Home /News /south-bengal /
আসানসোলে খুন ইসরোর আধিকারিক

আসানসোলে খুন ইসরোর আধিকারিক

বার্ণপুরে খুন হলেন ইসকোর আধিকারিক ৷ মৃত অফিসারের নাম এ ভেক্টটেশ্বর রাও ৷ আসানসোলের বার্ণপুরের হীরাপুর এলাকার বাসিন্দা ছিলেন তিনি ৷ বুধবার সকালে অফিসারের বাড়ি থেকেই উদ্ধার হল তাঁর রক্তাক্ত মৃতদেহ ৷ খবর পেয়ে ঘটনার তদন্তে নেমেছে হীরাপুর থানার পুলিশ ৷

আরও পড়ুন...
  • Last Updated :
  • Share this:

    #আসানসোল: বার্ণপুরে খুন হলেন ইসকোর আধিকারিক ৷ মৃত অফিসারের নাম এ ভেক্টটেশ্বর রাও ৷ আসানসোলের বার্ণপুরের হীরাপুর এলাকার বাসিন্দা ছিলেন তিনি ৷ বুধবার সকালে অফিসারের বাড়ি থেকেই উদ্ধার হল তাঁর রক্তাক্ত মৃতদেহ ৷ খবর পেয়ে ঘটনার তদন্তে নেমেছে হীরাপুর থানার পুলিশ ৷

    বার্নপুর ইসকোর ডেভেলপমেন্ট বিভাগের কর্মী এ ভেঙ্কটেশ্বর রাও। বয়স পঞ্চান্ন। দক্ষিণ ভারতের এই বাসিন্দা কর্মসূত্রে হীরাপুর থানার ইসমাইলের বিবেকানন্দ কলোনিতে থাকতেন। সঙ্গী বলতে বৃদ্ধা মা। বুধবার সকালে এই বাড়িরই দোতলার ঘর থেকে তাঁর রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

    নিহতের মা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার বিকেলে তিন-চারজন যুবক ছেলের খোঁজে বাড়িতে আসে। ছেলেকে নিয়ে তারা চলে যায় দোতলায়। কখন তারা বেড়িয়ে যায় জানেন না। বুধবার সকালে পরিচারিকা এলে ছেলেকে দোতলা থেকে ডেকে দিতে বলেন তিনি। তখনই ঘরে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায় ভেঙ্কটেশ্বর রাওকে।

    পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতের মাথায় প্রচুর ক্ষতচিহ্ন রয়েছে ৷ মাথায় ভারি কিছু দিয়ে আঘাত করে খুন করা হয়েছে বলে অনুমান পুলিশের ৷ ঘর থেকে উদ্ধার হয়েছে রক্তমাখা লোহার রড ৷ এই লোহার রডটিই খুনের অস্ত্র বলে মনে করছে পুলিশ ৷ রডটি ফরেন্সিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে ৷ প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, খুনের পিছনে পরিচিত কারোর হাত আছে ৷ তবে কী কারণে এই খুন তা জানতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ ৷ উঠে এসেছে অনেকগুলি সম্ভাব্য কারণ ৷

    সম্ভাবনা ১

    ৫ বছর ধরে স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলছিল এ ভেঙ্কটেশ্বর রাও-র, সেই সূত্রেই কী খুন ?

    সম্ভাবনা ২ইসকোর সাধারণ কর্মীর পক্ষে কী ৮ কাঠা জমির ওপর বিশাল বাড়ি তৈরি করা সম্ভব ? যে বিভাগে কাজ করতেন সেখানে তাঁর সঙ্গে কী লোহা মাফিয়াদের কোনও যোগ ছিল ? তাদের সঙ্গে ঝামেলার জেরেই কী খুন?

    সম্ভাবনা ৩বাড়ির একতলা ও দোতলায় ভাড়াটিয়ারা থাকেন ৷ ছ’মাস আগে ভাড়া নিয়ে ভাড়াটিয়া এক স্বেচ্ছাসেবি সংগঠনের সঙ্গে তাঁর বচসা হয়৷ ভাড়া নিয়ে বচসার জেরেই কী এই ঘটনা?

    এছাড়াও কারও সঙ্গে ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরেই খুনের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছে না পুলিশ ৷ মৃত এ ভেক্টটেশ্বর রাও-এর দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে ৷

    First published:

    Tags: Burnpur, IISRO, IISRO officer Dead, IISRO officer Murder, Murder