৈতালি চক্রবর্তী।

বাজি নিষ্ক্রিয় করতে গিয়ে নৈহাটিতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের তীব্রতায় কেঁপে ওঠে গঙ্গার ওপারের চুঁচুড়াও। বিস্ফোরণের শব্দে মূহূর্তে লন্ডভন্ড ঘর। নৈহাটির ছাইঘাটে বন্ধ গৌরাপুর জুটমিলের আবাসনে তখন ত্রাহি ত্রাহি রব।

ভেঙে পড়েছে অ্যাসবেস্টসের ছাদ। দেওয়ালে বড় বড় ফাটল। ঘটনার সময়ে পাঁচ বছরের ছেলেকে নিয়ে শুয়েছিলেন সর্বাণী মণ্ডল। প্রচণ্ড শব্দে হঠাত-ই হুড়মূড় করে ভেঙে পড়ল ঘরের চাল। একটুর জন্য প্রাণে বেঁচেছে ছেলে, শ্বশুর, শাশুড়ি। এরপর কি হবে? জানা নেই। একই হাল পাশের বাড়ির। লোহার জানলা ছিটকে পড়েছে। দুমড়ে, মুচড়ে গিয়েছে ফ্যাান। সবকিছু তছনছ। যেন ঝড় বয়ে গিয়েছে। গঙ্গার ওপারের চুঁচুড়ার ছবিটাও এক। নদীর কাছেই বাড়ি রেশমী শীলের। বিস্ফোরণের শব্দে তিনতলার ফ্ল্যাটের জানলার সব কাচই ভেঙে, গুড়িয়ে গিয়েছে। সুরঞ্জন ধর কিংবা বিক্রমজিৎ কোলে...সকলের বাড়ির হাল এক। ঘরে বড় ফাটল। জানলা, দরজার কাঁচ চুরমার। কয়েকদিন ধরেই বাজি ফাটানোর বিকট শব্দ পাচ্ছিলেন। কিন্তু বিপদ যে শিয়রে, বুঝতে পারেননি কেউই। এদিন মৃত্যুকে কাছ থেকে দেখে আতঙ্ক যেন কাটছেই না।

First published: January 17, 2020, 1:02 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर