CAA-এর প্রতিবাদে কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে পর পর বাসে আগুন, স্তব্ধ যান চলাচল

CAA-এর প্রতিবাদে কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে পর পর বাসে আগুন, স্তব্ধ যান চলাচল
কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে পর পর বাসে আগুন

হাওড়া-কলকাতা সংযোগকারী অন্যতম সড়ক কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে সম্পূর্ণভাবে স্তব্ধ যান চলাচল

  • Share this:

#হাওড়া: নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে অগ্নিগর্ভ কোনা এক্সপ্রেসওয়ে। সকাল থেকে দফায় দফায় অবরোধ-বিক্ষোভ। একাধিক বাসে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। এক্সপ্রেসওয়ের যানজটে চরম দুর্ভোগে পড়েন সাধারণ মানুষ। পরিস্থিতি সামলাতে নামান হয় অতিরিক্ত বাহিনী। প্রায় ঘণ্টা তিনেক পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে শুরু হয় যান চলাচল।

প্রতিবাদের নামে তাণ্ডব চলছেই। নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে শনিবার সকাল থেকেই অশান্ত হয়ে ওঠে কোনা এক্সপ্রেসওয়ে। গড়ফা মোড়ে অবরোধ শুরু করেন কয়েকশো মানুষ। ঘণ্টা খানেক পর পুলিশ এসে অবরোধ তুলতে গেলে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। হাওড়া-আমতা রেললাইন থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর ছোড়ে বিক্ষোভকারীরা। গাছের গুড়ি, টায়ার ফেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। ট্রেন লাইনে উঠে পড়ে আন্দোলনকারীরা। পাথর মেরে লাইন নষ্ট করার চেষ্টা বিক্ষোভকারীদের।

বিক্ষোভ হঠাতে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। এরপর উত্তেজনা আরও বাড়ে।

kona 1

গড়ফা ব্রিজের উপর সাত-আটটি বাসে ভাঙচুর চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। পুলিশের গাড়িতেও চলে হামলা। দীর্ঘক্ষণ অবরোধের জেরে যানজটে নাজেহাল হন সাধারণ মানুষ। কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে কোনা এক্সপ্রেসওয়ে।

আগুনে ভস্মীভূত হয়ে যায় একাধিক বাস।

বিক্ষোভের আঁচ ছড়িয়ে পড়ে খেজুরতলাতেও। বাস, গাড়ি ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে আনা হয় আরও বাহিনী। পুলিশ আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলার পর অবরোধ ওঠে।

দমকল কর্মীরা এসে আগুন নেভান। পোড়া বাস সরানো হয় রাস্তা থেকে। দুপুর দুটোর পর থেকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় শুরু হয় যান চলাচল।

সুতিতেও সরকারি বাস ভাঙচুর করে আগুন। বেলডাঙা স্টেশনে আগুন নেভাতে গিয়ে জ্বলল দমকলের গাড়ি।

First published: 02:49:33 PM Dec 14, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर