৪০০ লোকের জন্য মাত্র ৪টি বাথরুম!

চারশো লোকের জন্য চারটি বাথরুম। পানীয় জলের সমস্যা। নিকাশির ঠিক মতো ব্যবস্থা নেই। ঘরের সামনেই খোলা নালা।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 19, 2019 08:33 PM IST
৪০০ লোকের জন্য মাত্র ৪টি বাথরুম!
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 19, 2019 08:33 PM IST

#হাওড়া: চারশো লোকের জন্য চারটি বাথরুম। পানীয় জলের সমস্যা। নিকাশির ঠিক মতো ব্যবস্থা নেই। ঘরের সামনেই খোলা নালা। হাওড়া পুরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের পুরনো বস্তিতে গিয়ে এ সবই দেখলেন মুখ্যমন্ত্রী। এরকম বেহাল দশা দেখে তিনি ক্ষুব্ধ।

হাওড়া পুরসভার ২৯ নম্বর ওয়ার্ড। রাউন্ড ট্যাঙ্ক রোডের এই বস্তিকে সবাই পুরনো বস্তি নামে চেনে। সোমবার হাওড়া প্রশাসনিক বৈঠকের আগে হঠাৎই এই বস্তিতে ঢোকেন মুখ্যমন্ত্রী। মিনিট পনেরো ছিলেন। কথা বলেন পুরোন বস্তির বাসিন্দাদের সঙ্গে।

বস্তিবাসীর অভাব-অভিযোগের কথা শোনেন মমতা। অনেকের কাছেই নেই ডিজিটাল রেশন কার্ড ৷ তার উপর পানীয় জল ও নিকাশির সমস্যা। ‘চারশো লোকের জন্য চারটি বাথরুম। আগে তাও ছিল না ৷ ঢালাই ছিল না। মাটি ছিল। জলের কানেকশন ছিল না ৷’ এই অভিযোগ শুনে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

হাওড়ায় রেশন কার্ড বিলিতে অনিয়মের অভিযোগ ৷ জেলা প্রশাসনকে ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সমস্যা মেটাতে নির্দেশ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৷ শরৎ সদনের কাছে পুরনো বস্তির এরকম হাল দেখে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী। বস্তিবাসীদের আশা, মুখ্যমন্ত্রী দেখে যাওয়ায় এবার হয়ত হাল ফিরবে।

হাওড়ার পুরসভার মাথায় এখন প্রশাসক। ইতিমধ্যেই সেখানে পুর পরিষেবা নিয়ে নানা অভিযোগ। সামনের বছর আবার এখানে ভোট। এই প্রেক্ষাপটে পুর পরিষেবা যাতে সকলে ঠিক মতো পান সে বিষয়ে বাড়তি জোর দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।

First published: 08:33:15 PM Aug 19, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर