বালির স্কুলে মিড-মে মিলে পড়ুয়াদের কপালে জুটল শুধু মুড়ি আর পিয়াজ

বালির স্কুলে মিড-মে মিলে পড়ুয়াদের কপালে জুটল শুধু মুড়ি আর পিয়াজ

টনাটি ঘটেছে বালি অশ্বত্থতলা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে

  • Share this:

#বালি: বিগত বেশ কয়েকদিন ধরে মিড- ডে মিল ঘিরে উত্তপ্ত হয়েছে গোটা রাজ্য! এরমধ্যেই মাথাচাড়া দিল আরেক নয়া বিতর্ক! মিড ডে মিলে পড়ুয়াদের জুটল মুড়ি-পিয়াজ! ঘটনাটি ঘটেছে বালি অশ্বত্থতলা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। রান্না হয়নি মিড ডে মিল, কাজেই সোমবার পড়ুয়াদের দেওয়া হয় মুড়ি-পিয়াজ। স্থানীয়রা পড়ুয়াদের কিনে দেয় কেক-বিস্কুট। প্রধান শিক্ষকের দাবি, গ্যাসের সমস্যায় বন্ধ ছিল মিড ডে মিলের রান্না।

অন্যদিকে, ধূপগুড়ির বটতলি স্বর্ণময়ী বিদ্যালয়ে ভাত, ডাল, সয়াবিনের বদলে মিড ডে মিলের মেনুতে আম-দুধ-ভাত। রয়েছে আম-দুধের ঠান্ডার সরবতও। উদ্যোগ হাসি ফুটিয়েছে ছোট ছোট পড়ুয়াদের মুখে। আপ্লুত শিক্ষকরাও। মেনুতে প্রতিদিনই ভাত, ডাল, সয়াবিন। কখনও বা ডিম-খিচুরি। মিড-ডে মিলে প্রতিদিন এই খাবার খেয়েই অভ্যস্ত ছাত্রীছাত্রীরা। এবার ছাত্রছাত্রীদের খাবারের মেনুতে বদল এনে তাক লাগিয়ে দিল ধূপগুড়ি ব্লকের বারঘড়িয়া এলাকায় বটতলি স্বর্ণময়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়। গরমের মধ্যে ছাত্রছাত্রীদের জন্য স্কুল কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা করল আম-দুধ কাজু কিসমিস দিয়ে তৈরি ঠান্ডা সরবতের। শুধু তাই নয়, দুপুরের খাবারে ছিল আম-দুধ-ভাত। চৈত্রসংক্রান্তি উপলক্ষেও ছাত্রছাত্রীদের খাওয়ানো হয়েছিল উচ্ছের তরকারি, টক ডাল, সয়াবিন, মাশরুম। বাচ্চাদের মুখের হাসিই বারবার উৎসাহ জুগিয়েছে স্কুলের শিক্ষকদের।

First published: 08:10:47 PM Sep 03, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर