দক্ষিণবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

নেই গার্ডওয়াল, জরাজীর্ণ সেতু দিয়ে প্রাণ হাতে করে যাতায়াত করতে হচ্ছে বাসিন্দাদের 

নেই গার্ডওয়াল, জরাজীর্ণ সেতু দিয়ে প্রাণ হাতে করে যাতায়াত করতে হচ্ছে বাসিন্দাদের 

গুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তায় প্রতিদিন কয়েক হাজার মালবাহী গাড়ি, যাত্রীবাহী বাস চলে।অবিলম্বে সেতু মেরামতির দাবি জানাচ্ছেন বাসিন্দারা।

  • Share this:

#বর্ধমান:বেহাল সেতুর জরাজীর্ণ অবস্থার জেরে প্রাণ হাতে করে যাতায়াত করতে হচ্ছে বাসিন্দাদের। পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রাম থেকে ভেদিয়া যাওয়ার রাস্তাস্কয় কুনুর নদীর ওপর এই সেতুর বেহাল অবস্থায় আতঙ্কিত এলাকার বাসিন্দারা। অভিযোগ, অন্তত আট দশ বছর এই সেতুর কোনও সংস্কার হয়নি। সেতুর পরতে পরতে বয়সের ছাপ স্পষ্ট। পিচ উঠে গিয়েছে কবেই। পাথরের হাড়-কঙ্কাল চাপা পড়েছে মাটিতে। তার ওপর কোনও গার্ডওয়াল নেই। পরিসরও ছোটো। সব মিলিয়ে প্রাণ হাতে নিয়ে এই সেতু পারাপার করতে হচ্ছে সকলকেই।

বাসিন্দারা বলছেন, দুদিন আগেই একটি ট্রাক্টর কুনুর নদীর গভীর জলে সেতু থেকে পড়ে ডুবে যায়। এরকম ঘটনা আখচারই ঘটছে। এই সেতুর ওপর দিয়েই যাত্রীবাহী বাস চলাচল করে। সন্ধের পর সামান্য আলোও থাকে না। তাই যেকোনো সময় পথ ভুল হলে সেতু থেকে যাত্রীবাহী বাস, গাড়ি পড়ে গিয়ে বহু মানুষের প্রাণহানি ঘটে যাওয়ার আশংকা থেকেই যাচ্ছে।

এলাকার বাসিন্দারা জানালেন, মাঝেমধ্যে কেবল তাপ্পি মারা হয়।বৃষ্টি হলেই হাড় কঙ্কাল বেরিয়ে পড়ে।স্থায়ী মেরামতের কাজ হয়নি বহুদিন।তাই কয়েকদিনের মধ্যেই পুরোনো অবস্থায় ফিরে আসে সেতু।

আউশগ্রাম থেকে ভেদিয়া হয়ে বোলপুর যাওয়ার রাস্তা এটি। গুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তায় প্রতিদিন কয়েক হাজার মালবাহী গাড়ি, যাত্রীবাহী বাস চলে।অবিলম্বে সেতু মেরামতির দাবি জানাচ্ছেন বাসিন্দারা। তাঁরা বলছেন, জেলা প্রশাসন থেকে শুরু করে স্থানীয় ব্লক অফিস সর্বত্র এই বেহাল সেতু সংস্কারের আবেদন জানানো হয়েছে। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি শুধু এই সেতুই নয়,এই রাস্তার ওপর মোট তিনটি এই ধরনের সেতু রয়েছে। প্রত্যেকটির  অবস্থাই বেহাল। অবিলম্বে এই সেতু গুলি সংস্কার করা না হলে বন্যার সময় তা ভেঙে গিয়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাবার আশঙ্কাা থেকে যাচ্ছে।

জেলা পরিষদ সদস্য শফিউল আলম মণ্ডলের বক্তব্য, ব্রিজ নিয়ে আমরা খুবই উদ্বিগ্ন। রাস্তা সংস্কারের সময় ব্রিজের মেরামতি সেভাবে হয়নি। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে মেরামতির ব্যবস্থা করবো।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: September 9, 2020, 4:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर