Home /News /south-bengal /
Mandarmani Hotels: মন্দারমণিতে হোটেল বুক করেছেন? কড়া নির্দেশ দিল প্রশাসন, ব্যবসায়ীদের বড় ধাক্কা

Mandarmani Hotels: মন্দারমণিতে হোটেল বুক করেছেন? কড়া নির্দেশ দিল প্রশাসন, ব্যবসায়ীদের বড় ধাক্কা

মন্দারমণিতে হোটেল বন্ধের নির্দেশ৷

মন্দারমণিতে হোটেল বন্ধের নির্দেশ৷

মন্দারমণি (Mandarmani) কোস্টাল থানা এলাকাতেই অবস্থিত ওই ৫০টি হোটেলর বিরুদ্ধে ৭ দিনের মধ্যে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতেও বলা হয়েছে বলে সুত্রের খবর।

  • Share this:

#মন্দারমণি: করোনা অতিমারির পরিস্থিতি কাটিয়ে ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরতে শুরু করেছে উপকূলবর্তী জেলাগুলি পুর্ব মেদিনীপুরের পর্যটন কেন্দ্রগুলি। শেষ কিছুদিন ভালো লাভেরও মুখ দেখছিলেন পূর্ব মেদিনীপুরের দিঘা (Dighha), তাজপুর (Tajpur), মন্দারমণির (Mandarmani) হোটেলের ব্যবসায়ীরা। এরই মাঝে তাঁদের ব্যবসায় আবারও ধাক্কা।

মন্দারমণির (Mandarmani Hotels) সমুদ্র সৈকতে দূষণ ছড়ানোর অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরে উঠছে সৈকত লাগোয়া হোটেলগুলির বিরুদ্ধে। এই তালিকায় অন্তত ৫০ টি হোটেলের নাম রয়েছে। এই হোটেলগুলির বিরুদ্ধে অভিযোগ যে হোটেলের ব্যবহৃত জল পরিশোধিত না হয়েই সরাসরি সমুদ্রে এসে পড়ছে। এর ফলে সমুদ্রে দূষণ ছড়াচ্ছে। তাই ৫০টি হোটল বন্ধ করার নির্দেশ দিল রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ।

ব্যবহৃত জল পরিশোধনের জন্য হোটেলেগুলিতে যেখানে ইপিপি ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট থাকা বাধ্যতামূলক। অভিযোগ, এই ৫০টি হোটেলের কোনওটিতেই এই ব্যবস্থা নেই।

আরও পড়ুন: পর্যটকদের জন্য সুখবর! ছুটি কাটানোর জনপ্রিয় এই গন্তব্যের উড়ান এ বার ডানা মেলবে অন্ডালের বিমানবন্দর থেকেই

স্বাভাবিক ভাবেই সৈকত পাড়ে দূষণ ছড়ানোর অভিযোগ উঠেছে এই হোটেলগুলির বিরুদ্ধে। দূষণ পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে হোটেলগুলিকে শো কজ নোটিস দিয়েছিলো পর্ষদ। নির্দিষ্ট সময়ে তার কোনও উত্তর দেয়নি এই হোটেলগুলি। তাই এই কড়া পদক্ষেপ দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ নিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। হোটেলগুলিকে বন্ধ করার নোটিস পাঠানো হয়েছে বলে খবর।

আরও পড়ুন: 'দার্জিলিং হাসছে, জুন পর্যন্ত হোটেল বুকিং নেই!', পাহাড়ে পর্যটক ফেরায় খুশি মমতা, কটাক্ষ বিজেপি-কে

মন্দারমণি কোস্টাল থানা এলাকাতেই অবস্থিত ওই ৫০টি হোটেলর বিরুদ্ধে ৭ দিনের মধ্যে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতেও বলা হয়েছে বলে সুত্রের খবর। হোটেলগুলি বন্ধ করার ক্ষেত্রে প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা দিতে বলা হয়েছে জেলা পুলিশকে। হোটেলগুলির উপরে নজর রাখতে বলা হয়েছে মন্দারমণি কোস্টাল থানাকেও। পুলিশ ছাড়াও আরও ১২টি স্থানীয় দপ্তরকে চিঠি দেওয়া হয়েছে এই বিষয়ে।

মন্দারমণি বিচ হোটেলিয়ার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের বক্তব্য, “মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে যাতে বিষয়টি দেখা হয় আমরা আবেদন জানাবো সরকারের কাছে।'

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

পরবর্তী খবর