• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • পুজোর আড্ডা নেই!‌ নিয়মের কড়াকড়িতে মন খারাপ বারাসতের

পুজোর আড্ডা নেই!‌ নিয়মের কড়াকড়িতে মন খারাপ বারাসতের

বারাসতের যুবক সংঘ, চারের পল্লী, কল্যানকৃৎ, সবুজ সংঘের দুর্গা পুজোকে নিয়ে মাতেন সবাই। আর শেঠপুকুর সার্বজনীন দূর্গা পূজার মেলায় সামিল না হওয়া মানে এবার পুজোর আনন্দ হল না।

বারাসতের যুবক সংঘ, চারের পল্লী, কল্যানকৃৎ, সবুজ সংঘের দুর্গা পুজোকে নিয়ে মাতেন সবাই। আর শেঠপুকুর সার্বজনীন দূর্গা পূজার মেলায় সামিল না হওয়া মানে এবার পুজোর আনন্দ হল না।

বারাসতের যুবক সংঘ, চারের পল্লী, কল্যানকৃৎ, সবুজ সংঘের দুর্গা পুজোকে নিয়ে মাতেন সবাই। আর শেঠপুকুর সার্বজনীন দূর্গা পূজার মেলায় সামিল না হওয়া মানে এবার পুজোর আনন্দ হল না।

  • Share this:

দুর্যোগের পূর্বাভাসকে পাশ কাটিয়ে বাঙালির সপ্তমীর সন্ধ্যা। জনজোয়ার বলা যাবে না। তবে করোনা অতিমারিকে তুড়ি মেরে মণ্ডপে মণ্ডপে যুবক যুবতীদের লাগাম ছাড়া ভিড় জানান দিচ্ছে আজ নয়, পুজো শুরু হয়েছে দু’‌দিন আগেই। সারাদিন রোদ আর মেঘের লুকোচুরি। আর হালকা ঠান্ডা বাতাস না শ্রাবন, না শরৎ। তবুও আবিষ্ট করা আবহাওয়া। সপ্তমীর অঞ্জলি এবার সেভাবে না হলেও সকাল সকাল কলা বৌ পুকুরে নিয়ে যেতে বারাসত চারের পল্লীর ঢাকি পুরোহিতদের সঙ্গে সৌমি, রাখিরা পৌছে গিয়ে ছিল সময় মতো মণ্ডপে। শাড়ির আঁচল সামলাতে সামলাতে সৌমির কথায় মুখে মাস্ক দিয়ে হাতে গ্লাভস পড়ে কলা বৌ স্নান জীবনে প্রথম। যাক তবু পুজোটা হচ্ছে। এটাই বড় কথা। মার্চ মাসে লকডাউনের শুরু দিকে প্রতি বছর পুজোর শুরু করে বারাসত চারের পল্লীর মতো বড় পুজোগুলি।

বারাসত শহর রাজ্যের কাছে কালীপুজোর জন্য বিখ্যাত। অমবস্যার অন্ধকার চিড়ে নানান রং এর আলোর ঝর্নায় চমক দেয় বারাসত। তবে বারাসতের যুবক সংঘ, চারের পল্লী, কল্যানকৃৎ, সবুজ সংঘের দুর্গা পুজোকে নিয়ে মাতেন সবাই। আর শেঠপুকুর সার্বজনীন দূর্গা পূজার মেলায় সামিল না হওয়া মানে এবার পুজোর আনন্দ হল না। গতকয়েক বছর শেঠপুকুর সার্বজনীন দুর্গা পুজোর মেলা আর আগের মত হয় না বলে মন খারাপ মৌসুমী, রিয়াদের। বারাসত পুরসভার বামনমুড়ো এলাকার বাসিন্দা রিয়া দত্তের কথায় শেঠপুকুর সার্বজনীন দুর্গাপুজোর মেলায় পূজায় আড্ডা মারাটা ছিল তাঁদের কাছে ম্যাডক্স স্কোয়ারের মতো। কিন্তু গত কয়েক বছর দূর্গা পূজায় এই ম্যাডক্স স্কোয়ারের আড্ডাটাই কেড়ে নিয়েছে উন্নয়ন নামক দূ্র্বোদ্ধ শব্দটা। কালীপুজোয় সুভাষ মাঠের মেলা আর দুর্গা পুজায় শেঠপুকুর সার্বজনীন দুর্গাপুজোর মেলাই তো ছিল বারাসতবাসীর মিলন স্থল। সে সব আজ আর নেই। সন্ধ্যার ঝিরি বৃষ্টি মন খারাপ করেছে সৌমি রাখিদের।

RAJARSHI Roy

Published by:Uddalak Bhattacharya
First published: