ফের গাফিলতিতে মৃত্যুর অভিযোগ বর্ধমান মেডিক্যালে, সাপের ছোবলে অসুস্থ শিশুকে ভর্তি করা হল অর্থোপেডিক বিভাগে

ফের গাফিলতিতে মৃত্যুর অভিযোগ বর্ধমান মেডিক্যালে, সাপের ছোবলে অসুস্থ শিশুকে ভর্তি করা হল অর্থোপেডিক বিভাগে
Representative image

মৃত শিশুর পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, চিকিৎসার গাফিলতিতেই মৃত্যু হয়েছে শিশুর

  • Share this:

#বর্ধমান: সাপের ছোবলে নীল হয়ে গিয়েছিল শিশুর পা। সাপে কামড়ানোর ইঞ্জেকশন না দিয়ে সেই শিশুকে ভর্তি করে দেওয়া হল অর্থোপেডিক বিভাগে! কিছুক্ষণ পরে সেখানে মৃত্যু হয় শিশুটির। বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এমনই ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ। চিকিৎসার গাফিলতিতে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন পরিবারের সদস্যরা। চিকিৎসার গাফিলতিতে যুক্ত চিকিৎসককে চিহ্নিত করে অবিলম্বে তার শাস্তির দাবি জানিয়েছেন মৃত শিশুর বাবা।  এ'ব্যাপারে যথাযথ তদন্ত চেয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।

মৃত শিশুর নাম আল আামিন শেখ। বাড়ি পূর্ব বর্ধমান জেলার মেমারি থানার বারারি গ্রামে। মৃত শিশুর পরিবারের সদস্যরা জানান, রবিবার রাত থেকেই পায়ের একাংশ নীল হতে শুরু করে। সেইসঙ্গে শুরু হয় পায়ে যন্ত্রণা। বিষধর সাপ বা অন্য কোন কিছুর দংশনে তা হয়ে থাকতে পারে ভেবে পায়ে কাপড়ের বাঁধন দেয় পরিবারের সদস্যরা। সোমবার সকালে তাকে মেমারির পাহাড়হাটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে তাকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়।

বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ শিশুকে নিয়ে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পৌঁছন পরিবারের সদস্যরা। সেখানে এমার্জেন্সি ওয়ার্ড থেকে  গুরুতর অসুস্থ ওই শিশুকে অর্থোপেডিক বিভাগে ভর্তি করে দেওয়া হয়। কিছুক্ষণ পর সেখানে মৃত্যু হয় তার। মৃত শিশুর পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, চিকিৎসার গাফিলতিতেই মৃত্যু হয়েছে শিশুর। ঠিক কী  কারণে ওই শিশুর মৃত্যু হয়েছে, তার চিকিৎসার কোনও গাফিলতি ছিল কিনা, তা খতিয়ে দেখা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।


SARADINDU GHOSH

Published by:Rukmini Mazumder
First published: