Home /News /south-bengal /
Rahul Sinha: রাজ্যপালই বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য থাকবেন, বর্ধমানে দাবি রাহুল সিনহার

Rahul Sinha: রাজ্যপালই বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য থাকবেন, বর্ধমানে দাবি রাহুল সিনহার

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

Rahul Sinha: সামনে পঞ্চায়েত ভোট। এই পঞ্চায়েত ভোটে কর্মীদের দিকে চাঙ্গা করতে কি ভাবছেন? রাহুল সিনহা বলেন, ভারতীয় জনতা পার্টি সংবিধান মেনে চলা সংগঠন নির্ভর দল।

  • Share this:

    #বর্ধমান: মন্ত্রীসভায় পাশ করিয়ে নিলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য রাজ্যপালই থাকবেন। তৃণমূলের ক্ষমতা নেই রাজ্যপালকে বাদ দেওয়ার। সোমবার বাঁকুড়া থেকে কলকাতা ফেরার পথে বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাহুল সিনহা বর্ধমানে  এমনই মন্তব্য করলেন। তিনি বলেন,তৃণমূল চাইলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য পদ থেকে রাজ্যপালকে সরানো যাবে না।রাজ্যপাল তৃণমূলের দুর্নীতি, চুরি নিয়ে সরব হচ্ছেন। তাই তাঁকে সরানোর চেষ্টা চলছে। কিন্তু তৃণমূলের ইচ্ছা পূরণ হবে না। আজ তারা রাজ্যপালকে অপমান করছেন। কিছুদিন পর এ ব্যাপারে মন্ত্রিসভাই অপমানিত হবে।

    বিজেপি নেতা রাহুল  বলেন, বিজেপি ছেড়ে যাঁরা যাবার তাঁরা গিয়েছেন। যাঁরা রয়েছেন তাঁরা সাচ্চা বিজেপির কর্মকর্তা। এ দিন রাহুল সিনহা তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে বলেন, সামনেই পঞ্চায়েত নির্বাচন। তৃণমূলের সাহস থাকলে অবাধ ও সুষ্ঠ পঞ্চায়েত নির্বাচন করে দেখাক।

    আরও পড়ুন: করা হল সতর্ক, তবে কলকাতা হাই কোর্টে বড় স্বস্তি পেলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

    এরই পাশাপাশি অর্জুন সিংয়ের তৃণমূলে ফিরে যাওয়া নিয়ে রাহুল সিনহা জানান,অর্জুন সিংহ মাসল ম্যান। তার সঙ্গীসাথীরা সবাই তৃণমূলে চলে গিয়েছে। তাই তিনিও চলে গিয়েছেন। দুটি মামলায় তাঁর গ্রেফতারি আটকানো গেলেও অনেক মামলা ঝুলছে তার ওপর। তাই তৃণমূলে যাওয়া ছাড়া তার আর কোনও গতি ছিল না।

    আরও পড়ুন: মোদি সরকারের ৮ বছর, অমিত শাহের কথায় ২০৪৭! কেন উঠল ২৫ বছর পরের কথা?

    সামনে পঞ্চায়েত ভোট। এই পঞ্চায়েত ভোটে কর্মীদের দিকে চাঙ্গা করতে কি ভাবছেন? রাহুল সিনহা বলেন, ভারতীয় জনতা পার্টি সংবিধান মেনে চলা সংগঠন নির্ভর দল। সংগঠনকে চাঙ্গা করার কাজ সারা পশ্চিমবাংলায় চলছে। বর্ধমানেও চলছে। সংগঠনকে চাঙ্গা করার কাজ আমরা শুরু করেছি। একটাই বড় প্রশ্ন হচ্ছে, পঞ্চায়েত ইলেকশন সত্যিকারের ইলেকশন হবে কিনা। গতবারে আমরা পঞ্চায়েত ইলেকশন দেখেছি। সেই একই লুটের পরিণতি হবে কিনা সেটাই দেখার। ইলেকশন যদি রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে দিয়ে করানো হয় তাহলে রাজ্য নির্বাচন কমিশনার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় থাকাও যা বর্তমানে যিনি আছেন তিনি থাকাও তাই। তৃণমূল কংগ্রেসের যদি সাহস থাকে অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ  নির্বাচন করে দেখাক।

    শরদিন্দু ঘোষ 

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Rahul Sinha

    পরবর্তী খবর